শনিবার ২ মার্চ ২০২৪ ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০

শিরোনাম: অভিশ্রুতি নাকি বৃষ্টি ? পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার পর মিলবে লাশ     গাউসুল আজম মার্কেটে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে    জাতীয় সংসদে অফশোর ব্যাংকিং বিল উত্থাপন    আমরা উন্নত চিকিৎসার জন্য একটা সুন্দর স্বাস্থ্য ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে চাচ্ছি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী    ক্রিকেটেই মনোযোগ দিতে চান গৌতম গম্ভীর     ডিসি সম্মেলনের মূল ইস্যুই হচ্ছে নির্বাচনী ইশতেহারের বাস্তবায়ন    পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছে শ্রীলঙ্কা দল   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
শিবির নেতা থেকে বঙ্গবন্ধু পরিষদের মহাসচিব প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের প্রকল্প পরিচালক আজিজুল
অবৈধ সম্পদের খোঁজে দুদক
আক্তারুজ্জামান রকি
প্রকাশ: শনিবার, ৫ আগস্ট, ২০২৩, ৮:০৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের জনস্বাস্থ্য সুরক্ষা ভেটেরিনারি পাবলিক হেলথ সার্ভিস জোরদারকরণ প্রকল্পের পরিচালক ডাঃ আজিজুল ইসলামের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ ও দুর্নীতির মাধ্যমে শত কোটি অর্জনের অভিযোগের তদন্ত শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

প্রাপ্ত অভিযোগ মতে, যশোর সদরের হৈবতপুর ইউনিয়নের চিরেরহাট গ্রামের মৃত মোহর আলী ছেলে আজিজুল ইসলাম। তার বাবা মোহর আলী রাজাকার ছিলেন বলে জনশ্রুতি রয়েছে। তিনি নিজেও ছাত্র শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত থেকে হয়েছেন বঙ্গবন্ধু ভেটেরিনারী পরিষদের মহাসচিব।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রত্যায়ন পত্রে দেখা যায়, মোঃ আজিজুল ইসলাম ১৯৮৯-৯০ সালে ছাত্র জীবনেও বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (দায়িত্ব পালনকালীন সময়ে) ছাত্র শিবিরের কর্মী ছিল।

কিন্তু বর্তমানে ডাঃ মোঃ আজিজুল ইসলাম নিজেকে আওয়ামী পরিবারের এবং একজন অন্ধ আওয়ামীলীগার হিসাবে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম ও সুযোগ সুবিধা হাতিয়ে নিচ্ছেন । তিনি কথায় কথায় তার প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার জন্য জামাত-শিবির ও বিএনপি পন্থী বানিয়ে ফেলেন এবং মিথ্যা অপ-প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। যশোরের সদর উপজেলার চিরির হাট গ্রামে সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হৈবতপুর গ্রামের চিরির হাট গ্রামটি রাজাকারের গ্রাম হিসাবে ব্যাপক পরিচিত এবং ডাঃ আজিজের পরিবারের সকলেই রাজাকারের পরিবারের সদস্য হিসাবে পরিচিত। এমনকি মোহর আলী বললে কেউ না চিনলেও মোহর আলী রাজাকারের বাড়ি বললে সকলেই চেনেন।



অনুসন্ধানে জানা যায়, জাতীয় পার্টির শাসনামলে সাবেক মন্ত্রী মরহুম খালেদুর রহমান টিটুর এপিএস হিসাবে আজিজের এক ভাই দায়িত্ব পালনরত ছিল এবং সেখানে মুখ্য ভুমিকা পালন করতেন রাজাকার পুত্র আজিজুল ইসলাম। এছাড়াও বিএনপির শাসনামলে সাবেক মন্ত্রী মরহুম তরিকুল ইসলামের মিন্টু রোডের বাড়িতে অধিকাংশ সময় তিনি অতিবাহিত করতেন এবং মন্ত্রীর লোকজনের সাথে মিলে মিশে বিভিন্ন দালালী করতেন। প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের শতভাগ কর্মকতা-কর্মচারীর প্রশ্ন একজন রাজাকারের ছেলে কিভাবে বঙ্গবন্ধুর নামে প্রতিষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু ভেটেরিনারী পরিষদের নেতৃত্ব দেয়?

আরোও জানা যায়, রাজাকার পরিবারের সন্তান হওয়ায় ৩ বার উপ-সচিব পদে পদোন্নতির তালিকায় নাম থাকার পরেও এসএসবিতে তার বিষয়টি বিবেচিত হয়নি। রাজাকার পুত্র ডাঃ আজিজুল ইসলামের মিথ্যাচার আর দূর্নীতি কতটা ভয়াবহ তা বঙ্গবন্ধু ভেটেরিনারি পরিষদের সভাপতি কর্তৃক জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবরে লিখিত অভিযোগই প্রমাণিত। ১৯তম বিসিএস এর মাধ্যমে প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরে যোগদানের পর তিনি কোটি কোটি টাকা হাসিলের ফন্দি আঁটে। 

যেই সরকার ক্ষমতায় আসে সেই সরকারের প্রভাবশালী কোনো মন্ত্রীর নাম ব্যবহার করে নিজেকে সরকার সমর্থিত কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিতি পাবার চেষ্টায় লিপ্ত থেকে প্রকল্পের অর্থ লুটপাট করে এখন শত কোটি টাকার মালিক। আর জনস্বাস্থ্য সুরক্ষায় পাবলিক হেলথ সার্ভিস জোরদারকরণ প্রকল্পে দায়িত্ব নিয়ে যে অনিয়ম দূর্নীতি করেছেন সে বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন হলেও অদ্যাবধি কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। ফলে এখনো তিনি ধরাছোঁয়ার বাইরে। আলোচিত ও বিতর্কিত রাজাকার পরিবারের সন্তান হওয়ায় তিনবার উপসচিব পদে আবেদন করে প্রভাবশালী এক মন্ত্রীর সুপারিশ দিয়েও পদোন্নতি প্রাপ্ত হতে পারেনি। তারপরও এই উচ্চাভিলাষী কর্মকর্তা সংস্থার পরিচালক ও মহাপরিচালক হওয়ার স্বপ্নে বিভিন্ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ রটিয়ে যাচ্ছেন। 

এমনকি, মন্ত্রী, সচিব ও উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার সাথে ছবি তুলে সোস্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞাপন আকারে প্রচার করে রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলে সক্রিয় রয়েছেন। বর্তমানে মাননীয় কৃষি মন্ত্রীর নাম ভাঙিয়ে সকল সুযোগ-সুবিধা নিচ্ছেন এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানের নামে চাঁদাবাজী করার অভিযোগ রয়েছে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Vorer-pata-23-12-23.gif
http://www.dailyvorerpata.com/ad/bb.jpg
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Screenshot_1.jpg
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]