শ্রমিকের কল্যাণেই কারখানার কল্যাণ: বিজিএমইএ সভাপতি ড. রুবানা হক

  • ৫-মে-২০১৯ ০৮:৫৭ অপরাহ্ন
Ads

:: শ্রীপুর প্রতিনিধি ::

“ঈদের আগে শ্রমিকদের বেতন বোনাস দিয়ে দিবেন। শ্রমিকের শ্রম নিয়ে কোন প্রকার ব্যবসা করবেন না। কারখানার ব্যবসা নিয়ে কোন বিবাদ করবেন না। শ্রমিকদের অধিকার রক্ষা করা আপনার আমার দায়িত্ব। নারী শ্রমিকদের মানসিক ভাবে প্রস্তুত করতে হবে। তাদেরকে তৈরি করতে হবে। নারীদের অংশগ্রহন করাতে না পারলে অনেক লাভ নষ্ট হয়। নারীদেরকে নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। প্রত্যেকের ঘরে ঘরে যেন একজন করে শেখ হাসিনা জন্ম নেয়। নারীকে ইজ্জত দিতে হবে।

নারীরা অনেক মমতাময়ী। শ্রমিকের দারিদ্র নিয়ে যারা বানিজ্য করেন তাদেরকে সহ্য করব না। শ্রমিক মালিকের মাঝখানে তৃতীয় পক্ষ যাতে দাঁড়াতে না পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। শ্রমিকের কল্যাণ হলে কারখানার কল্যাণ হবে। শ্রমিকের কল্যাণ নষ্ট হলে কারখানা টিকবে না” ৫ মে রবিবার বিকেলে পৌর এলাকার ভাংনাহাটি গ্রামের গ্রীন ভিউ রিসোর্টে গাজীপুর জেলা পুলিশের আয়োজেন শিল্প কারখানার নিরাপত্তা ও সার্বিক আইন শৃঙ্খলা বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় সভায় বিজিএমইএর সভাপতি ড. রুবানা হক এসব কথা বলেন।

গাজীপুর জেলা পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার পিপিএম এর সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএর সভাপতি ডা: রুবানা হক। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বিজিএমইএর সিনিয়র জয়েন্ট সেক্রেটারী মো: মোয়াজ্জেম হোসেন, মাহফুজুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: রাসেল, গোলাম সবুর, নন্দিতা প্রমূখ। মত বিনিময় সভায় উপজেলার শিল্পকারখানার মালিক ও তাদের প্রতিনিধিরা উন্মুক্ত আলোচনাসহ সমস্যার কথা বলেন। 

গাজীপুর জেলা পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার পিপিএম জানান, প্রত্যেকটি কারখানার শ্রমিকদের বেতন ভাতা ঈদের আগে পরিশোধ করতে হবে। কারখানার শ্রমিকদের বেতন দিতে কোন কর্তৃপক্ষ গড়িমশি করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। শ্রমিক-মালিক সম্পর্ক বজায় থাকলে কোন কারখানায় অসন্তোষ সৃষ্টি হবে না। 

Ads
Ads