জমি সংক্রান্ত বিরোধে ধান কাটা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

  • ৬-Dec-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: তালতলী প্রতিনিধি ::

বরগুনার তালতলী উপজেলার সদওগারপাড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মিথ্যা ধান কাটা মামলা দিয়ে নিরীহ লোকদের হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,সওদাগরপাড়া গ্রামের হযরত আলীর ছেলে জাকির এর সাথে পার্শ্ববর্তী হরিনখোলা গ্রামের মোঃ জাহাঙ্গীরের দীর্ঘ দিন থেকে জমিজমা নিয়ে আদালতে মামলা চলে আসছিল। জাকির হোসেন ও তার লোকজন নিয়ে বিরোধীয় জমির ধান ৩ ডিসেম্বর সোমবার কেটে নিয়েছে বলে জাহাঙ্গীরের ভাই মোঃ আল আমীনকে বাদী সাজিয়ে ৪ ডিসেম্বর আমতলী উপজেলা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যজিষ্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। জাকির ও তার বাবা হযরত আলীসহ তার আত্নীয়-স্বজন মোট ৯ জনকে আসামি করা হয়। আসামিদের অধিকাংশই দরিদ্র। এলাকার চারজন ইউপি চেয়ারম্যান বসে এই জমিজমা নিয়ে দু গুরুপের মধ্যে মিমাংশার জন্য চেষ্টা করলে এক পক্ষ জাহাঙ্গীর তার কোনটাই মেনে নেয়নি বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন।

জাকির জানান, জাহাঙ্গীর তার ভাইকে দিয়ে আমাদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়েছে। আমি আমার জমির ধান কেটেছি সেই ধানকাটার মামলা দিয়েছে এবং যে দাগ নং মামলায় উল্লেখ করেছে সেই দাগের ধান আমাদের। তিনি আরও বলেন বিভিন্ন সময় আমাদের পরিবারের নামে এই মামলাসহ ৭টি মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছেন। সেই মামলা মিথ্যা থাকার কারনে আমি ৫টি মামলা থেকে অব্যহতি পেয়েছি।

মামলার বাদীর ভাই জাহাঙ্গীর অভিযোগ অস্বীকার করে জানান ,আমরা বাড়িতে না থাকার কারনে জাকির তার লোকজন নিয়া বিরোধীয় জমির ধান কেটে নিয়ে গেছে। তাই আমার ভাই বাদি হয়ে আদালতে মামলা দিয়েছি।

 

/কে 

Ads
Ads