যে কারণে ইডেনে গোলাপি টেস্টে শেখ হাসিনার সঙ্গে খেলা দেখবেন না অমিত শাহ

  • ২০-Nov-২০১৯ ০৩:৩০ পূর্বাহ্ণ
Ads

ক্রীড়া প্রতিবেদক
ভারত-বাংলাদেশ দুই দলই প্রথমবার ইডেনে ঐতিহাসিক গোলাপি বলে টেস্ট খেলতে নামবে। আর এ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে খেলা দেখার কথা ছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। তাঁকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। কিন্তু ২২ নভেম্বর ইডেনে আসতে পারছেন না কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আসছেন পরের দিন।

২২ নভেম্বর ইডেনে ভারতে প্রথম আনুষ্ঠানিক গোলাপি বলে দিন রাতের টেস্টে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই দিনই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। সম্মতিও দিয়েছিলেন শাহ। তবে ওই দিন আসতে পারছেন না স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। পরের দিন অর্থাৎ ২৩ নভেম্বর ইডেনে খেলা দেখবেন অমিত শাহ। ওই দিন রাজ্য নেতাদের সঙ্গেও দেখা করবেন। তাঁর সঙ্গে ইডেনের ভিভিআইপি বক্সে থাকতে পারেন রাজ্য ও কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতারাও।

দেশের মাটিতে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম দিন রাতের টেস্ট খেলতে নামছেন বিরাট কোহলিরা। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছেন, প্রতিবছর একটি করে দিন রাতের টেস্ট আয়োজন করা হবে। যার শুরুটা হল ইডেনে। ঐতিহাসিক গোলাপি টেস্টে থাকার জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন করেছেন খোদ সৌরভ। বিসিসিআই প্রেসিডেন্টে আবেদনে সাড়া দিয়েছেন হাসিনা। তাঁর কথায়, ''এটা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দাওয়াত নয়। বাঙালি ছেলে সৌরভের দাওয়াত। সৌরভের দাওয়াত বলেই আমি সেখানে যাব।''

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী জানান, সৌরভ বাঙালি।একসময় ক্রিকেটে খুব নাম করেছিল। এই প্রথম একজন বাঙালি হিসেবে বিসিসিআইয়ের প্রধান হল। এরপর সে আমাকে ফোন করেছিল। আমাকে দাওয়াত দিল। বলল, আমি যেন ওখানে যাই এবং খেলার শুরুতে অন্তত থাকি। আমি রাজি হয়ে গেলাম।

উল্লেখ্য, ২২ নভেম্বর ইডেনে প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির টেস্টে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ওই দিন কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে ঐতিহ্যবাহী ঘণ্টা বাজিয়ে গোলাটি টেস্টের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ ছাড়া ওই ম্যাচকে ঘিরে আরও নানামুখী আয়োজন হাতে নিয়েছে আয়োজক দেশটি।

Ads
Ads