সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

শিরোনাম: বিএনপির সমাবেশকে ঘিরে পরিবহন ধর্মঘট না ডাকার আহ্বান কাদেরের    শতভাগ পাস ২৯৭৫ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে, ৫০টিতে সবাই ফেল    সংঘাত-দুর্যোগের সময় নারীদের দুর্দশা বহুগুণ বেড়ে যায়: প্রধানমন্ত্রী    এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেলো ২ লাখ ৬৯ হাজার শিক্ষার্থী    এসএসসি ও সমমানে পাসের হার ৮৭.৪৪ শতাংশ    এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ    বিশ্বে একদিনে করোনায় আক্রান্ত সাড়ে ২ লাখ   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
আমাদের বাবা একজন মুক্তিযুদ্ধা
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রকাশ: শনিবার, ৫ মার্চ, ২০২২, ৬:৩৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে যুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন লাখো মুক্তিপাগল বাঙালি। ৩০ লাখ শহীদের তাজা রক্ত আর ২ লাখ মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে বিশ্বের মানচিত্রে যুক্ত হয় নতুন এক রাষ্ট্র 'বাংলাদেশ'। দীর্ঘ নয় মাস মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় ঘটেছে অসংখ্য লোমহর্ষক ঘটনা। এমনই এক ঘটনা নিয়ে লেখক ফয়সল আলম লেখেছেন  অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২২ এ এবারের বই মুক্তিযোদ্ধা আব্দুন নূর এর  মুক্তি সংগ্রামী এক বীরের গল্প।

একাত্তরে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেওয়া টগবগে তরুণ আব্দুন নূর আজ বৃদ্ধ। আবার অনেক মুক্তিযুদ্ধারা বেঁচেও নেই। রয়ে গেছে তাঁদের গৌরবের ইতিহাস এবং যোগ্য উত্তরসূরি। মুক্তিযুদ্ধা  আব্দুন নূরের সহধর্মিনী ফয়জুন নেছা,দুই ছেলে মোহাইমিন পারভেছ ও ফয়ছল,দুই মেয়ে লেখক নুরজাহান শিল্পী এবং মুন্নি। দুই ভাই ও লেখক নুরজাহান শিল্পী থাকেন লন্ডনে আর এক মেয়ে মুন্নি কে নিয়ে মুক্তিযুদ্ধা আব্দুন নূর থাকেন বাংলাদেশে।

মুক্তিযুদ্ধা আব্দুন নূর এর ছেলে মেয়েরা বলেন ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি বাহিনী নিরীহ বাঙালির ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। হত্যা-খুন-নির্যাতনে স্তব্ধ হয়ে যায় গোটা দেশ। আমাদের বাবা তখন টগবগে তরুণ। পাকিস্তানের এই নির্মমতার বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ হতে থাকেন তিনি। ভেতরে-ভেতরে স্বপ্ন রচনা করেন। স্বপ্ন দেখেন সোনার বাংলার। আর বাংলাকে স্বাধীন করতে যোগ দেন মুক্তিসংগ্রামে।  আমাদের বাবা তখন জীবনকে তুচ্ছজ্ঞান করে ঝাঁপিয়ে পড়েন সংগ্রামে। নয় মাস সংগ্রাম শেষে ওঠে সোনালি সূর্য। জন্ম নেয় স্বাধীন বাংলাদেশ।
শিশু বয়সে বাবার মুখে অনেক মুক্তিসংগ্রামের কথা শুনেছি। তখন অত কিছু বুঝতাম না। গল্পের মতো মনে হলেও চোখে জল এসে যেত। ভেতরে-ভেতরে স্বাধীনতাবিরোধীদের প্রতি ক্ষোভ ও ঘৃণা জন্ম নেয়। আমাদের বাবা এবং মুক্তিকামী বাঙালির ত্যাগ আমাদের এনে দিয়েছে স্বাধীনতা। লাল-সবুজের পতাকা। এ রকম একজন গর্বিত বাবার সস্তান আমরা। গর্ব এবং অহংকার করে বলতে পারি, আমাদের বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা। এই গর্ব ও অহংকার নিয়ে সামনে যেতে চাই। বাবার অর্জন, স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমরা হতে চাই নতুন প্রজন্মের মুক্তিযোদ্ধা। চাই বাবার মতো ভালো মানুষ হতে। চাই দেশের কল্যাণে কাজ করতে। চাই বাবার দেওয়া সম্মান অক্ষুণ্ন রাখতে। বাবার মতো সবটুকু সামর্থ্য দিয়ে দেশকে ভালোবাসতে চাই।

মুক্তিযুদ্ধা  আব্দুন নূর এর  মুক্তি সংগ্রামী এক বীরের গল্প বইটি মৌলভীবাজার পৌরসভার কনফারেন্স হল রুমে আগামী ৬ মার্চ রবিবার সন্ধ্যা ৬ টায় মোড়ক উনম্মোচন  হবে।  বাংলা ভাষী মিডিয়ার আয়োজনে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন  মৌলভীবাজার ৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, বিশেষ অতিথি থাকবেন পৌর মেয়র মোঃ ফজলুর রহমান।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/dd.jpg
http://dailyvorerpata.com/ad/apon.jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]