লজ্জাজনক হারের পর সরফরাজের ভুঁড়ি নিয়ে একি বললেন শোয়েব!

  • ৩-Jun-২০১৯ ১০:৪৩ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: স্পোর্টস ডেস্ক ::

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের লজ্জাজনক হারে সমালোচনার ঝড় বইছে ক্রিকেটাঙ্গনে। খোদ পাকিস্তান দলের সাবেক ক্রিকেটারদের অনেকেই সমালোচনা মুখর হয়ে উঠেছে।

শুক্রবার নটিংহামের ট্রেন্ট ব্রিজে ওয়েস্ট উইন্ডিজের কাছে ধরাশায়ী হয় সরফরাজ আহমেদের পাকিস্তান। দলের এমন হারে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে সমালোচনা করেছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস-খ্যাত পাকিস্তানের সাবেক গতি মানব শোয়েব আখতার।

তিনি অধিনায়কের ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন তুলে এই সাবেক গতিদানব এক সাক্ষাৎকারে বলেন, 'সরফরাজ যখন টস করতে আসে তখন তার ভুঁড়ি বের হয়ে যাচ্ছিল এবং তাকে ভীষণ মোটা লাগছিল! এই প্রথমবার পাকিস্তানের কোনো অধিনায়ককে দেখলাম যে পুরোপুরি আনফিট! ম্যাচের মাঝে সে নড়াচড়া করতে পারছিল না; উইকেটের পেছনে নিজের কাজটাও ঠিকঠাক করতে পারছিল না। দল নির্বাচনেও তার সিন্ধান্ত ঠিক হচ্ছে না।'

পাকিস্তানের এমন হারে কষ্টের কথা উল্লেখ করে শোয়েব বলেন, 'পাকিস্তান বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ বাজে খেলেছে। খেলায় কোনো উৎসাহ ছিল না। খেলোয়াড়দের মধ্যে একাত্বতার অভাব ছিল। খেলা দেখে মনে হচ্ছিল কোনো সাধারণ ম্যাচ হচ্ছে। অতীতে আমরা কম রানে আউট হয়েছি। তবে এমন দায়িত্ববোধের অভাব দেখিনি। আমার কাছে মনে হয়নি তারা গুরুত্বের সাথে খেলছে। আমি জানি সর্মথকরা কী চায়। কিছু বলছিনা, কারণ এটি পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচ ছিল। পাকিস্তানের হারে খুবই কষ্ট পেয়েছি।'

ম্যাচের পর পর শোয়েব টুইট করে লিখেছিলেন, ‌‌'বাকরুদ্ধ'। পরে অবশ্য তিনি দ্বিতীয় টুইটে পাকিস্তানের সমর্থনে পাশে দাঁড়িয়েছেন। লিখেছেন, 'খেলা শেষ হয়ে গেছে। আমার আবেগ আর ভাবনা থেকেই বলছি। ছেলেগুলোকে সমর্থন করতে হবে। তারা আমাদের দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করছে। পুরো বিশ্বকাপেই আমাদের সমর্থন প্রয়োজন ওদের।'

শুক্রবারের ম্যাচে ক্যারিবীয় গতির কাছে পাকিস্তানের ব্যাটিং অসহায় আত্মসমর্পণ করে। মাত্র ১০৫ রানে ইনিংস গুটিয়ে যায় পাকিস্তানের। ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপের পাকিস্তানের সর্বনিম্ন সংগ্রহ ৭৪ রান।

Ads
Ads