শনিবার ২ মার্চ ২০২৪ ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০

শিরোনাম: বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডে সংবাদকর্মীর মৃত্যু    স্মরণকালের শ্রেষ্ঠ দাবানলে জ্বলছে টেক্সাস    ছাত্রদলেরে নয়া কমিটি ঘোষণা    বেইলী রোডে অগ্নিকান্ডে নিহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে     নতুন মন্ত্রিসভায় ডাক পেলেন যারা    বেইলি রোডের আগুনে দগ্ধদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী    বেইলি রোডে আগুন: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৫ জন   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
বিআইডব্লিউটিএর প্রকৌশলী মিথিলা পারভীন এখন আমেরিকায়!
১১ বছর কর্মস্থলে অনুপস্থিত
আরিফুর রহমান
প্রকাশ: বুধবার, ১ নভেম্বর, ২০২৩, ৮:১৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

কথায় আছে ক্ষমতা আর টাকা এই দুইটি যার কাছে থাকে তার তার কাছে নাকি সবই সম্ভব। এমটাই হয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)-তে। অভিযোগ উঠেছে বিআইডব্লিউটিএর নির্বাহী প্রকৌশলী মিথিলা পারভীন টাকার ক্ষমতা ব্যবহার করে নিজ দেশ ছেড়ে এবং যে সংস্থায় চাকরি করেন তার অনুমতি না নিয়েই এখন বিদেশ পাড়ি দিয়েছেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, নিয়ন্ত্রণ কর্মকতার অনুমতি ও ছুঁটি ব্যতিরেকে দীর্ঘ ১১ বছর কর্মস্থলে অনুপস্থিত রয়েছেন বিআইডব্লিউটিএর নির্বাহী প্রকৌশলী মিথিলা পারভীন। এই অপরাধে তাকে চাকুরী থেকে সাময়িক বরখাস্ত করাসহ চুড়ান্ত বরখাস্তের কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। উল্লেখ্য, মিথিলা পারভীন বর্তমানে তার পরিবারের সাথে আমেরিকায় স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন।

সূত্র জানায়, ড্রেজিং বিভাগে নির্বাহী প্রকৌশলী (পুর) মিথিলা পারভীন বিআইডব্লিউটিএ, ঢাকা (বিআরডব্লিউটিপি-১ প্রকল্পে কমর্রত) ভিলানোভা ইউনিভার্সিটি, পেনসিলভেনিয়া, ইউনাইটেড ষ্টেটস অফ আমেরিকাতে বৃত্তিসহ উচ্চশিক্ষা (পি.এইচ.ডি প্রোগ্রামে অংশ গ্রহণের জন্য) ২৭/০৭/২০১২ইং হতে ৩১/০৭/২০১৭ইং তারিখ পর্যন্ত সর্বমোট ৬০ মাসের শিক্ষা ছুটি মঞ্জুরসহ বহিঃ বাংলাদেশ ভ্রমনের অনুমতি জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষ বরাবর গত ০৪/০৭/২০১২ইং তারিখ আবেদন করেন। উল্লেখিত ছুটি অনুমোদন হওয়ার পূর্বেই অর্থাৎ গত ২৭/০৭/২০১২ইং তারিখ হতে অদ্যাবধি নিয়ন্ত্রণ কর্মকতার অনুমতি ব্যতিরেকে কর্মস্থলে অনুপস্থিত আছেন। 



অননুমোদিতভাবে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকার কারণে কর্তৃপক্ষের কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা-১৯৯০ এর ৪১ (১) প্রবিধান অনুসারে কর্তৃপক্ষের দপ্তর আদেশ নং-২২৮৬ / ২০২২ তারিখঃ ২৮/০৯/২০১২ইং দ্বারা কর্তৃপক্ষের চাকুরী হতে তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে। গত ২৯/০৭/২০২২ইং হতে অদ্যাবধি নিয়ন্ত্রণ কর্মকতার অনুমতি ব্যতিরেকে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকার কারণে বিআরডব্লিউটিপি-১ প্রকল্পের গুরুত্বপূর্ণ কাজসহ বিআইডব্লিউটিএ’র স্বাভাবিক কাজ-কর্মের মারাত্মকভাবে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে যা কর্তৃপক্ষের কর্মচারী চাকুরী শৃঙ্খলা বিধির পরিপন্থি। তার উপযুক্ত কার্যকলাপ বাঅনৌপ-কর্তৃপক্ষের কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা-১৯৯০ এর ৩৫(ক), ৩৫(খ) এবং ৩৫(গ) প্রবিধান অনুসারে যথাক্রমে “দায়িত্ব পালনে অবহেলা”, “অসদাচরণ” এবং “পলায়ন” এর দায়ে অভিযুক্ত করে কর্তৃপক্ষের স্মারক নং-১৮, ১১, ০০০০ ০০৮, ৯, ০১০.২২, ৮৩৬/১(৫) তারিখঃ ২৩/১০/২০১২ইং দ্বারা অভিযোগনামা জারীর মাধ্যমে বিভাগীয় মামলা রুজু করা হয়। যেহেতু, তিনি নির্ধারিত তারিখের মধ্যে অভিযোগনামার জবাব প্রদান করেননি, তাই বাঅনৌপ-কর্তৃপক্ষের কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা-১৯৯০ এর ৩৯(৩) অনুযায়ী অভিযোগটি তদরাত করার জন্য কর্তৃপক্ষের দপ্তর আদেশ নং-২৭৩৮/ ২০২২ তারিখঃ ২১/১১/২০১২ইং দ্বারা মো. মামুন হোসেন, অতিরিক্ত পরিচালক, হিসাব বিভাগ, বিআইডব্লিউটিএ, ঢাকা-কে তদন্ত কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়। 

সূত্র জানায়, তদন্ত কর্মকর্তার দাখিলকৃত তদন্ত প্রতিবেদনে তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগটি প্রমানিত হয়েছে: যেহেতু, তদন্ত প্রতিবেদনটি কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান বরাবর উপস্থাপিত হলে তার প্রতি কর্তৃপক্ষের কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা-১৯৯০ এর ৩৬ (১) (আ) (ছ) প্রবিধান মোতাবেক ‘চাকুরী হতে বরখাস্ত’ গুরুদন্ড প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে, যেহেতু, তিনি নিকট অতীতেও আমেরিকায় বসবাসরত পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করার উদ্দেশ্যে গত ১২/০৮/২০১৯ইং হতে ১২/০৮/২০১১ইং তারিখ পর্যন্ত মোট ২ (দুই) বৎসরের অর্জিত ছুটি মঞ্জুরসহ বহিঃ বাংলাদেশ অবস্থান করেন। সেহেতু, মিথিলা পারভীন, নির্বাহী প্রকৌশলী (পুর) (সাময়িক বরখাস্তকৃত), ড্রেজিং বিভাগ, বিআইডব্লিউটিএ, ঢাকা (বিআরডব্লিউটিপি-১ প্রকল্পে কর্মরত) আপনার প্রতি কর্তৃপক্ষের কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা- ১৯৯০ এর ৩৬ (১) (আ) (চ) প্রবিধান মোতাবেক ‘চাকুরী হতে বরখাস্ত’ শুরু দন্ড কেন আরোপ করা হবে না তৎসম্পর্কে কর্তৃপক্ষের কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা-১৯৯০ এর ৩৯ (৬) প্রবিধান মোতাবেক অত্র নোটিশ প্রাপ্তির (৭) সাত কার্যদিবসের মধ্যে চূড়ান্তভাবে কারণ দর্শানোর নির্দেশ প্রদান করা হলো। স্বাক্ষরিত কাজী ওয়াকিল নওয়াজ, পরিচালক (প্রশাসন ও মানব সম্পদ) বিআইডব্লিউটিএ। নথি নং-১৮,৭০৭,০৪৭.০০.০০২৮৫.২০২২/১৪ (৯) তারিখঃ ১৬/০৪/২০১৩ইং। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা প্রতিবেদককে বলেন, অনেকেই তার মত চাকরি ছেড়ে চলে গেছেন। কারণ হচ্ছে কয়েক বছর চাকরি করলে আর কিছু লাগে না। অঢেল টাকার মালিক হয়ে বনে চলে যায়। তখন তাদের বিলাসিতা করার জন্য উন্নত দেশে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার প্রতিযোগিতায় নামে। অনেকে তো চাকরি থাকার পাশাপাশি বিভিন্ন কোম্পানীর সঙ্গে ব্যবসাও করে। টাকা কোথায় রাখবে এটাই হচ্ছে তাদের চিন্তা। আর কেউ কেউ যদি এই রকম উচ্চ শিক্ষা নেওয়ার জন্য প্রতিষ্ঠান থেকে এই রকম সুযোগ পায় তাহলে তো কথাই নেই। এটাই হচ্ছে বাস্তবতা।

এই বিষয়ে বিআইডব্লিউটিএর প্রশাসন ও মানব সম্পদ বিভাগের পরিচালক কাজী ওয়াকিল নওয়াজ ভোরের পাতাকে বলেন, তার এখন আর চাকরি নেই। তিনি আইনি জটিলতায় পরে গেছেন। আমরা তাকে বেশ কয়েকবার চিঠিও দিয়েছি। তিনি (প্রকৌশলী মিথিলা পারভীন) কোন জবাব চিঠির মাধ্যমে দেয়নি।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Vorer-pata-23-12-23.gif
http://www.dailyvorerpata.com/ad/bb.jpg
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Screenshot_1.jpg
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]