রাতে পাকিস্তান দূতাবাসে ষড়যন্ত্রের পার্টি!

  • ১৪-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

ভোরের পাতা ডেস্ক

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশে গণহত্যা চালানো পাকিস্তানের আজ স্বাধীনতা দিবস। ১৯৪৭ সালের ১৪ আগস্ট ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে পাকিস্তান। নিজ দেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশে অবস্থিত পাকিস্তান দূতাবাস আজ পার্টির আয়োজন করেছে। প্রতি বছরই এমন পার্টির আয়োজন করে তারা। কিন্তু বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকর্মী কখনো এসব পার্টিতে যান না। গত পাঁচ বছর ধরেই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকর্মী পাকিস্তান দূতাবাসের পার্টিতে যাননি। এই প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী বলেন, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের আগের দিন পাকিস্তান দূতাবাসের স্বাধীনতা দিবসের পার্টিতে অংশগ্রহণ করা আওয়ামী লীগ আপত্তিজনক মনে করে। এই পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তান দূতাবাসকে ১৪ আগস্টের প্রোগ্রাম করতে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয় না কেন এমন প্রশ্ন উঠে আসে। এই প্রশ্নের উত্তরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক কোনো দূতাবাসের অভ্যন্তরীন অনুষ্ঠান বা কর্মসূচিতে হস্তক্ষেপ করার ইচ্ছা বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক সরকারের নেই।

পাকিস্তান দূতাবাসও নিজেদের কোনো অনুষ্ঠানে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকর্মীকে দাওয়াত দেয় না বলে জানা গেছে। কিন্তু সেখানে সসম্মানে দাওয়াত পান বিএনপি-জামাতের নেতাকর্মীরা। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, পাকিস্তান দূতাবাসের এই পার্টিগুলোতে বাংলাদেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয় পাক হানাদারদের উত্তরসূরি ও বাংলাদেশি পরিচয়ের দেশদ্রোহীরা।

Ads
Ads