টাঙ্গাইলে তাঁতী সমিতি ধ্বংসের পায়তারা

  • ৯-Oct-২০১৯ ০৭:৪৭ অপরাহ্ন
Ads

:: আব্দুস সাত্তার, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ::

নদী,চর,খাল-বিল গজাঁরীর বন টাঙ্গাইলের শাড়ী তার গর্বের ধন।আর সেই টাঙ্গাইল শাড়ি উৎপাদনের বৃহৎ অংশ কালিহাতীর বল্লা গ্রাম।তাঁত শিল্প এলাকা বল্লায় স্থাপন করা হয় বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের উপজেলা অফিস।

দীর্ঘদিন যাবত বল্লা তাঁত বোর্ড অফিস থেকে তাতীদের চলতি মূলধন সরবরাহের জন্য ক্ষুদ্রঋন,তাতীঁদের উন্নতমানের প্রশিক্ষন গ্রহন সহ নানা সুযোগ সুবিধা গ্রহন করে আসছে।সরকার মাত্র ৫% শুল্কে তাঁতীদের কাচাঁমাল আমদানীর যখন সুযোগ দিয়েছে তখন একটি কুচক্রী মহল  সেগুলো আমদানী বন্ধ ও তাঁতী সমিতি ধ্বংসের পায়তারা করছে।যাতে প্রান্তিক তাঁতীরা সরকারের এ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়।তারা চালিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন অপপ্রচার।

জানাগেছে, কালিহাতীর বল্লাতাঁত বোর্ডের বেসিক সেন্টারের আওতায় সরকারের মাত্র ৫% শুল্কে সূতা ও রং রাসয়নিক আমদানীর জন্য প্রক্রিয়া শুরু করেন তাঁত বোর্ডেও আওতাধীন বল্লা ইউনিয়ন ১,২,৩ ওয়ার্ড প্রাঃ তাঁতী সমিতি, নাগবাড়ী ১,৩ নং ওয়ার্ড প্রাঃ তাতীঁ সমিতি ও পাইকড়া ৩নং ওয়ার্ড প্রাঃ তাঁতী সমিতি।প্রক্রিয়া শুরুর পর থেকেই বেসিক সেন্টারে আওতায় তাঁতী সমিতি গুলোর সভাপতি,সাধারন সম্পাদকের নিকট চাঁদা দাবি করে আসছিল একটি মহল।

সেই দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ার তাঁতী সমিতির বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।তাঁতী সমিতির একাধিক সভাপতি,সাধরন সম্পাদক জানান,দু’একটি সমিতি আংশিক আমদানী করলেও বাকি সমিতি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। কাচাঁমাল আমদানী বন্ধ ও তাঁতী সমিতি ধ্বংসের পায়তারা,প্রান্তিক তাঁতীদের সরকারের এ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করার জন্য একটি মহল উঠে পড়ে লেগেছে।

Ads
Ads