শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১ ৫ কার্তিক ১৪২৮

শিরোনাম: কুমিল্লার ঘটনায় অভিযুক্ত ইকবাল সন্দেহে একজন আটক    হেসে-খেলেই সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ    পাপুয়া নিউ গিনিকে ১৮২ রানের চ্যালেঞ্জ    করোনায় একদিনে আরও ১০ জনের মৃত্যু    বদরুন্নেসার সেই শিক্ষিকা দুই দিনের রিমান্ডে    ফেসবুক লাইভে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড    টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
খেলাপি ঋণে ঝুঁকিতে আর্থিক প্রতিষ্ঠান
সুশাসন ছাড়া কোন খাতই এগোতে পারে না :গভর্নর ফজলে কবীর। ৩৪ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৬টির অবস্থা খারাপের দিকে। এখাতের মোট খেলাপির ঋণের পরিমাণ ৬৩ শতাংশ। ৫ আর্থিক প্রতিষ্ঠানের খেলাপির পরিমাণ ৮০ থেকে ৯৫ শতাংশ। সুশাসনের কারণে দেশে দুর্নীতি বাড়ছে।
রমজান আলী
প্রকাশ: শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:২২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

অনিয়ম, দুর্নীতি আর অব্যবস্থাপনায় ব্যাংকের পাশাপাশি ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানেরও অবস্থা নাজুক। নানা অনিয়ম করে বিতরণ করা ঋণ আদায় করতে পারছে না তারা। ব্যাংকের মত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোরও খেলাপি ঋণ ব্যাপক বাড়ছে। ফলে গ্রাহকের টাকা দিতে পারছে না আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, সুশাসনের অভাব রয়েছে। এখাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সবাইকে জবাবের আওতায় আনতে হবে। জবাবের আওতায় আসলে দুর্নীতি কম হবে। কারণ যখন দেখবে দুর্নীতি করলে শাস্তি ভোগ করতে হবে। তখন কেউ দুর্নীতি করবে না। 
বাংলাদেশ ব্যাংকের সূত্রে জানা যায়, ৩৪টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৬টির অবস্থা নাজুক। এর মধ্যে একেবারে নাজুক অবস্থায় রয়েছে ৫টি। এসব প্রতিষ্ঠানে খেলাপির হার ৮০ থেকে ৯৫ শতাংশ। গত জানুয়ারি থেকে মার্চ মাসের পরিসংখ্যানে এ তথ্য উঠে আসে। এছাড়া দীর্ঘদিন থেকে অনেকটাই দেউলিয়া হওয়ার পথে থাকা ৫ আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কোন পরিবর্তন নেই। এদের ঋণের বিতরণের ৮০ থেকে ৯৫ শতাংশ শতাংশই খেলাপি। যা ফেরত আসার কোন সম্ভবনা নেই। এসব প্রতিষ্ঠানের খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৫৬৯ কোটি ৮৭ লাখ টাকা। যা এ খাতের মোট খেলাপির ঋণের ৬৩ শতাংশ  এর মধ্যে বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানির (বিআইএফসি) খেলাপি ঋণ ৯৫ শতাংশ। 

ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের (এএফএএস) ৮৮ শতাংশ, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের (ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের (আইএলএফএসএল) ৭৫ শতাংশ, ফারইস্ট ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের ৫১ শতাংশ এবং প্রিমিয়ার লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেডের প্রায় ৪৯ শতাংশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত মাইডাস ফাইন্যান্সের খেলাপি ঋণ ৩০২ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। অথচ তিন মাস আগেও (ডিসেম্বর) প্রতিষ্ঠানটির খেলাপি ছিল মাত্র ৯৫ কোটি টাকা। সে হিসাবে তিন মাসের ব্যবধানে খেলাপি বেড়েছে ২০৭ কোটি টাকা ২১ শতাংশ। ডিসেম্বর শেষে মাইডাস ফাইন্যান্সের খেলাপির হার ছিল বিতরণ করা ঋণের ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ। অথচ মার্চে তা বেড়ে হয়েছে ৩১ দশমিক ২২ শতাংশ।

এ ব্যাপারে উত্তরা ফাইন্যান্স ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামসুল আলমের কাছে তাদের খেলাপি ঋণের পরিমাণ জানতে চাইলে বলেছেন, যে অল্প কয়েক দিনের মধ্যে, এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ব্যাংক একটি রিপোর্ট দিবে। তখন আমরা এর উপর বৃত্তি করে খেলাপি থেকে শুরু করে আয়-ব্যয়সহ সব ধরনের তথ্য দিতে পারবো। তবে ‘করোনা পরিস্থিতির কারণে কিছুটা খেলাপি বাড়তে পারে। তবে তিনি আশা করছি, আগামী জুন প্রান্তিকে ঋণ আদায়ের মাধ্যমে এ পরিস্থিতির উন্নতি হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে আরও দেখা যায়, চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত আভিভা ফাইন্যান্সের খেলাপি ১৬ দশমিক ১৩ শতাংশ, সিভিসিএফএল ১৬ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ, ফার্স্ট ফাইন্যান্স ৩১ দশমিক ২৫ শতাংশ, জিএসপি ফাইন্যান্স ১৭ দশমিক ২৬ শতাংশ, হজ ফাইন্যান্স ১৩ দশমিক ৭২ শতাংশ, আইআইডিএফসি ২৪ দশমিক ৪৪ শতাংশ, ন্যাশনাল ফাইন্যান্স ২৬ দশমিক ১১ শতাংশ, প্রাইম ফাইন্যান্স ১৪ দশমিক ৭৫ শতাংশ, উত্তরা ফাইন্যান্স ১৫ দশমিক ৩৩ শতাংশ এবং ইউনিয়ন ক্যাপিটালের খেলাপি ১০ দশমিক ৮৫ শতাংশ। গত মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে শীর্ষ করদাতা প্রতিষ্ঠানের সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবীর বলেন, সুশাসনের উন্নতির মাধ্যমে আর্থিক খাতের অবদান আরো বাড়ানো সম্ভব। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ খাত। সুশাসন ছাড়া কোন খাতেই আগাতে পারে না। তাই সবার আগে দরকার সুশাসন। সুশাসনের ব্যাপারে আমরা সব সময় সো””ার। দেশের আর্থিক খাতে সুশাসনের মাধ্যমে আরো উন্নতি করতে হবে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেন, ঝুঁকি সহনশীলের সক্ষমতার ভিত্তিতে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে তিন ভাগে চিহ্নিত করা হয়। যারা উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থানে রয়েছে তাদের রেড জোনে রাখা হয়। এসব প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিবিড় পর্যবেক্ষণে থাকে। 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Comp 1_3.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]