রাজধানীতে প্রেমিকার বাসার সামনে প্রেমিকের আত্মহত্যা

  • ১২-Oct-২০১৯ ০৮:৩১ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

প্রেমিকার বাসার সামনে নিজের পেটে ছুরি মেরে আত্মহত্যা করছেন এক যুবক। তার নাম নীরব (২০)।

শনিবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত নীরব শরিয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার থিরপাড়া গ্রামের মতি মিয়ার ছেলে। বর্তমানে কেরানীগঞ্জের বাঁশপট্টি থানার ঘাট এলাকায় থাকত। সে ইসলামপুরে একটি কাপড়ের দোকানে কাজ করতো।

নিহত নীরবের বন্ধু মো. সিয়াম জানায়, তারা কেরানীগঞ্জে থাকে, নীরবের বাবা মতি মিয়া থানার ঘাটে নৌকা চালায়। গতকাল রাতে নীরব কামরাঙ্গির চর এলাকায় আরেক বন্ধুর বাসায় যায়। সেখান থেকে কদমতলিতে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে যায়। সপ্তম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীর সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

সিয়াম আরও জানায়, নীরব প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে গেলেও প্রেমিকা দেখা করে না। পাশাপাশি মেয়ের পরিবার নীরবকে বকা দেয়। সেই অভিমানেই নীরব তার কাছে থাকা ছুরি দিয়ে নিজের পেটে আঘাত করে, পরে তাকে আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে গেলে সে মারা যায়।

কদমতলী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোহাগ রানা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ছয় মাস ধরে ফেসবুকে মেয়েটির সঙ্গে নীরবের সম্পর্ক ছিল। আজ মেয়েটির সাথে দেখা করতে যায়। দেখা না করায় এবং মেয়েটির পরিবার থেকে বকাঝকা করায় সে নিজের পেটে ছুরি মেরে আত্মহত্যা করে। নীরবের সঙ্গে থাকা বন্ধু সিয়ামকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। অন্য কোনো ঘটনা আছে কিনা তা জানার চেষ্টা চলছে। নীরবের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

Ads
Ads