শনিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২৩ ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪৩০

শিরোনাম: বিএনপির পরবর্তী পরিকল্পনা দেশে দুর্ভিক্ষ ঘটানো: প্রধানমন্ত্রী    ওসমানী বিমানবন্দরে ৩৪ কেজি সোনাসহ আটক ৪    পতাকাবিহীন গাড়িতে কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী    যোগদানের ২৫ দিনের মাথায় বদলি ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থানার ওসি হাবিল    স্বতন্ত্র প্রার্থীর কাছে ৪৮ নৌকার মাঝি ধরাশায়ী!    নিষেধাজ্ঞায় পড়লে পণ্য না নেওয়ার শর্ত প্রসঙ্গে যা বলল বিজিএমইএ    রাষ্ট্রপতির কাছে ৪ দেশের রাষ্ট্রদূতের পরিচয়পত্র পেশ   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ দুই মেয়রের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল
ভোরের পাতা ডেস্ক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, ১০:০৯ এএম | অনলাইন সংস্করণ

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতায় ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের দুই মেয়রের পদত্যাগ করা উচিত বলে মনে করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

গতকাল বুধবার দুপুরে রাজধানীর পান্থপথ এলাকায় শমরিতা হাসপাতাল এবং হেলথ অ্যান্ড হোপ হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন করে মির্জা ফখরুল এ কথা বলেন।

ঢাকা উত্তর সিটিতে বিএনপি মনোনীত সাবেক মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণ সিটির সাবেক মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন রক্ত দিয়ে এই কার্যক্রম শুরু করেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ডেঙ্গু কেবল ঢাকা নয়, সারা দেশে মহামারির মতো ছড়িয়ে পড়েছে। ইতিমধ্যে ছয় শতাধিক মানুষের প্রাণ গেছে। অনেকে প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছেন। শিশুরা অসহায় অবস্থার মধ্যে পড়েছে। তারা চিকিৎসা ঠিকমতো পাচ্ছে না। তারা মারা যাচ্ছে। দুর্ভাগ্য কোনো ব্যাধিই নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারছে না সরকার।

কলকাতার মতো জনবহুল শহর ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, দুর্ভাগ্য, ঢাকায় যে দুজন মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন, তাঁরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত নন। তাই জনগণের কাছে তাঁদের দায়বদ্ধতা নেই। তাঁরা কীভাবে নতুন নতুন বাজার তৈরি করবেন, মাঠ শেষ করে দিয়ে শপিং মল তৈরি করবেন, রাস্তার পুরোনো গাছ কেটে নতুন করে কাজ করবেন—এসব দিকে নজর তাঁদের বেশি। জনগণের ন্যূনতম সেবা দেওয়ার যে দায়িত্ব, তা তাঁরা পালন করছেন না।

ডেঙ্গু পরিস্থিতি ভয়াবহ থাকাকালে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে অবকাশযাপন এবং একই সময়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বিদেশ সফরের কঠোর সমালোচনা করেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, মশার ওষুধ আমদানিতেও তারা দুর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে। সরকারের মূল লক্ষ্য দুর্নীতি। দুর্নীতি করেই দেশকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে তারা।

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে এখন মানুষের জন্য একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নামার জায়গার যানজট দুই ঘণ্টায়ও পার হওয়া সম্ভব হচ্ছে না।



মির্জা ফখরুলের অভিযোগ, সরকার প্রতিটি খাতে দুর্নীতি যে অবস্থায় গেছে, এতে অর্থনীতি চরমভাবে ধ্বংসের পথে চলে গেছে। বড় বড় অর্থনীতিবিদেরাও একই কথা বলছেন।

ড. ইউনূসের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ড. ইউনূসের বিষয়টাকে ব্যক্তিগত হিংসার কারণে...। আরেকটা বিষয় এই মুহূর্তে এটাকে এত দ্রুত বিচারে নিয়ে আসা; আমাদের প্রধান যে ইস্যু, সরকার পরিবর্তন করতে হবে, তাদের পদত্যাগ করতে হবে—সেটাকে ডাইভারশন করার জন্য এ ধরনের ইস্যু নিয়ে আসা হচ্ছে। এটা এখন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মিডিয়াতেও প্রাধান্য পাচ্ছে।

ড. ইউনূসের বিষয়টি বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা নয় উল্লখে করে অধিকারকর্মীসহ অন্যদের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর অবস্থান নিয়েও কথা বলেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, তাঁরা যেন সত্য কথা না বলতে পারেন, মানুষের অধিকার নিয়ে কথা বলতে না পারেন। তাই তাঁদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। তাঁদের সাজা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ড. ইউনূসের পক্ষে অবস্থান নেওয়ার জন্য ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত করা হচ্ছে বা তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এ রকম একটা রাষ্ট্র, যে রাষ্ট্রে সত্য কথা বলার উপায় নেই, মানুষের নিরাপত্তার কোনো ব্যবস্থা নেয় না, যে রাষ্ট্রে ন্যায়বিচার পাওয়ার অবস্থা নেই—সেই রাষ্ট্র অবশ্যই ভেঙে পড়ছে, ভঙ্গুর হয়ে পড়ছে। অবিলম্বেই আমরা যদি এই সরকারের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে না পারি, দেশকে রক্ষা করা কঠিন হবে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/bb.jpg
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Screenshot_1.jpg
http://dailyvorerpata.com/ad/apon.jpg
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]