বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ ৪ আষাঢ় ১৪৩১

শিরোনাম: কর্মোপযোগী শিক্ষার মাধ্যমে কাঙ্ক্ষিত উন্নতি সম্ভব    নববর্ষের আনন্দ যেন বিষাদের কারণ না হয়: রাষ্ট্রপতি    নির্বাচনে ২১ সদস্যের মনিটরিং সেল গঠন ইসির    দেশজুড়ে যে তিনদিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা!    মির্জা ফখরুলের জামিন শুনানি ৯ জানুয়ারি    প্রাথমিকের ছুটি বাড়ল ১৬ দিন (তালিকা)    নির্বাচনের বিরুদ্ধে বিএনপির প্রচারণা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
মাদক ব্যবসায় জড়িত প্রভাবশালীরাও ছাড় পাবে না: র‌্যাব ডিজি
ভোরের পাতা ডেস্ক
প্রকাশ: রোববার, ৪ জুন, ২০২৩, ৩:৫৯ পিএম আপডেট: ০৪.০৬.২০২৩ ১০:৪২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) মহাপরিচালক (ডিজি) এম. খুরশীদ হোসেন বলেছেন, মাদকের সঙ্গে জড়িতদের ছাড় দেয়া হবে না।  সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে।

তিনি বলেন, যিনিই মাদক কেনাবেচার সঙ্গে জাড়ত থাকবেন, তিনি জনপ্রতিনিধি কিংবা যতই প্রভাবশালী হোক, কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। তাদেরকেও অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

রোববার (৪ জুন) বেলা ১১টায় রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে আহত পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) উত্তম কুমার রায়কে দেখতে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। উত্তম কুমার মেহেরপুর জেলার গাংনী থানা এলাকায় মাদক বিক্রেতাদের হামলায় আহত হন।

এর আগে তিনি আহত র‌্যাব সদস্য এসআই উত্তম রায়কে শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটের ১৪ তলার কেবিনে দেখতে যান। সেখানে র‌্যাব ডিজি তার হতে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ফলমূল তুলে দেন। পাশাপাশি তার চিকিৎসার  ব্যাপারেও খোঁজ-খবর নেন।

মাদকের বিরুদ্ধে সবাইকে একসঙ্গে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে র‌্যাব ডিজি বলেন, ‘এই মাদকের ছোবল থেকে আমাদের সন্তানদের বাঁচাতে না পারলে আগামীতে চাকরি দেয়ার মতো কোনও লোক খুঁজে পাওয়া যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘এরকম মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার অভিযানে গিয়ে আমাদের ৩৩ জন সহকর্মী জীবন দিয়েছেন ও এক হাজারের বেশি সহকর্মীর অঙ্গহানি হয়।’



সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে র‌্যাব ডিজি বলেন, গত ৩০ মে মেহেরপুরের গাংনী থানা এলাকায় র‌্যাব-১২ এর মাদকবিরোধী অভিযানকালে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে র‌্যাব সদস্য উত্তম কুমার রায় আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মেহেরপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। বার্ন ইনস্টিটিউটের চিকিৎসকদের আন্তরিক চিকিৎসায় বর্তমানে তিনি অনেকটা সুস্থ।

আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

র‌্যাব ডিজি বলেন, ইতোমধ্যে এই ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখনো অভিযান চলছে। জঙ্গি ও মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে। মাদকের বিরুদ্ধে সবাইকে সচেতন হতে হবে। এর বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. রায়হানা আউয়াল, ইনস্টিটিউটের জাতীয় সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন, র‌্যাব-৩ এর কমান্ডিং অফিসার (অধিনায়ক) লে. কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন, র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার প্রধান কমান্ডার খন্দকার আল মঈনসহ র‌্যাবের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। খবর বাসস।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Vorer-pata-23-12-23.gif
http://www.dailyvorerpata.com/ad/bb.jpg
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Screenshot_1.jpg
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]