যে ভাবে এক কক্ষে দুই বোনকে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করে

  • ২২-Jun-২০১৯ ০৯:০৬ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

প্রেমের ফাঁদে ফেলে অপহরণ করা হয় দুই চাচাতো বোনকে। পরে একই কক্ষে বিশ দিন যাবৎ আটকে রেখে দুই বোনকে একাধিকবার ধর্ষণ করে দুই ধর্ষক। সিদ্ধিরগঞ্জের আইয়ুব নগর এলাকা থেকে ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রী ও তার চাচাতো বোনকে কৌশলে অপহরনের পর এ ঘটনা ঘটায় দুই বন্ধু।

শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে ফতুল্লা থানাধীন গিরিধারা এলাকার জনৈক সেলিনা আক্তারের বাসা থেকে অপহৃত দুই কিশোরিকে উদ্ধার করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক হাফিজুর রহমান। এসময় সেখান থেকে গ্রেফতার করা হয় অপহরণকারী ও ধর্ষক আল-আমিন (২২) ও তার বন্ধু রিয়াদ (২৫) কে।

এর আগে ২১ জুন ধর্ষিতার বাবা সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মেয়ে নিখোঁজ সংক্রান্তে একটি সাধারণ ডায়রী করেন।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, ২ জুন বিকাল সাড়ে ৩ টায় সিদ্ধিরগঞ্জের আইয়ুবনগর এলাকা থেকে দুই চাচাতো বোনকে অপহরণ করে আল-আমিন ও তার বন্ধু রিয়াদ। পরে তাদেরকে ফতুল্লা থানাধীন গিরিধারা এলাকার জনৈক সেলিনা আক্তারের বাসায় নিয়ে যায় ঐ দুই বন্ধু। ঐ বাসার এক কক্ষেই দুই কিশোরি বোনকে নিয়ে রাত্রি যাপন করতে থাকে এবং দুই বন্ধু মিলে জোরপূর্বক প্রতিদিন অসংখ্যবার তাদেরকে ধর্ষণ করে বলে উল্লেখ করা হয় মামলায়।

এদিকে উভয় কিশোরীর স্বজনরা অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ২১ জুন এক অপহৃতার বাবা সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করে। ঐ ডায়রীর সূত্র ধরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক হাফিজুর রহমান রাতেই ফতুল্লা থানাধীন গিরিধারা এলাকায় জনৈক সেলিনা আক্তারের বাসায় অভিযান চালিয়ে অহহৃতাদের উদ্ধার সহ অপহরণকারী দুই বন্ধু তথা ধর্ষককে গ্রেফতার করে।

ধৃত ধর্ষক আল-আমিনের পিতার নাম বাদল। ধর্ষক রিয়াদের পিতার নাম আজিজ হোসেন। তদের বাড়ি ভোলার চরফ্যাশন থানার কুলসুমবাগ এলাকায়।

শনিবার (২২ জুন) দুপুরে তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম মিয়া।

 

/কে 

Ads
Ads