রোববার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ৪ আশ্বিন ১৪২৮

শিরোনাম: ই-কমার্স গ্রাহকদের নিয়ে পরামর্শ দিলেন হাইকোর্ট    আদালতে জেমস    খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরও বাড়ল    জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান হলেন শাফিন আহমেদ    বিএনপি দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে: ওবায়দুল কাদের    ইভ্যালির রাসেল দম্পতির বিরুদ্ধে আরেক মামলা    ডিআইজি প্রিজন্স পার্থ গোপাল কারাগারে   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
একজন দূরদর্শী, সাহসী মানুষ ছিলেন শেখ কামাল: লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট, ২০২১, ১১:৫৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামাল তাঁর সংক্ষিপ্ত জীবনে অপূর্ব প্রাণশক্তিতে ভরপুর থেকে এক দুরন্ত তারুণ্যে নেতৃত্ব দিয়েছেন ক্রীড়া, সংস্কৃতিসহ সব অঙ্গনে। একজন দূরদর্শী, সাহসী মানুষ হিসেবে সে জানতো যে একসময় আমাদেরকে একটা যুদ্ধের মাধ্যমে পাকিস্তান থেকে আমাদের স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনতে হবে। তিনি আমাদের জাতির জন্য যতটুকু দিতে দিয়েছেন, তাঁর এই অল্প বয়সে নৃশংসভাবে হত্যাকাণ্ডে শিকার হওয়ার জন্য আমরা জাতি হিসেবে সেটা থেকে বঞ্চিত হয়েছি।

দৈনিক ভোরের পাতার নিয়মিত আয়োজন ভোরের পাতা সংলাপের ৪২২তম পর্বে বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) আলোচক হিসেবে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন- সাবেক বাণিজ্য মন্ত্রী, সাবেক বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান এমপি, সংসদ সদস্য, স্বাস্থ্য সুরক্ষা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেডক্রস এন্ড রেডক্রিসেন্ট সোসাইটিজের গভনিংবডি সদস্য, অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক, স্বাধীন বাংলার জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রথম দলনেতা রকিবুল হাসান, জার্মান আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, বাংলাদেশ জাতীয় শ্রমিক লীগের সাবেক আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ আহমেদ সেলিম। দৈনিক ভোরের পাতা সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসানের পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাবেক তথ্য সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদ।

লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান বলেন, আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই ভোরের পাতাকে আজকে আমাদের বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামালের ৭২তম জন্মদিন উপলক্ষে এই আলোচনার আয়োজন করেছেন এবং একই সঙ্গে আজকের আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দকে। শেখ কামাল সম্পর্কে কিছু বলার আগে আমি কিছু কথা বলতে চাই শুরুতে যে, আমরা যখন আজকে এই আলোচনা করছি এই আলোচনার সময়কালে আমরা মুজিববর্ষ পালন করছি, আমাদের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছি। তাই আমি সবার আগে গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ও তাঁর আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি, ১৫ আগস্টের কালোরাতে বঙ্গবন্ধু মুজিবুর রহমান, পুত্র শেখ কামাল, শেখ জামালসহ সকলকে এবং তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। আজকের দিনটিতে আমাদের কামালকে নিয়ে আলোচনা করলে অবশ্যই স্বাভাবিক ভাবেই সেই দিনের কথা মনে পড়ে যায়, যখন আমরা ঢাকা কলেজে ১৯৬৬-৬৭’র সময় একসাথে পড়তাম। যদিও কামাল আমার থেকে এক বছরের জুনিয়র ছিল আমি ১৯৬৬ সালে এসএসসি পাস করে ঢাকা কলেজে ভর্তি হই ও ১৯৬৭ সালে শেখ কামাল ভর্তি হয়। বঙ্গবন্ধুর সন্তান বলেই কথা নয়, শেখ কামাল প্রচণ্ড ধরনের একজন হাস্যোজ্জ্বল মানুষ ছিলেন। আমি তখনকার কথা বলছি যখন তার বয়স আঠারো বছর। আমার মনে আছে যখন ঢাকা কলেজের ক্যান্টিনে সে প্রবেশ করতো তার সঙ্গে মিনিমাম ১০ থেকে ১৫ জন লোক থাকতো সবসময় তার সঙ্গে। ঢাকা কলেজের ক্যান্টিন তখন গরম হয়ে যেতো যে শেখ কামাল এসেছে। যেহেতু আমাকে সে তখন সম্পর্কে মামা বলে ডাকতো তখন অনেকবার এরকম হয়েছে যে, তার বন্ধুদেরকে সিঙ্গারা খাইয়ে চলে যাওয়ার সময় আমাকে বলত। ‘মামা, বিল দিয়ে দিও’। সে একজন ম্যান অফ স্প্রিট ছিল। সে সাহায্য করছে, চিন্তা করছে, দেশের কথা বলছে, ছাত্রলীগের সাংগঠন নিয়ে কথা বলছে। সব সময় এর মধ্যেই থাকতো। তার সঙ্গে বিভিন্ন সময় আমি তখন ঢাকা কলেজের ইউওটিসি ছিলাম। তখন ছিল ইউনিভার্সিটি অফিসারস ট্রেনিং কোর যেটাকে এখন বলা হয় বিএনসিসি বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর। আমি ঢাকা কলেজের ইউওটিসির প্রধান ছিলাম। তো কামাল আমাকে সবসময় বলতো, তুমি তো আর্মিতে যাবা, সেখানে ভালো করে ট্রেনিং নিয়ে আসো, আমাদের সামনে ট্রেনিং লাগবে। আমি এই কথাটা এইজন্যই বললাম যে, একজন দূরদর্শী, সাহসী মানুষ হিসেবে সে জানতো যে একসময় আমাদেরকে একটা যুদ্ধের মাধ্যমে পাকিস্তান থেকে আমাদেরকে আমাদের স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনতে হবে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও সংবাদ   বিষয়:  ভোরের পাতা সংলাপ   লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]