‘টেগর শান্তি পুরস্কার’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • ৫-Oct-২০১৯ ০৮:৫৫ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

ভারত সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষুধা, দারিদ্র্য ও দুর্নীতি প্রতিরোধে বিশেষ অবদান রাখায় ‘টেগর শান্তি পুরস্কারে’ ভূষিত করা হয়েছে। 

শনিবার (৫ অক্টোবর) নয়াদিল্লিতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর হাতে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে এশিয়াটিক সোসাইটির সভাপতি প্রফেসর ইশা মোহাম্মদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন। 

শান্তি প্রতিষ্ঠা, ক্ষুধা দারিদ্র্য ও দুর্নীতি প্রতিরোধ, সন্ত্রাসবাদ নিমূল, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রতি ভূমিকা রাখায় এশিয়াটিক সোসাইটি তাকে এ পুরস্কারে ভূষিত করেছে।  

শেখ হাসিনা এর আগে বিশ্বশান্তির অবিসংবাদী নেতা নেলসন ম্যান্ডেলা এ পুরস্কারে ভূষিত হন।

এর আগে দিল্লির ঐতিহাসিক হায়দ্রাবাদ হাউজে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বৈঠকে দুই দেশের মধ্যে ৭টি সমঝোতা স্মারক সই হয়। এছাড়া ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনটি প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়।

দুই নেতার এই বৈঠকে আঞ্চলিক এবং দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়; যেমন- রোহিঙ্গা ইস্যু, দুই দেশের মধ্যকার অভিন্ন নদীগুলোসহ তিস্তার পানি বণ্টন, নিরাপত্তা, ব্যবসা-বাণিজ্যের ভারসাম্য এবং লাইন অব ক্রেডিট (এলওসি) প্রভৃতি বিষয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠকের পর হায়দ্রাবাদ হাউজে শেখ হাসিনার সম্মানে নরেন্দ্র মোদি আয়োজিত মধ্যাহ্ন ভোজেও যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। রোববার প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, টেগোর পিস অ্যাওয়ার্ড হচ্ছে সাংস্কৃতিক সম্প্রীতির জন্য নোবেল বিজয়ী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের দেড়শতম জন্মবার্ষিকীর স্মরণে দেয়া একটি পুরস্কার। ২০১২ সালে দ্য এশিয়াটিক সোসাইটি এই পুরস্কার প্রবর্তন করে। ওই বছর প্রথম টেগোর পিস অ্যাওয়ার্ড পান ভারতের আধ্যাত্মিক নেতা রবি শঙ্কর। এর পরের বছর পুরস্কার পান ভারতের জুবিন মেহতা। এবার পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Ads
Ads