সাংবাদিককে ‌‌অশ্লীল ভাষায় গালি দিলেন রাজাকার কন্যা যুব মহিলা লীগের নেত্রী শাহানাজ ডলি! 

  • ১২-Sep-২০১৯ ১০:২১ অপরাহ্ন
Ads

নিজস্ব প্রতিবেদক

একাত্তরের তালিকাভুক্ত চিহ্নিত রাজাকারের কন্যা এবং উপজেলা ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের আপন বোন আগামী ৭৪ তম জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে অনৈতিকভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরসঙ্গী না হতে পারার বেদনায় আশাহত বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের বিতর্কিত যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহনাজ পারভীনক ডলি এবার ভোরের পাতার সিনিয়র প্রতিবেদক ও অনলাইন ইনচার্জ উৎপল দাসকে ‌‌'কুত্তার বাচ্চা' ফাজিল, তুই কি আমাকে চিনিস? আমি কে? এসব বলে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেছেন। 

যুব মহিলা লীগের নষ্ট নোংরা মানসিকতার নেত্রীদের নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের দ্বিতীয় পর্বে আজ বৃহস্পতিবার রাত ৯ টা ৫১ মিনিটে শাহনাজ পারভীন ডলিকে ফোন করেন সংশ্লিষ্ট এ প্রতিবেদক। মাত্র ৫০ সেকেন্ডের কথপোকথনের এক পর্যায়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডলি উৎপল দাসকে উপরে উল্লেখিত গালি দিয়ে ফোন কেটে দেন। কথার শুরুতে খুবই মার্জিত ভাষায় সালাম বিনিময় এবং এরপর প্রতিবেদকের পরিচয় পাওয়ার পর নিজ থেকেই বলেন, ‌'আপনি তো আমাকে নিয়ে খুব সুন্দর নিউজ করেছেন।' প্রতি উত্তরে উৎপল দাস ধন্যবাদ বলার আগেই তিনি বলেন, আমাকে নিয়ে আরো যেন কি নিউজ করবেন। তারপর প্রতিবেদক বলেন, এ কারণেই আপনাকে ফোন করেছি। এরপর সিদ্বেশ্বরীতে শাহনাজ পারভীন ডলি যে অভিজাত ফ্ল্যাটে থাকেন সেটি তার কেনা কিনা, নাকি বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন সাবেক গর্ভনর তাকে উপহার দিয়েছেন, প্রশ্ন নম্বর ১...এরপর আর কথা বলার সুযোগ না দিয়েই তিনি উত্তেজিত হয়ে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে ফোন কেটে দেন। 

উল্লেখ্য, যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নাজমা আক্তার জানিয়েছেন ডলিকে নেতা বানানোর জন্য বরিশাল অঞ্চলের একজন প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা, যিনি আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী তাকে অনুরোধ করেছিলেন। ওই নেতার নেতার সাথে শাহনাজ পারভীন ডলির একটি বিশেষ সম্পর্ক থাকায় তিনি ধরাকে সরা জ্ঞান মনে করেন বলেও জানিয়েছেন যুব মহিলা লীগের একাধিক নেত্রী। 

উল্লেখ্য, ভোরের পাতায় বুধবার ‌'রাজাকার কন্যা ও শিবির নেতার বোন শাহানাজ ডলি এবার শেখ হাসিনার সফরসঙ্গী!' এ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পরই তার নাম প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গীর তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নাজমা আক্তার। 


আগামী পর্বে: প্রভাবশালীদের মনোরঞ্জন আর ভুয়া সার্টিফিকেট দিয়ে শাহনাজ পারভীন ডলির রমরমা রাজনৈতিক প্রতারণার ব্যবসা। 
 

Ads
Ads