বিজয় দিবসে আলোয় আলোয় সেজেছে রাজধানী

  • ১৬-Dec-২০১৯ ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

মহান বিজয় দিবস আজ। বাংলাদেশের ইতিহাসের সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল দিন। পরাধীনতার শৃঙ্খলমুক্তির দিন। ১৯৭১ সালে এই দিন পাকিস্তানি বাহিনীকে পরাস্ত করে বিশ্বের মানচিত্রে সৃষ্টি হয় নতুন একটি সার্বভৌম দেশ, লাল-সবুজের বাংলাদেশ।

বিজয় দিবস উপলক্ষে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে রাজধানী ঢাকাকে। আলোকসজ্জায় রঙিন ঢাকা যেন পরিণত হয়েছে একখণ্ড লাল-সবুজের পতাকায়। সন্ধ্যার পর রংবেরংয়ের আলোকচ্ছটায় ঝলমলিয়ে ওঠে এলাকাগুলো। আলো দিয়ে তৈরি করা হয় প্রিয় লাল-সবুজ পতাকা। মনকাড়া এমন আলোকসজ্জায় মুগ্ধ অনেকেই।

রোববার (১৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, স্থাপনা, অফিস-আদালত সেজেছে বর্ণিল সাজে। সন্ধ্যার পরই লাল সবুজের আলোতে ঝলমলিয়ে ওঠে পুরো রাজধানী। চোখ ধাঁধানো এ আলোকসজ্জার ঝলকানিতে মন কেড়েছে সবার।

রাজধানীর কারওয়ান বাজার, ফার্ম গেট, সংসদ ভবন এলাকা, শেরে বাংলা নগর, শাহবাগ, বাংলামটর মতিঝিল, পল্টন, দৈনিক বাংলা, গুলিস্তানসহ বিভিন্ন এলাকায় গুরুত্বপূর্ণ ভবনগুলো আলোকসজ্জা করা হয়েছে। বিভিন্ন রঙ ও বর্ণের এসব আলোকসজ্জা উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি করেছে।

সড়কের ডিভাইডার ও ল্যাম্পপোস্টে লাগানো হচ্ছে বিজয় দিবসের বিভিন্ন ব্যানার-ফেস্টুন আর পতাকা। এ সব ব্যানার ফেস্টুনে রয়েছে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের উন্নয়নের কথা ও জাতিকে বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা।

আলোকসজ্জা দেখে ব্যাংক কর্মকর্তা সুলতান রহমান বলেন, আমাদের মহান বিজয় দিবসকে সামনে রেখে রাজধানীকে যে আলোকসজ্জা করা হয়েছে তা আসলে মনোমুগ্ধকর। আলোকসজ্জার কারণে যে দৃশ্যপট সৃষ্টি হয়েছে তা আসলেই চোখ ধাঁধানো।

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস কবিতা বলেন, বিজয় দিবস উপলক্ষে সাজানো এমন মনোমুগ্ধকর দৃশ্য নিজ চোখে না দেখলে কেউ উপভোগ করতে পারবে না।

উল্লেখ্য, ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামের একটি স্বাধীন রাষ্ট্র ভূমিষ্ঠ হয়। পাক হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে দীর্ঘ নয় মাসে মরণপণ লড়াই করে বাংলার দামাল সন্তানরা বিজয় লাভ করে ছিনিয়ে আনে স্বাধীনতার লাল সূর্য।

Ads
Ads