পরকীয়া ফেনালাপ ফাঁস, তাহিরপুরের সেই ইউএনও বদলি

  • ৫-Sep-২০১৯ ০৬:১০ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসিফ ইমতিয়াজকে বদলি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০৫ সেপ্টেম্বর) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. আবদুল লতিফ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে তাকে বদলির বিষয়টি জানানো হয়। 

আসিফ ইমতিয়াজের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করার অভিযোগ ওঠে। এ-সংক্রান্ত গঠিত তদন্ত কমিটি যার সত্যতা পায়। 

অভিযোগকারী নারীকে না জানিয়ে তার নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলে সেখানে লাখ লাখ টাকা লেনদেনের প্রমাণও মিলেছে। 

এদিকে আসিফ ইমতিয়াজ ও তার পরকীয়া প্রেমিকার অডিও ফাঁস হয়েছে। যেখান থেকে পাওয়া গেছে চাঞ্চল্যকর অনেক তথ্য।

ফাঁস হওয়া ১৯ মিনিটের একটি অডিও থেকে কয়েকটি উল্লেখযোগ্য কথোপকথন পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-

পরকীয়া প্রেমিকা : ‘তুমি লোন করার কথা বলে ব্যক্তিগত কাগজপত্রপত্র নিয়ে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকে আমার নামে অ্যাকাউন্ট কেন খুলেছ? আমি ব্যাংকের হেড অফিস থেকে সব ডকুমেন্ট উঠিয়েছি। আমার সঙ্গে মিথ্যা কথা বলবে না।’

আসিফ ইমতিয়াজ : ‘তোমাকে এত কায়দাকানুন কে করতে বলেছে?’

পরকীয়া প্রেমিকা : ‘তুমি তো আমার কথা শোনোই না। আমি এ জন্যেই বলছি দুদকে কমপ্লেন করব।’

ইমতিয়াজ : ‘তুমি কেন এরকম করতেছ।’

পরকীয়া প্রেমিকা : ‘কারণ তুমি আমাকে মাঝ রাস্তায় ছেড়ে দিয়েছ।’

আসিফ ইমতিয়াজ: ‘তুমি কি চাও পরিষ্কারভাবে বল। আমার সাড়ে ৩ বছরের একটা ছেলে আছে। শুধু তুমি আর আমি বসব। কোনো ল’ইয়ার লাগবে না। তোমার কোনো দয়ামায়া নাই?

পরকীয়া প্রেমিকা : ‘হ্যাঁ আছে। আছে বলেই তো চুপ করে রয়েছি। না হলে তো এতদিনে বারোটা বেজে যেত।

আসিফ ইমতিয়াজ : ‘তুমি আমার বারোটা বাজাইতে গেছ? তুমি ব্যাংকে গিয়ে কাগজপত্র সব বের করেছ?’

পরকীয়া প্রেমিকা : ‘তুমিতো আমার কোনো কথাই মানতেছো না। ছেড়ে দিছো রাজপথে।

আসিফ ইমতিয়াজ : ‘এখন আমি তোমাকে সারা জীবন পালব?’

ভুক্তভোগী নারী : ‘আমি তোমাকে তো সারা জীবন পালতে বলতেছি না।

আসিফ ইমতিয়াজ : ‘তুমি আমার ক্ষতি করবে কেন? আমি কি তোমার কোনো উপকার করিনি? আমিতো মিউচুয়ালের কথাই বলতেছিলাম। তুমি ব্যাংকে গিয়ে গোপনে অ্যাকাউন্টের কাগজপত্র উঠাচ্ছ। আর আমাকে দোষ দাও। এটা কি? তুমিতো আমার ক্ষতি করার জন্য এসব কাগজপত্র উঠাচ্ছ।’

পরকীয়া প্রেমিকা : ‘ক্ষতি করতে চাইলে অনেক আগেই দুদকে দিয়া দিতাম। আমি তোমার সঙ্গে থাকতে চাই।’

১০ মিনিট ৫৫ সেকেন্ডের আরেকটি অডিওর গুরুত্বপূর্ণ কথোপকথন-

আসিফ ইমতিয়াজ : আমি ও আমার আইনজীবী অনেকক্ষণ ধরে চিন্তা করছি দু’জনই যাতে বাঁচতে পারি সেটা। আমাদের দু’জনের মধ্যে এত বেশি আদান-প্রদান এবং ভবিষ্যতে আরও বেশি হবে। তোমার একটা কথায় আমি বিপদে পড়ব।

পরকীয়া প্রেমিকা : তুই না একটু বললি, আমরা কোর্টে গিয়ে বিয়ে করব।

আসিফ ইমতিয়াজ : কোর্ট তো বিয়া করায় না। আমরা চিন্তাভাবনা করতেছি আমরা কোর্টে যাব। একটা ওয়ে বের করব।

 

/কে 

Ads
Ads