সালমান ও ক্যাটরিনার প্রশংসায় শেখ হাসিনা

  • ৯-Dec-২০১৯ ১১:০৮ অপরাহ্ন
Ads

:: ড. কাজী এরতেজা হাসান ::

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু বিপিএল’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুকন্যাকে পেয়ে উচ্ছ্বাস দেখিয়েছেন বলিউডের সুপারস্টার সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ।  গত রোববার মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের প্রেসিডেন্ট বক্সের সামনে এক ফ্রেমে ধরা পড়েন তারা। এ সময় হাস্যোজ্জ্বল দেখা যায় প্রধানমন্ত্রীকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডান পাশ থেকে প্রধানমন্ত্রীর ডান হাত ধরে রেখেছিলেন সালমান, আর বাম পাশে ক্যাটরিনা। ক্যাটকে শেখ হাসিনার বাম হাত ধরে হাসি ঝরাতে দেখা গেছে প্রেসিডেন্ট বক্সের সামনে। প্রধানমন্ত্রীর পাশেই ছিলেন নাজমুল হাসান পাপন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কুশলাদি বিনিময় করেন বলিউডের দুই তারকা। বেশ কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে কথাও বলেন তারা। জাতির জনককে উৎসর্গ এই ক্রিকেট লীগের সাফল্যও কামনা করেন তারা।

বঙ্গবন্ধু বিপিএল উপলক্ষে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে হাজার হাজার মানুষে ভর্তি মঞ্চে এসে সালমান খান বলেছেন, ‘আসসালামু ওয়ালাইকুম বাংলাদেশ, আসসালামু ওয়ালাইকুম ঢাকা।’ এরপর মজা করে বলেছেন, এখানেই এত মানুষ। তারপর কত মানুষ টেলিভিশনে এই প্রোগ্রাম দেখছে। তাহলে এই শহরের জনসংখ্যা কত?’ আর মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে ক্যাটরিনা প্রথম যে কথাটি বলেছেন, তা হলো, ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।’ তারপর দুজনেই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। সালমান খান বলেছেন, ‘আমরা সত্যিই শেখ হাসিনাকে ভালোবাসি। তিনি তিন-তিনবারের প্রধানমন্ত্রী। কেবল নামেই হাসিনা নন, তিনি সব দিক থেকেই হাসিনা (সুন্দর)। তার হৃদয় হাসিনা, ব্যবহার হাসিনা, তিনি দেখতে হাসিনা। তার সুন্দর হাসি, সুন্দর চোখ, এমনকি কণ্ঠও অসাধারণ।’ সালমান খানের সর্বশেষ টুইটটি অনেকেরই চোখে পড়ে থাকবে। সেখানে তিনি ভারতে ফিরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে টুইট করেছেন। সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন একটি ছবি।

মাঝখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, একপাশে সালমান খান আর অন্যপাশে ক্যাটরিনা কাইফ। লিখেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ক্যাটরিনা আর আমি। তার মতো চমৎকার একজন মানুষের সাক্ষাৎ পেয়ে আমরা যারপরনাই আনন্দিত ও সম্মানিত।’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষের কথা উল্লেখ করতেও ভুলেননি সালমান খান। বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধু, জনাব মুজিবুর রহমান সাহেব বাংলাদেশের স্থপতি। তিনি বাংলাদেশের জাতির পিতা। তার জন্মশতবার্ষিকীতে আমি পুরো দেশকে অভিনন্দন জানাই।’ 

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে সারা বিশে^র রাজনৈতিক নেতারা বক্তব্য দিয়েছিলেন এক সময়। তাকে যখন দুর্বৃত্তরা হত্যা করেন, তখনও সারা বিশ^দরবার নাখোশ ছিলেন। বিভিন্ন দেশের প্রেসিডেন্ট-প্রধানমন্ত্রীরাই শুধু নয়, রাজনৈতিক বোদ্ধারাও তাকে হারানোর ফলাফল জানিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর অধুরা কাজগুলোকে সম্পন্ন করছেন তারই কন্যা শেখ হাসিনা। সুমিস্ট হাসি দিয়ে তিনি সব কষ্টকে লুকিয়ে রাখেন। দেশের জন্যই তার হৃদস্পন্দন যেন পুরোদস্তুর টগবগিয়ে চলছে। বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীর আগ মুহূর্তে বঙ্গবন্ধু বিপিএল এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্ব ও তার মেয়ের বর্তমান কার্যাদি সম্বন্ধে জেনেই সঠিক মন্তব্য করবেন এটাই স্বাভাবিক। আর সালমান-ক্যাট সেটাই করলেন। 

সালমান-ক্যাটের বাংলাদেশে আসা এই প্রথম নয়। তবে এবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সান্নিধ্য পেয়ে খুশি তারা। তারা জানিয়েছেন, আবারও নিমন্ত্রণ পেলে তারা আসবেন। 

Ads
Ads