সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলায় ১০ জনের মৃত্যুদণ্ড

  • ২০-জানুয়ারী-২০২০ ১২:১২ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

২০০১ সালে পল্টনে সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা ও হত্যার ঘটনায় করা মামলার রায়ে ১০ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন হুজির সদস্য মুফতি মঈন উদ্দিন শেখ, আরিফ হাসান সুমন, মাওলানা সাব্বির আহমেদ, শওকত ওসমান ওরফে শেখ ফরিদ, জাহাঙ্গীর আলম বদর, মহিবুল মুত্তাকিন, আমিনুল মুরসালিন, মুফতি আব্দুল হাই, মুফতি শফিকুর রহমান ও নূর ইসলাম। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় রফিকুল ইসলাম মিরাজ ও মশিউর রহমানকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক রবিউল আলম এ রায় ঘোষণা করেন। এতে মোট ১২ আসামির মধ্যে ১০ জনের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। অপর দুই আসামিকে খালাস দেওয়া হয়।

মামলার রায় উপলক্ষে আদালতে আজ কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

রায় ঘোষণার আগে আজ সকাল ১০টার দিকে এ মামলার চার আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। হাজিরকৃত আসামিরা হলেন শওকত ওসমান, সাব্বির আহমেদ, আরিফ হাসান সুমন ও মঈন উদ্দিন।

এছাড়া আসামিদের মধ্যে ভিন্ন মামলায় জঙ্গি নেতা মুফতি আবদুল হান্নানের ফাঁসি আগেই কার্যকর হয়েছে আর পলাতক রয়েছেন সাত জন।

এ মামলার আসামিরা হলেন- হুজির সদস্য মুফতি মঈন উদ্দিন শেখ, আরিফ হাসান সুমন, মাওলানা সাব্বির আহমেদ, শওকত ওসমান ওরফে শেখ ফরিদ, মো. মশিউর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম বদর, মহিবুল মুত্তাকিন, আমিনুল মুরসালিন, মুফতি আব্দুল হাই, মুফতি শফিকুর রহমান, রফিকুল ইসলাম মিরাজ ও নূর ইসলাম।

অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আসামিদের মধ্যে রফিকুল ইসলাম মিরাজ ও মশিউর রহমানকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

১৯ বছর আগে (২০ জানুয়ারি ২০০১) ওই বোমা হামলায় নিহত হন পাঁচজন। আহত হন ২০ জন।

এর আগে সাক্ষ্য-প্রমাণে আসামিদের বিরুদ্ধে সব অভিযোগ প্রমাণ করতে সক্ষম হওয়ার দাবি করে তাঁদের মৃত্যুদণ্ড চায় রাষ্ট্রপক্ষ।

এদিকে পল্টন ময়দানে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) মহাসমাবেশে বোমা হামলা ও হত্যাকাণ্ডের ১৯তম বার্ষিকী আজ ২০ জানুয়ারি।

Ads
Ads