রাজধানীতে পুলিশের বিরুদ্ধে বিয়ের অতিথিকে মারধরের অভিযোগ

  • ৬-Oct-২০১৯ ০৫:৪২ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

মধ্যরাতে রাজধানীর আজিমপুরের বাসায় ফেরা এক সাংবাদিকের ভাইকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে কয়েকজন পুলিশ সদস্যের সঙ্গে কাজী মোবারক হোসেন নামে ওই প্রতিবেদকের স্বজনদের ঝামেলা শুরু হয়।

মোবারক জানান, সন্ধ্যার পর খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন কনভেনশন হলে তার বিবাহোত্তর সংবর্ধনা ছিল। অনুষ্ঠান শেষ করে বাসার দিকে রওনা দিতে দিতে মধ্যরাত হয়ে যায়।

রাত ১টার দিকে তার বড় ভাই জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) ও ভাতিজা রিয়াদ (২১) সিএনজি অটোরিকশায় চড়ে প্রথমে আজিমপুরের বটতলা এলাকায় বাসার সামনে এসে নামেন।

লালবাগ থানার এসআই কালামের নেতৃত্বে কয়েকজন পুলিশ এসে তাদের কাছে জানতে চায়, এত রাতে বাইরে কেন? তারা বিয়ের কথা বললেও তাদের পুলিশের গাড়িতে উঠতে বলে। রাজি না হওয়ায় আমার ভাইকে মারধর শুরু করে। তখন আমাদের গাড়ি এসে পৌঁছালে আমি নেমে জানতে চাই, কেন মারা হচ্ছে।

এর মধ্যে লালবাগ থানার পরিদর্শক আসলাম ঘটনাস্থলে চলে আসেন। তিনি এসেই এনটিভি নিউজের সাংবাদিক ফখরুল শাহীনকে থাপ্পড় মারেন। এক পর্যায়ে আমার কলার ধরে টেনে গাড়িতে তুলতে যান। তখন আমার সঙ্গে থাকা বিয়ের অনুষ্ঠানের অতিথি ১০-১২ জন সাংবাদিক আমাকে তার কাছ থেকে রক্ষা করে।

এ খবর শুনে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে কর্মরত আরও কয়েকজন সাংবাদিক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল ছাত্র ঘটনাস্থলে চলে আসেন। তারা পরিদর্শক আসলামসহ ২০-২৫ জন পুলিশ সদস্যকে ঘিরে বিক্ষোভ করছেন। এ ঘটনায় দায়ী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে তারা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেন।

Ads
Ads