ডিজিটাল আওয়ামী লীগের ‘এ্যানালগ’ সহযোগী সংগঠন!

  • ১২-Oct-২০১৯ ১১:৩০ অপরাহ্ন
Ads

::উৎপল দাস::

তথ্য প্রযুক্তির বৈপ্লবিক উন্নয়ন সাধনের পাশাপাশি রাজনৈতিক দলগুলো এগিয়ে যাচ্ছে এই প্রযুক্তির ওপর ভর করেই। ডিজিটাল বাংলাদেশের স্লোগান নিয়ে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ের পর একাদশ জাতীয় নির্বাচনেও নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো ক্ষমায় আছে আওয়ামী লীগ। কিন্তু আওয়ামী লীগের মতো বৃহৎ দলের সহযোগী সংগঠনগুলোতে সেভাবে ডিজিটালাইজেশন করা হয়নি। 

মূল দল আওয়ামী লীগ ছাড়া সহযোগী সংগঠনের মধ্যে শুধু বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের আলাদা ওয়েবসাইট রয়েছে। এছাড়া ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন ছাত্রলীগেরও আলাদা ওয়েবসাইট রয়েছে। যদিও তিনটি ওয়েবসাইটগুলোতে প্রবেশ করে দেখা গেছে সংগঠনের সমসাময়িক কার্যক্রমের আপডেট পাওয়া যাচ্ছে না। 

এছাড়া, সহযোগী সংগঠনের মধ্যে শ্রমিক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, তাঁতী লীগ, যুব মহিলা লীগ, কৃষক লীগের কোনো আলাদা ওয়েবসাইটের অস্তিত্বই খুঁজে পাওয়া যায়নি। বিষয়টি রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা, ডিজিটাল আওয়ামী লীগের এ্যানালগ সহযোগী সংগঠন হিসাবেই দেখছেন। এমনকি আওয়ামী লীগের অনেক শীর্ষ নেতা থেকে শুরু করে সহযোগী সংগঠনের অনেক শীর্ষ নেতাই প্রযুক্তি বিষয়ে তেমন কোনো ধ্যান ধারণাই রাখেন না বলেও দাবি করেন তারা। 

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করেন, আওয়ামী লীগের নামে ভূঁইফোড় অনেক সংগঠনেরই যেখানে ওয়েবসাইট রয়েছে সেখানে বৈধ সহযোগী সংগঠনগুলোর আলাদা ওয়েবসাইট থাকা খুবই জরুরি। কেননা মানুষ প্রযুক্তি ব্যবহার করে এখন সংগঠনগুলোর আদিঅন্ত জানতে পারবে।  অনেকে প্রশ্ন তুলেই বলেছেন, প্রতিটি সহযোগী সংগঠনের একজন করে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রয়েছেন। তার আসলে কাজ কি? সেটাই হয়তো তিনি জানেন না। 

এদিকে, মূল দল আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুরকে রাত ১১ টা ১৭ মিনিটে ফোন দিলেও তিনি কল রিসিভ করেননি। 

Ads
Ads