শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯

শিরোনাম: 'বিএনপিকে কিভাবে গর্তে ঢোকাতে হয় তা জানা আছে'    আরও ৯২ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে    বিশ্বকাপ পর্যন্ত অধিনায়ক সাকিব    আলোচনায় বসলেন পাপন-সাকিব    জেআরসি বৈঠকে ৬ নদীর বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী    দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে আরেক ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ২    পারিবারিক বিরোধে গুলি, বন্দুকধারীসহ নিহত ১১   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
রিক্শার দখলে রাজধানী
মো.শাহাদাত হোসেন নিশাদ
প্রকাশ: শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১, ৮:১২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

এক সময় যে রাজধানী জুড়ে থাকতো বাসের হর্ণ আর গাড়ীর তিব্র যানজট সেই রাজধানী এখন আগের চেয়ে অনেক শুনসান। নেই বাসের  হেলপারদের সেই চিরচেনা ডাক “ এই মামা কোই যাবেন- শাহবাগ-পল্টন,গুলিস্তান”। নগর জুড়ে এখন অনেকটাই ফাঁকা রাস্তা বিরাজ করছে দেশের এই চলমান কঠোর লকডাউনে। দেখা মিলছে না কোন গণপরিবহনের। যে কয়েকটি প্রাইভেট কার চলে তাও অনেকটা জবাবদিহিতার মাঝেই রাস্তায় বের হতে হয়। 

তবে কঠোর লকডাউনের এই সময়ে নিরবেই রাজধানী দখলে নিয়েছে রিকশা। একক আধিপত্ব বিস্তার করে রাজধানী দখলে নিয়ে পেলেছে রিক্সা। চলমান কঠোর এই লকডাউনে গণপরিহন বন্ধ থাকায় মানুষের এখন একমাত্র চলাচলের সম্ভল হিসেবে দাঁড়িয়েছে এই রিকশা। যার কারনে এখন বলায় চলে রাজধানী এখন রিকশার দখলে। তবে এই দখলের মাঝেও সাধারণ যাত্রীদের অভিযোগ একক আধিপত্ব বিস্তারের কারণে রিকশায় চলতে এখন দ্বিগুণ ভাড়া গুণতে হচ্ছে। 

যাত্রীদের অভিযোগ, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই রিকশাচালকরা স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় এখন দ্বিগুণ বা তারও বেশি ভাড়া আদায় করছেন। কর্মক্ষেত্রে যেতে যাত্রীরা রিকশাচালকদের বাড়তি ভাড়া দিতে বাধ্য হচ্ছেন।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে যাত্রীদেও এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাড্ডা থেকে নতুন বাজার আসা শাহিন নামে এক যাত্রী জানান, আমি একটি বিমা কোম্পানীতে চাকুরী করি। আমার অফিস নতুন বাজার। লকডাউনের আগে ১০ টাকা দিয়ে নতুন বাজার যেতাম কিন্তু এখন রিকশা চলাচলের কারনে ৭০ টাকা ভাড়া চায়। প্রতিদিন ১৪০ টাকা ভাড়া দেওয়া আমাদের পক্ষে একেবারেই অসম্ভব হয়ে পড়েছে। 

মহাখালী থেকে মোকাররম হোসেন নামে এক যাত্রী বলেন, আমার অফিস উত্তরা। একটি বেসরকারি কোম্পানীতে চাকুরী করি। কঠোর লকডাউনে সরকার অফিস বন্ধ থাকার কথা থাকলেও আমাদের অফিস অর্ধেক লোকবল নিয়ে চালু রেখেছে। এমন পরিস্থিতিতে প্রতিদিন অফিসে যেতে হয়। কিন্তু মহাখালী থেকে উত্তরা রিকশা ভাড়া ২০০ টাকা চায়। যাওয়া আসায় ৪০০ টাকা চলে যায়। মাসে যে বেতন পাই তার পুরোটাই এখন রিকশা ভাড়ায় চলে যায়। 

শাহিদা আক্তার নামে এক পথচারী জানান, আজ আমার ভ্যাকসিন দেওয়ার তারিখ কুর্মিটোলা হাসপাতালে। এতক্ষণ ধরে অনেকগুলো রিক্সা দেখলাম কিন্তু কেউই ১০০ টাকার নিচে যেতে চাইছে না। 



তবে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার বিষয়ে অস্বিকার করলো রিকশা চালকরা। তাদের অভিযোগ লকডাউনের আগে তারা যে ২০ টাকা ৩০ টাকার ভাড়া টানতো তা অনেকটাই ভালো ছিলো।
নতুন বাজার থেকে করিম উল্লাহ নামে এক রিকশা চালক বলেন, নতুন বাজার থেকে পল্টনে ১৫০ টাকা রিকশা ভাড়া চাইলে মানুষ ১০০ টাকার বেশি দিতে চায় না অথচ নতুন বাজার থেকে পল্টন যে টুকু পথ তা যদি লকডাউনের আগে হলে অন্তত ৩০০ টাকার ভাড়ার পথ হতো। তাছাড়া অনেক সময় বিভিন্ন কারণে রাস্তায়ও পুলিশ ধরে। এর পরেও আমরা ঝুঁকি নিয়ে মানুষকে তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দিই কিন্তু তারা আমাদের ন্যায্য ভাড়া দিতেও কষ্ট হয়।

আবার বেশ কয়েকজন রিক্শা চালকের অভিযোগ আগে মানুষের চলাচল ছিলো বেশি তাই আমরা অনেক টাকা আয় করতে পারতাম কিন্তু এখন মানুষ কঠোর লকডাউনের কারনে রাস্তায় বের হতে চায় না। এখন প্রতিদিন ৩, ৩ টার বেশি ভাড়া মিলে না।  অফিস সময়ে কিছু যাত্রী পাওয়া যায়। কিন্তু বেশি ভাগ সময় বসে থাকতে হয়।

উল্লেখ্য করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গত ২৩ জুলাই থেকে ১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে। পরবর্তীতে ঈদে কিছুটা শিথিল করলেও পরবর্তীতে ২৩ জুলাই  ৫ আগস্ট পর্যন্ত নির্ধারণ করা এই বিধিনিষেধ। এই বিধি নিষেধের  মধ্যে ব্যাংক, বীমা ও শেয়ারবাজার খোলা রয়েছে। এর সঙ্গে কোরবানির পশুর চামড়া সংশ্লিষ্ট খাত, খাদ্যপণ্য এবং করোনা প্রতিরোধে পণ্য ও ওষুধ উৎপাদনকারী শিল্প বিধিনিষেধের বাইরে রয়েছে।

তবে সরকারি-বেসরকির অফিস, গার্মেন্টস-কলকারখানা ও রফতানিমুখী সবকিছু বন্ধ থাকায় এবার অন্যান্য বারের বিধিনিষেধের তুলনায় রাস্তায় মানুষের চলাচল তুলনামূলক কম। ফলে গাড়ি চলাচলও কম। কিছু ব্যক্তিগত গাড়ি ও মোটরসাইকেল চলাচল করলেও রাস্তায় চলাচলের এখন একমাত্র সম্বল রিকশা।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://dailyvorerpata.com/ad/apon.jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]