নির্ভয়ে মোকাবিলা করতে হবে করোনাভাইরাসকে

  • ২৭-জানুয়ারী-২০২০ ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ
Ads

 

:: ড. কাজী এরতেজা হাসান ::

আচমকাই চীনে নতুন করোনাভাইরাসটি ধরা পড়ে। ক্রমশ তা বাড়তে থাকে। এই রোগটি চীনের গ-ি  পেরিয়ে বিশে^র বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশও এই রোগ ছড়িয়ে পড়ার আতঙ্কে রয়েছে। এখনও অবশ্য রোগটি বাংলাদেশে ধরা পড়েনি। কিন্তু তার আগেই রোগটি যাতে বাংলাদেশে ঢুকতে না পারে এবং বিস্তার ঘটাতে না পারে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়াটা জরুরি। 

কয়েকদিন ধরেই চীনদেশে করোনাভাইরাস রোগটি নিয়ে সেখানকার মানুষের মধ্যে ভয়-আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। আতঙ্ক দেখা দিয়েছে চীনে বসবাসরত বাংলাদেশিদের মধ্যে। চীনে চার হাজারের বেশি বাংলাদেশি বসবাস করছেন। উহান করোনাভাইরাসের যেভাবে বিস্তার ঘটছে তাতে আতঙ্কিত হওয়ার কথা। গণমাধ্যমের খবরে জানা যায় রোগটি চীন ছাড়াও আরও ১৩ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। রোগটিতে ১৩ দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪১ দাঁড়িয়েছে। বহু মানুষ রোগে আক্রান্ত।

রহস্যময় উহান করোনাভাইরাস গোটা বিশে^র জন্য ভয়-আতঙ্ক নিয়ে এসেছে। রোগটি থেকে কিভাবে পরিত্রাণ পাওয়া যায় তা নিয়ে গবেষণা চলছে। প্রতিরোধের উপায়ও বলা হচ্ছে। যতদ্রুত এ রোগকে প্রতিরোধ করা যায়, মানুষকে এ রোগের হাত থেকে দ্রুতগতিতে বাঁচানোর উপায় উদ্ভাবন করা যায়, ততোই মঙ্গলজনক।
রহস্যময় উহান করোনাভাইরাস এক জায়গায় বসে নেই। চীনের গ-ি অতিক্রম করে অন্যদেশে ঢুকে পড়েছে। রোগটিতে আক্রান্ত হয়েছেন অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স, থাইল্যান্ড, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, হংকং ও আমেরিকার নাগরিক। ফলে বিশ^ময় রোগটি নিয়ে ভয়ঙ্কর ভীতির সৃষ্টি করেছে জনমনে। তবে আমরা মনে করে ভয়কে দূরে রেখে রোগটি যাতে বাংলাদেশের মানুষকে আক্রমণ করতে না পারে সেটাই দেশের দায়িত্বশীলদের মাথায় রাখতে হবে। 

আশার কথা হলো, ইতোমধ্যে বাংলাদেশ সতর্কতা জারি করেছে। গতকাল রোববার করোনাভাইরাস যাতে বাংলাদেশে সংক্রমিত হতে না পারে সে লক্ষ্যে দেশের ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং সব পোর্টে সতর্কতা জারি করেছে সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগ। গণমাধ্যম জানিয়েছে, এর মধ্যে তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসব দেশ থেকে আসা যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে। এ ছাড়াও দেশের বাইরে থেকে আসা প্রত্যেক রোগী থার্মাল ক্যামেরা স্ক্যানার ছাড়া প্রবেশ করতে পারছেন না। এ স্ক্যানারে যাত্রীর শরীরের তাপমাত্রা ৯৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি হলে স্ক্রিনে লাল দেখাবে। তখন ওই যাত্রীকে স্ক্রিনিং করা হয়। তাছাড়া যেসব দেশে রোগটি ছড়িয়ে পড়েছে, সেখান থেকে আসা যাত্রীদের স্ক্রিনিং না করে বিমানবন্দর থেকে বের হতে দেওয়া হচ্ছে না।

গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. সানিয়া তাহমিনা বলেছেন,  বর্তমান পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ মোটেই ঝুঁকিমুক্ত নয়। তবে মোকাবিলায় সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হয়েছে। 

রোববার গণমাধ্যম আরও জানিয়েছে, দেশের বিভিন্ন স্থল/ নৌ ও বিমানবন্দরগুলোয় ইমিগ্রেশন ও আইএইচআর স্বাস্থ্য ডেস্কে সতর্কতা এবং রোগের সার্ভিলেন্স জোরদার করা হয়েছে। হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরসহ দেশের বিভিন্ন প্রবেশপথগুলোতে নতুন করোনাভাইরাস স্ক্রিনিং কার্যক্রম চালু হয়েছে। নতুন ভাইরাস সম্পর্কে ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। ভাইরাস সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধি ও প্রতিরোধের জন্য রোগপ্রতিরোধ সংক্রান্ত প্রচার কার্যক্রমও নেওয়া হয়েছে।

ডা. সানিয়া তাহমিনা আরও বলেছেন, হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ দেশের সাতটি প্রবেশপথে ডিজিটাল থার্মাল স্ক্যানারের মাধ্যমে আক্রান্ত দেশ থেকে আসা রোগীদের স্পর্শ না করে জ্বর পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। আক্রান্ত রোগীর জন্য রেফারেল হাসপাতাল হিসেবে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল ও সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতাল নির্দিষ্ট রাখা হয়েছে। চিকিৎসা কাজে স্বাস্থ্যকর্মীদের ব্যবহারের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ রোগপ্রতিরোধী পোশাক মজুদ রাখা হয়েছে। এছাড়া তিন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কোয়ারেন্টাইন ওয়ার্ড রয়েছে। বিমানবন্দরের ভেতরে আক্রান্ত রোগীদের দ্রুত শনাক্তকরণের জন্য ক্রুদের মাধ্যমে যাত্রীদের মধ্যে হেলথ ডিক্লারেশন ফর্ম ও প্যাসেঞ্জার লোকেটর ফরম বিতরণ করা হচ্ছে। কোয়ারেন্টাইন এবং রোগীর স্ক্রিনিং ব্যবস্থা জোরদারসহ চীন ও আক্রান্ত দেশগুলো থেকে আসা আক্রান্ত যাত্রীদের হেলথ ফরম দেওয়া হচ্ছে।

পরিশেষে আমরা বলতে চাই, রহস্যময় করোনাভাইরাসটি যেভাবে গোটা বিশে^র মানুষের মনে আতঙ্ক জাগিয়েছে। এর অবসানও হবে। ধীরস্থিরচিত্তে  রোগটিকে মোকাবিলা করে মানুষকে জয়ী হতে হবে। এবং বাংলাদেশে রোগটি ছড়াতে না পারে সে ব্যাপারে যে আগাম সতর্কমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তা বেশ সন্তোষজন বলেই আমরা মনে করি। এ ব্যবস্থা অটুট থাকলে মানুষের মনে আতঙ্ক-ভয়ভাব কেটে যাবে। তবে সবচেয়ে বড় কাজটি হচ্ছে, কোনোভাবেই যেন মারাত্মক এই ভাইরাসটি বাংলাদেশে ঢুকতে না পারে। 

Ads
Ads