সোমবার ১৪ জুন ২০২১ ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

শিরোনাম: বিশ্ব রক্তদাতা দিবস আজ    অবশেষে নেতানিয়াহু যুগের অবসান    ধর্ষণ চেষ্টাকারীর নাম প্রকাশ করলেন পরিমনী    শেখ হাসিনার মুক্তিতেই বাংলাদেশ মুক্তি পেয়েছিল    ২৩৮ কোটি টাকায় মহাকাশে বেজোসের সঙ্গী হচ্ছেন এক রহস্যময় ব্যক্তি!    কিছু দেশ সারা পৃথিবীর ভাগ্য নির্ধারণ করবে, সেই যুগ শেষ: চীন    পরীমণিকে ধর্ষণ করলো কে?   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
কাশ্মীরি পণ্ডিতের সৎকারে এগিয়ে এলেন মুসলিমরা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১, ১২:০৭ এএম | অনলাইন সংস্করণ

পণ্ডিত মাখনলাল থাকতেন ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার তহাব এলাকায়। শুক্রবার গভীর রাতে যখন তিনি মারা যান, পরিবারের কেউ কাছে ছিল না। কারণ তিন মেয়ে ও দুই ছেলে। সবাই থাকেন জম্মুতে। কিন্তু স্বজনের অভাব হয়নি। 

খবর পেয়ে শনিবার প্রতিবেশী মুসলিমরাই এগিয়ে আসেন তার সৎকারে। কাঠ জোগাড় করে সাজানো হয় চিতা।

সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করা হয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া। প্রতিবেশীরা বলছেন, এটা তাদের কর্তব্য ছিল। ধর্ম যা-ই হোক না কেন, প্রতিবেশীর যত্ন নিতে শেখায় ইসলাম। তারা নিজেদের সেই ধর্মই পালন করেছেন।

১৯৯০ সালের অশান্ত কাশ্মীর থেকে কাশ্মীরি পণ্ডিতেরা ভিটেমাটি ছেড়ে পালিয়েছিলেন প্রাণ বাঁচাতে। কিন্তু মাখনলালের বিশ্বাস ছিল প্রতিবেশীদের ওপর। কখনোই উপত্যকা ছেড়ে যাননি তিনি। 



তার মামা রমেশ মালও রয়েছেন কাশ্মীরে। পুলওয়ামার চিফ মেডিক্যাল অফিসার তিনি। সাবেক বিএসএনএল কর্মী মাখনলাল ৭০ বছর বয়স পর্যন্ত নিশ্চিন্তে কাটিয়েছেন উপত্যকায়।

স্বল্প রোগভোগের পরে গত শুক্রবার রাতে মাখনলালের মৃত্যুর পরেও দেখা গেল, অন্য ধর্ম হওয়ায় স্বজন হয়ে উঠতে বাধা তৈরি হয়নি। বরং প্রতিবেশীর ধর্মই সবচেয়ে বড় হয়ে উঠেছে প্রবীণ এই কাশ্মীরি পণ্ডিতের অন্ত্যেষ্টির ক্ষেত্রে।


ভোরের পাতা/কে 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]