সাকিবের সাথে দ্বন্দ্ব নিয়ে এবার মুখ খুললেন মাহমুদউল্লাহ

  • ১৮-Aug-২০১৯ ০৬:১৮ অপরাহ্ন
Ads

:: স্পোর্টস ডেস্ক ::

চোট কাটিয়ে পুরোপুরি ফিট এখন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। কাঁধের ব্যথা থেকে মুক্তি মিলেছে। রোববার (১৮ আগস্ট) মিরপুরের একাডেমি মাঠের নেটে দুই সেশন ব্যাটিং করার পর অস্বস্তি ছাড়াই বোলিং করলেন পাঁচ ওভার। পরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে দিলেন নানা প্রশ্নের উত্তর। উঠে এল অপ্রিয় একটি প্রসঙ্গও।

মাহমুদউল্লাহ চাইলে এড়িয়ে যেতে পারতেন। সে ‘সুযোগ’ রেখেছিলেন প্রশ্নকর্তা। তবে ভুল বোঝাবুঝি যেন ডালপালা মেলতে না পারে সেটি ভেবেই জবাব দিয়েছেন তিনি। সতীর্থ ক্রিকেটারদের সঙ্গে কোনো ঝামেলা নেই সে দাবী করেছেন।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেছেন, ‘চাইলে আপনারা ড্রেসিংরুমে আসতে পারেন, আমরা কীভাবে একজন আরেকজনের সঙ্গে কথা বলি। একজন আরেকজনের সঙ্গে কতটুক মজা করি, কত ভালোভাবে সময় কাটাই দেখতে।’

বাংলাদেশ দলের সিনিয়র এ ক্রিকেটারের দাবী, কোনো ক্রিকেটারের সঙ্গেই ঝামেলা নেই তার। জানান, জুনিয়র-সিনিয়র মিলে বাংলাদেশের ড্রেসিংরুম সুখী একটি পরিবার।

‘আমার মনে হয় ওই ধরণের ব্যাপার নিয়ে কথা না বলাই ভালো। কিছু কিছু জিনিস যেভাবে উপস্থাপন (সংবাদ) করা হয়েছে, ওভাবে সম্ভবত জিনিসটা হয়নি বা উপস্থাপনটা ভিন্নভাবে হতে পারত। আমি শুধু এতটুকুই বলতে চাই। মনে হয় না আমার সঙ্গে কোনো টিমমেটের গণ্ডগোল বা কোনো কিছু আছে। আমরা খুব ভালো বন্ধু। ড্রেসিংরুমে চাইলে আপনারা আসতে পারেন। আমরা কীভাবে একজন আরেকজনের সঙ্গে কথা বলি। একজন আরেকজনের সঙ্গে কতটুক মজা করি, কত ভালোভাবে সময় কাটাই।’

‘আপনাদের ওয়েলকাম জানাই, চাইলে এসে দেখতে পারেন। ছোট হোক বড় হোক আমরা কতটা ভালোভাবে থাকি। আমি শতভাগ চেষ্টা করে যাচ্ছি যেন সবার সঙ্গে ভালোভাবে থাকতে পারি এবং টিমের জন্য ভালো খেলতে পারি। সবসময় এ কথাটা বলি এবং আজও এটি বললাম, ভবিষ্যতেও বলব যদি সবকিছু ঠিক থাকে।

এদিকে আজ (রোববার) নিজের ফেসবুজ ভেরিফায়েড পেজে মাহমুদউল্লাহ এক ভিডিওবার্তায় বলেন, ‘আশা করি সবাই ভালো আছেন। কিছুক্ষণ আগে অনলাইন নিউজে একটা খবর দেখলাম যে, সাকিবের সাথে ড্রেসিংরুমের ঘটনাটাকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আসলে সাকিবের সাথে আমার কোনো ধরনের দ্বন্দ্ব বা সমস্যা কিছুই হয়নি। আমরা অনেক দিন ধরেই একসাথে খেলছি। আমরা খুবই ভালো টিমমেট ছিলাম, এখনও আছি, ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতেও থাকব।’

‘আমার মনে হয় এটা মিথ্যা একটা কথা যে, সাকিবের সাথে আমার কোনো রকমের ইস্যু হয়েছে। এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এ জিনিসটা আমার মনে হয়েছে পরিষ্কার করা প্রয়োজন। এজন্যই আমার এই ভিডিওটা পাঠানো। সামনে আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ খেলা আছে। সবার জন্য দোয়া করবেন যেন আমরা বাংলাদেশের হয়ে ভালো খেলতে পারি। আসসালামু আলাইকুম।’

উল্লেখ্য, ঘটনাটা ছড়ায় বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচের পর। ওই ম্যাচে ৩৮৭ রানের পাহাড়সম সংগ্রহ তাড়া করতে নেমে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি তুলে নেন সাকিব আল হাসান। একটা সময় তার সঙ্গী হিসেবে ক্রিজে ছিলেন মাহমুদউল্লাহ। শেষ ২০ ওভারে বাংলাদেশের দরকার ছিল ১৯০ রানের মতো।

সাকিব নাকি এ সময় মাহমুদউল্লাহকে চালিয়ে খেলতে বলেছিলেন। কিন্তু মাহমুদউল্লাহ নিজের মর্জিমতো ধীরে এগোতে থাকেন। শেষ পর্যন্ত ৪১ বলে ২৮ রান করে সাজঘরে ফিরতে হয় এই অলরাউন্ডারকে।

মাহমুদউল্লাহর এমন ব্যাটিং দেখে নাকি খেপে গিয়েছিলেন সাকিব। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকে বলেছিলেন, পরের ম্যাচ থেকে যেন মাহমুদউল্লাহকে আর একাদশে রাখা না হয়। এ নিয়েই ড্রেসিংরুমে একচোট হয়ে গিয়েছিল সাকিব-মাহমুদউল্লাহর। যদিও এসবই বাতাসের গুঞ্জন। তাতে রস ঢেলেছে ভারতীয় এক অনলাইন পত্রিকা। বাংলাদেশের অনেক নিউজ পোর্টাল একে চটকদার আইটেম বানিয়েছে।

Ads
Ads