হাসিনা সরকার মনে করে সবার জন্য আবাসন, কেউ থাকবে না গৃহহীন: গণপূর্তমন্ত্রী

  • ৭-Oct-২০১৯ ০৩:০০ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বাংলাদেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না। সারাদেশে ‘আমার গ্রাম-আমার শহর’ ধারণাকে কার্যকর করে নাগরিক সুবিধা সবার কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য কাজ করা হচ্ছে। 

সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজধানীর শাহবাগে ঢাকা ক্লাবের সামনে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে বিশ্ব বসতি দিবসের র‌্যালি উদ্বোধনের সময় এসব কথা বলেন তিনি।

র‌্যালি উদ্বোধনে মন্ত্রী বলেন, সারা বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশ বিশ্ব বসতি দিবস উদযাপন করছে। এবারে প্রতিপাদ্যের মূল কথা অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বর্জ্যকে সম্পদে পরিণত করে সেটাকে কাজে লাগানো।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার মনে করে সবার জন্য আবাসন, কেউ থাকবে না গৃহহীন। এটি ছিল আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অঙ্গীকার। এ অঙ্গীকার বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার কাজ করছে। দেশের বিত্তবান, মধ্যবিত্ত, নিম্ন-মধ্যবিত্ত, এমনকি যাদের কোনো কিছু নেই অর্থাৎ যারা ভাসমান বস্তিবাসী তাদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে। একজন লোকও দেশে আবাসহীন থাকবে না। জনগণের সাংবিধানিক অধিকার বাসস্থান বাস্তবায়নের জন্য আমরা কাজ করছি।

মন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের আবাসন প্রকল্পের অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে বাসযোগ্য, পরিবেশসম্মত আধুনিক আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা। সারা বিশ্বকে বাসযোগ্য, পরিবেশসম্মত ও সমৃদ্ধ আধুনিক বিশ্বে পরিণত করার যে পরিকল্পনা, তার রোল মডেল হবে বাংলাদেশ।

এ রোল মডেল হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুপরিকল্পিতভাবে বিশ্ব বসতি দিবস পালনের নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা চাই সবাই সম্মিলিতভাবে পরিকল্পিত আবাসন গড়ে তুলুক।

তিনি আরো বলেন, সবার জন্য পরিবেশসম্মতভাবে আবাসন নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে শেখ হাসিনা সরকার সারা বিশ্বে রোল মডেল হবে। সারা দুনিয়ায় যেমন নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করেছেন শেখ হাসিনা, এক্ষেত্রেও তার নেতৃত্ব থেকে সারা দুনিয়া শিক্ষা গ্রহণ করবে।

র‌্যালির সমাপনী বক্তব্যে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকার বলেন, মন্ত্রণালয়াধীন সব আবাসন প্রকল্পে আমরা আধুনিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সংস্থান রাখব। এ লক্ষ্যে এরই মধ্যে আমরা কার্যক্রম শুরু করেছি।
 
র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন- গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়াধীন সব দফতর সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারী, কোয়ালিশন ফর দ্য আরবান পুওর (কাপ) এর সদস্যরা, রিহ্যাবের সদস্যরাসহ আবাসন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংস্থার সদস্যরা।

Ads
Ads