শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০ আশ্বিন ১৪২৮

শিরোনাম: আগামী জুনে পদ্মা সেতু চালু হবে: কাদের    বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ২৩ কোটি ১৮ লাখ    করোনা মোকাবিলায় জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ৬ প্রস্তাব    টিকার সমতা নিশ্চিত করতে মেধাসত্ত্বে ছাড় দিতে হবে: জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী    জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় ভাষণ দেওয়ার দিন আজ     বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করি: শিক্ষামন্ত্রী    কলেজের নামের সাথে ‘বিশ্ববিদ্যালয়’ শব্দ ব্যবহার না করার নির্দেশ   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
অরাজনৈতিক সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে উগ্ররাজনীতির চর্চা করছে হেফাজত: আতিয়ার রসুল কিটন
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২১, ১১:০৭ পিএম আপডেট: ২৭.০৪.২০২১ ১১:২৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

হেফাজত শুরু থেকে মানুষের সঙ্গে তাদের ধোঁকাবাজি কর্মকান্ড শুরু করেছিল। ২০০৯ সালে যখন আমাদের জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নারী নীতি ঘোষণা করেছিল তখন থেকে তাদের রাজনৈতিক কর্মকান্ড শুরু হয়। আসলে হেফাজত সংগঠনটা নতুন বোতলে পুরাতন মদ। জামায়াতে ইসলাম অনেক প্রাচীন একটা সংগঠন। এই সংগঠনের নতুন রূপ হচ্ছে হেফাজত। দেশের অগ্রযাত্রাকে প্রতিহত করতে এই মহল বিভিন্ন সময় মন্দচর্চা করেছে। 

দৈনিক ভোরের পাতার নিয়মিত আয়োজন ভোরের পাতা সংলাপের ৩২২তম পর্বে মঙ্গলবার আলোচক হিসেবে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপপ্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, ইতালি আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতিয়ার রসুল কিটন। দৈনিক ভোরের পাতা সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসানের পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ভোরের পাতার সিনিয়র রিপোর্টার উৎপল দাস।

আতিয়ার রসুল কিটন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার একটি হিন্দু অধ্যুষিত গ্রামে হেফাজতে ইসলামের সমর্থক কয়েক হাজার মানুষ হামলা করে ৮৮টি বাড়িঘর এবং ৭/৮টি পারিবারিক মন্দির ভাঙচুর করে এবং ব্যাপক লুটপাট চালায়। অগ্নিঝরা মার্চ মাসে এই সহিংসতার পর আমরা বিস্ময় নিয়ে দেখতে পাই ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এদেশে আসার ঘটনা নিয়ে সাম্প্রদায়িক শক্তির অপতৎপরতা। হেফাজতের যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের একজনও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন, তার প্রমাণ দিতে পারবেন না। উল্টো মুক্তিযুদ্ধের প্রত্যক্ষ বিরোধিতাকারী এবং তাদের সন্তানরাই এখন হেফাজতের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তারা নিজেদের প্রথম দিকে অরাজনৈতিক বলে দাবি করলেও তারা যেসব কার্যক্রমে অংশ নেন তা কেনোভাবেই রাজনীতি-নিরপেক্ষ নয়। হেফাজতের ভেতর এখন জামায়াতের মতো দুষ্ট রাজনৈতিক শক্তিরও অনুপ্রবেশ ঘটেছে। হেফাজতে ইসলামের বহুল আলোচিত নেতা মামুনুল হক এবং শিশুবক্তা মাদানীকে ধর্মীয় উগ্রবাদী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে ইতিমধ্যে। এরা দু’জনই এখন পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে বিচারের সম্মুখীন হয়েছে। এরা কখনো কখনো সাধারণ মানুষকে এলোপাতাড়ি মারধর, হত্যার উদ্দেশ্যে আঘাত করে গুরুতরভাবে জখম করেছে, হুমকি দেওয়া আর ধর্মীয় কাজে ইচ্ছাকৃতভাবে গোলযোগ সৃষ্টি ও প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ তো আছেই। এমনকি চুরি ও অপরের পরিবারের নারীদের অপদস্ত এবং প্রতারণার ঘটনার অভিযোগও আছে তাদের বিরুদ্ধে। ২০১৩ সালের ৫ মে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে হেফাজতের তা-বের সঙ্গেও সরাসরি সম্পর্ক রয়েছে। 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Comp 1_3.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]ilyvorerpata.com