মিন্নির জামিন আটকাতে আপিল করবে রাষ্ট্রপক্ষ

  • ২৯-Aug-২০১৯ ০৫:২৯ অপরাহ্ন
Ads

 

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

বরগুনায় আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার তার স্ত্রী কারাবন্দি আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে দেওয়া হাইকোর্টের জামিন স্থগিত চেয়ে আপিল করবে রাষ্ট্রপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) এ সংক্রান্ত রুলের শুনানি নিয়ে শর্তসাপেক্ষে হাইকোর্ট মিন্নিকে জামিন দেওয়ার পর রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারোয়ার হোসাইন বাপ্পী সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন। 

তিনি বলেন, আমরা হাইকোর্টে আপিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মিন্নিকে কেন জামিন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিলেন আদালত। সে রুল যথাযথ ঘোষণা করে মিন্নিকে জামিন দিয়েছেন আদালত। সে নারী এবং তার বাবার জিম্মায় থাকবেন, তাই তাকে জামিন দেওয়া হয়েছে। তবে এ জামিনের সে অপব্যবহার করবেন না এবং মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলতে পারবেন না। কিন্তু সে জামিনের শর্ত অপব্যবহার করে তাহলে বিচারিক আদালত তার জামিন বাতিল করতে পারবেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলেন, মিন্নির বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ ছিল। সে যে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছিলেন, সেখানে নিজেকে ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে সম্পৃক্ত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। নয়ন বন্ডের সঙ্গে মিন্নির ঘটনার আগে ও পরে ১৩ বার ফোনালাপও হয়েছে। যাই হোক, আদালত তবু তাকে জামিন দিয়েছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহীম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ তার জামিন মঞ্জুর করেন।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারোয়ার হোসাইন বাপ্পী।

জামিন প্রশ্নে জারি করা রুলের ওপর গতকাল বুধবার শুনানি শেষে আদালত রায়ের জন্য আজ বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেন। শুনানিতে মিন্নির পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট জেড আই খান পান্না ও মাক্কিয়া ফাতেমা ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারোয়ার হোসেন বাপ্পী ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল শাহানা পারভীন। অ্যামিকাস কিউরি হিসেবে সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মনসুরুল হক চৌধুরী বক্তব্য দেন। এ সময় মামলার সিডিসহ তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক হুমায়ুন কবির আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মিন্নিকে নিয়ে বরগুনা সরকারি কলেজ থেকে ফেরার পথে প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করে নয়ন বন্ড, রিফাত ফরাজীসহ একদল যুবক। ঘটনায় পরদিন রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামি করে বরগুনা সদর থানায় মামলা করেন। মিন্নি সেই মামলার এক নম্বর সাক্ষী থাকলেও পুলিশ গত ১৬ জুলাই রাতে মিন্নিকে গ্রেপ্তার দেখায়। 

Ads
Ads