মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ১৭ মাঘ ১৪২৯

শিরোনাম: বাংলাদেশকে ৪৭০ কোটি ডলার ঋণ অনুমোদন দিল আইএমএফ    দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ১২তম    পাকিস্তানে মসজিদে আত্মঘাতী হামলা: নিহত বেড়ে ৮৩    পাইকারি ও খুচরায় বিদ্যুতের দাম ফের বাড়লো    আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই এত উন্নয়ন: প্রধানমন্ত্রী    পাকিস্তানে মসজিদে বিস্ফোরণ, বহু হতাহত    নোয়াখালীতে ৩২৪ সরকারি ফ্ল্যাটের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
ছুটির দিনে ভূমি অফিসের কর্মকর্তা নায়েবের দালাল!
গাজী ফারহাদ
প্রকাশ: শুক্রবার, ৭ অক্টোবর, ২০২২, ৫:৪৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ছুটির দিনে ভূমি অফিসের কর্মকর্তা নায়েবের দালাল। তিনি অফিস খুলে একাই অফিস চালাচ্ছেন। ঘটনাটি ঘটেছে সাতক্ষীরার তালা সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে। ভূমি অফিসের নায়েব আনিছুর রহমানের কথিত শ্যালক দালাল আলতাফ সরকারি ছুটির দিনে অফিসে অবস্থান এমন সংবাদে গণমাধ্যমকর্মী সেখানে গিয়ে তার সত্যতা পায় । 

শুক্রবার (০৭ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে ধরা পড়ে এ দৃশ্য। এদিকে অভিযোগ রয়েছে তিনি ছুটির দিনে ভূমি অফিসের যাবতীয় অবৈধ কাজ সম্পাদন করে থাকেন।

ইউনিয়ন ভূমি অফিসে গিয়ে দেখা যায়, ভূমি অফিসের ভিতরে কাজ করছেন দালাল আলতাফ হোসেন। গণমাধ্যমকর্মী দেখেই অফিসের ভেতর থেকে তালা লাগিয়ে দেন তিনি। বাইরে থেকে বার বার পরিচয় জানতে চাইলেও চুপ থাকেন আলতাফ।

ছুটির দিনে সরকারি অফিসে দালালের কার্যক্রমের বিষয়টি তাৎক্ষণিক অবহিত করা হয় তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস ও থানা অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফখরুল আলম খানকে।  ইউএনও তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলেও বাস্তবে কোন ব্যবস্থা নেননি তিনি। 

এদিকে তালা থানার ওসি বলেন, যেহেতু অফিসটি ইউএনও'র আন্ডারে সেকারণে তিনি ব্যবস্থা নিবেন। এখানে আমাদের কিছু করণীয় নেই।

গণমাধ্যমকর্মীদের উপস্থিতি দেখে তালাবদ্ধ অফিসের ভিতরে থাকা দালাল আলতাফ হোসেন মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করেন অফিসের নায়েব আনিসুর রহমানসহ বাকি দালালদের সঙ্গে। ১৫-২০ মিনিটের মধ্যে অফিসের অপর দালাল হাবিবুর রহমান, গোলজার সরদারকে সঙ্গে নিয়ে অফিস চত্বরে আসেন ইউনিয়ন সহকারি ভূমি কর্মকর্তা আনিছুর রহমান।

সরকারি ছুটির দিনে দালাল দিয়ে অফিসের কার্যক্রম করানোর বিষয়ে কোন সদুত্তর দিতে পারেননি ভূমি কর্মকর্তা আনিছুর রহমান।

তিনি বলেন, আলতাফ আমার আত্নীয়। সরকারি অফিসের চাবি তার কাছে কেন? এই প্রশ্নের কোন উত্তর নেই তার। তড়িঘড়ি করে অফিস থেকে আলতাফকে বের করে স্থান ত্যাগ করেন এই ভূমি কর্মকর্তা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ইউনিয়নের এই ভূমি অফিসটিতে কেউ গেলে ঘুষ ছাড়া কোন কাজ হয় না। নামজারি, খাজনা দাখিলার জন্য ১০ হাজার থেকে এক লাখ ৩০ হাজার টাকা ঘুষ নেন কর্মকর্তা আনিছুর রহমান। ঘুষ উত্তোলনে রেখেছেন আব্দুল গফুর, হাবিবুর রহমান, আলতাফ হোসেন, অফিসের পিওন শরিফুল ইসলাম। ভুক্তভোগীরা ঘুষ গ্রহণ ও সাধারণ মানুষদের হয়রানির বিষয়টি তালা ইউএনও প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস, এসিল্যাণ্ড রুহুল কুদ্দুসকে জানালেও কোন ব্যবস্থা নেননি তারা।



এদিকে, এক লাখ ৩০ হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে খাজনা দাখিলার জালিয়াতি কাগজ তৈরী করে তালা ইসলামকাটি সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে জমি রেজিষ্ট্রী করার চেষ্টা করা হয় গত ২৮ সেপ্টেম্বর। ঘটনাটি ধরা পড়ায় দলিল লেখককে বরখাস্ত করেছেন সাব রেজিষ্ট্রার মো.মইনুল হক। 

তালা ইসলামকাটি সাব রেজিষ্ট্রার মো.মইনুল হক জানান, জালিয়াতি সন্দেহ হওয়ায় জমির কাগজপত্র জব্দ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে এসিল্যাণ্ডের নিকট তঞ্চকতার বিষয়টি নিশ্চিত হতে লিখিতভাবে প্রতিবেদন চাওয়া হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

ছুটির দিনে অফিসে দালালের উপস্থিতির বিষয়ে তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস জানান, রোববার থেকে বৃহস্পতিবার সরকারি অফিস। এর বাইরে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ব্যক্তি ছাড়া অফিসে কেউ থাকার কথা নয়। দালাল অফিসের কাজ করছে এটা জেনেছি। এটার বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির বলেন, গুরুত্বের সঙ্গে অনিয়ম দুর্নীতির বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা হবে। সত্যতা পেলে নায়েবের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/dd.jpg
http://dailyvorerpata.com/ad/apon.jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]