বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

শিরোনাম: বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারি: ৩ মাসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ    জিএম কাদেরের দায়িত্ব পালনে বাধা নেই: হাইকোর্ট    মুজিব কোট পরলেই মুজিব সৈনিক হওয়া যায় না: কাদের    চীন-যুক্তরাজ্য সম্পর্কের ‘স্বর্ণযুগ’ যুগ শেষ: ঋষি সুনাক    রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৩৬    সুইজারল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে ব্রাজিল    অপার সম্ভাবনার বাংলাদেশ গড়েছেন শেখ হাসিনা   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
সাতক্ষীরায় পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই চক্রের মাস্টার মাইন্ড আটক
গাজী ফারহাদ
প্রকাশ: সোমবার, ২৫ জুলাই, ২০২২, ৪:৩২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সাতক্ষীরায় পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই চক্রের মূল হোতাসহ ছয় ডাকাতকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (২৫ জুলাই) ভোর রাত ৩টার দিকে চক্রের মূল হোতাকে শহরের মিলবাজার এলাকা থেকে আটক করা হয়।

এ ঘটনায় দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের কনফারেন্স হলে সংবাদ সম্মেলন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান।

ছিনতাই ও ডাকাতি চক্রের আটক মাস্টার মাইন্ড শারীফ হাসানুল বান্না অরফে সুমন বাবু (৩৪) সাতক্ষীরা সদরের নারানজোল পূর্বাপাড়া গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে।

এর আগে আটক করা হয় আরও পাঁচ ডাকাতকে। তারা হলেন, সাতক্ষীরার গোবিন্দকাটি গ্রামের জাহিদ হোসেন (২৭), শহরের উত্তরকাটিয়া এলাকার রাশেদুল করিকর (৩২), কাশেমপুর গ্রামের সাব্বির হোসেন (২২), পাথরঘাটা গ্রামের শেখ হাফিজুর রহমান (৩৩) ও গোবিন্দকাটি গ্রামের ইকরামুল মোড়ল (২৪)।



গত ২৩ জুলাই বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মোটর সাইকেলযোগে কলারোয়া থেকে সাতক্ষীরায় ফিরছিলেন গরু ব্যবসায়ী শেখ আনারুল ইসলাম। সঙ্গে ছিলেন ছেলে রিফাত হোসেন ও মোটর সাইকেল চালক রুহুল কুদ্দুস। পথিমধ্যে ওয়ারিয়া এলাকায় গতিরোধ করে মোটরসাইকেলে থাকা গরু ব্যবসায়ীসহ তিনজনকে পুলিশ পরিচয়ে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নেয়। এরপর দুই লাখ ৭০ হাজার টাকা ছিনতাই করা হয়।

গরু ব্যবসায়ী আনারুল ইসলাম জানান, পুলিশ পরিচয়ে মাইক্রোবাসে তুলে নেওয়ার পর বলে আমাদের কাছে মাদকদ্রব্য রয়েছে। মাইক্রোবাসে ছয়জন ছিলেন। জানাতে চাই কাছে কত টাকা রয়েছে। কাছে থাকা তিনটি গরু বিক্রির দুই লাখ ৭০ হাজার টাকা নিয়ে নেয়। এরপর ঝাউডাঙ্গা বাজারের পার হয়ে ফাঁকা রাস্তায় আমাদের
নামিয়ে দিয়ে তারা কলারোয়ার দিকে চলে যায়। পরে ঘটনাটি সদর থানায় ঘটনাটি জানালে পুলিশ তৎপর হয়ে অভিযান শুরু করে।

সংবাদ সম্মেলনে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এই চক্রটি জেলার বিভিন্নস্থানে পুলিশ পরিচয় দিয়ে ছিনতাই ও ডাকাতি করতো। মানুষকে ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকা পয়সা ও মূল্যবান সামগ্রী কেড়ে নিতো। চক্রের পাঁচ সদস্যকে গত ২৩ জুলাই আটক করে আদালতে পাঠানো হয়। অবশেষে চক্রটির মূল হোতা শরীফ হাসানুল বান্না অরফে সুমন বাবুকে আমরা গ্রেফতার করতে সক্ষম
হয়েছি।

তিনি বলেন, আটকের সময় তার কাছ থেকে হ্যান্ডকাফ, ভূয়া পুলিশের পোশাক, একটি পিস্তল, দুই রাউন্ডগুলি, দুটি মোটরসাইকেল, নগদ ৩৩ হাজার টাকা, পুলিশে আইডি কার্ড, মোবাইল, সিমকার্ডসহ অন্যান্য সামগ্রী উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানায় অস্ত্র আইনে আসামীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/dd.jpg
http://dailyvorerpata.com/ad/apon.jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]