শুক্রবার ২৭ জানুয়ারি ২০২৩ ১৩ মাঘ ১৪২৯

শিরোনাম: সংবিধান অনুযায়ীই আগামী নির্বাচন হবে: আইনমন্ত্রী    ডিসিদের ক্ষমতার অপপ্রয়োগ যেন না হয়: রাষ্ট্রপতি    ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণের প্রধান হাতিয়ার ডিজিটাল সংযোগ: প্রধানমন্ত্রী    প্রবাসীদের ভোটাধিকার প্রয়োগে বিশেষ উদ্যোগ নিতে হবে    ইজতেমা ময়দান প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করল সাদ অনুসারীরা    রাষ্ট্রপতি নির্বাচন ১৯ ফেব্রুয়ারি    ইউএনওর হাতে সাব-রেজিস্ট্রার লাঞ্ছিত: ব্যবস্থা নিতে আইন মন্ত্রণালয়ের চিঠি   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
৭৫’র কুশীলবরাই ২১ আগস্ট হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে: ড. শ্রী বীরেন শিকদার
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ২১ আগস্ট, ২০২২, ১১:৪৫ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশের রাজনীতিতে পরস্পরের রাজনৈতিক দলের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ নেই। রাষ্ট্রীয় সংকটে রাষ্ট্রের সকল রাজনৈতিক দল একত্রে কাজ করবে এটাই বাঞ্ছনীয়।  ২০০৪ সালের ২১শে আগস্ট রাজনৈতিক প্রতিহিংসা বা প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলকে হিংসার মাধ্যমে সরাসরি আক্রমণের মাধ্যমে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার মাধ্যমে একটা সন্ত্রাসী কার্যক্রম করার প্রচেষ্টা চালানো হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। এই ধরণের গ্রেনেড দেশে আনার জন্য যে অবৈধ চলাচল ছিল সেটার পিছনে তখন রাষ্ট্রক্ষমতায় যারা ছিল তারা বড় ধরণের একটি পৃষ্ঠপোষকতা দিয়েছিল। 

দৈনিক ভোরের পাতার নিয়মিত আয়োজন ভোরের পাতা সংলাপের ৮০৩তম পর্বে এসব কথা বলেন আলোচকরা। ভোরের পাতা সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসানের নির্দেশনা ও পরিকল্পনায় অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী, সংসদ সদস্য, ড. শ্রী বীরেন শিকদার,  নিরাপত্তা বিশ্লেষক ও সামরিক গবেষক মে. জে. (অব.) আব্দুর রশিদ, -ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. বদরুজ্জামান ভূঁইয়া কাঞ্চন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ভোরের পাতার বিশেষ প্রতিনিধি উৎপল দাস।

ড. শ্রী বীরেন শিকদার বলেন, আজকে ভোরের পাতা লাইভ সংলাপে আমাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য ভোরের পাতা কর্তৃপক্ষসহ সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আজকের এই দিনে আমি আমার বক্তব্যের শুরুতে গভীর শ্রদ্ধা জানাই সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, যে মহামানবের অবদানে আজ আমরা লাল সবুজের পতাকা নিয়ে পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছি। গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি ১৫ আগস্টের সেই কালরাতে তাঁর পরিবারের যেসব সদস্যরা শাহাদাতবরণ করেছিলেন। গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি জাতীয় চার নেতাকে, গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি ৩০ লাখ শহীদ ও ২ লাখ ইজ্জতহারা মা-বোনদের। আজকে ভোরের পাতা যে আলোচ্য বিষয় নির্ধারণ করা হয়েছে ২১শে আগস্ট: বাংলাদেশকে নেতৃত্বশূন্য করার অপচেষ্টা। নিঃসন্দেহে এটা সত্য ঘটনা যে, বাংলাদেশের রাজনীতিতে পরস্পরের রাজনৈতিক দলের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ নেই। রাষ্ট্রীয় সংকটে রাষ্ট্রের সকল রাজনৈতিক দল একত্রে কাজ করবে এটাই বাঞ্ছনীয়। কিন্তু বাংলাদেশে কি সে পরিবেশ বা অবস্থা কি রক্ষা করা হয়েছে। ২০০৪ সালের ২১শে আগস্ট রাজনৈতিক প্রতিহিংসা বা প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলকে হিংসার মাধ্যমে সরাসরি আক্রমণের মাধ্যমে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার মাধ্যমে একটা সন্ত্রাসী কার্যক্রম করার প্রচেষ্টা চালানো হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। সেই দিন আওয়ামী লীগের ২৪ জন নেতাকর্মী নিহত এবং অসংখ্য নেতাকর্মী আহত হয়। আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূন্য করতে, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার বন্ধ করতে, মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি আর কোনো দিন ক্ষমতায় না আসতে পারে এবং তার জন্য এই দেশ আইএসআই নিয়ন্ত্রিত পাকিস্তানি ভাবধারায় তাঁবেদারি রাষ্ট্রে পরিণত হয়, এই কারণে চালানো হয়। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মাস্টারমাইন্ড তারেক জিয়া।  তারেক রহমান ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলাকারীদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করেছেন। সরকার ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় তার বিরোধীদলকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা না করে সেই দলের নেতৃত্বকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেওয়া বা সেই দলকে নিশ্চিহ্ন করে ফেলার মতো প্রচেষ্টা পৃথিবীর কোন দেশে কোন রাজনৈতিক দল করেনি।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/dd.jpg
http://dailyvorerpata.com/ad/apon.jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]