শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ ১০ বৈশাখ ১৪২৮

শিরোনাম: শপিংমল ও দোকানপাট খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত    মুন্সিগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ধান কাটা কার্যক্রমের শুভ সূচনা    ৫৪১ রানে বাংলাদেশের ইনিংস ঘোষণা    বিএনপি ছাড়ছেন মির্জা আব্বাস দম্পত্তি!    ইলিয়াস আলী ইস্যু: মির্জা আব্বাসের বক্তব্যের ব্যাখ্যা চেয়েছে বিএনপি    পিআইবির ডিজি পদে ফের নিয়োগ পেলেন জাফর ওয়াজেদ    সাম্প্রদায়িক উগ্রগোষ্ঠীকে কঠোর হস্তে দমন করতে হবে: এম এ লিংকন মোল্লা   
করোনার টিকা নেওয়ার ১২ দিন পর ব্যবসায়ীর মৃত্যু
মাদারীপুর প্রতিনিধি
প্রকাশ: রোববার, ৭ মার্চ, ২০২১, ৪:৫৩ পিএম আপডেট: ০৭.০৩.২০২১ ৫:০৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

করোনার টিকা নেওয়ার ১২ দিন পর ব্যবসায়ীর মৃত্যু

করোনার টিকা নেওয়ার ১২ দিন পর ব্যবসায়ীর মৃত্যু

মাদারীপুরে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেয়ার পর উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন এক ব্যবসায়ী। ওই ব্যবসায়ী বিল্লাল সরদারের (৪৮) মৃত্যুতে পরিবারের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। নিহত বিল্লাল সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নের মধ্য পেয়ারপুর গ্রামের মৃত সুলতান সরদারের ছেলে এবং চরমুগরিয়া বন্দরের থাই ও এ্যালমুনিয়াম ব্যবসায়ী ছিলেন।

জানা যায়, নিয়ম অনুযায়ী রেজিষ্ট্রেশনের পর গত ২২ ফেব্রুয়ারি জেলা সদর হাসপাতালের করোনা ভাইরাস প্রতিরোধক ভ্যাকসিন (টিকা) গ্রহণ করেন ব্যবসায়ী বিল্লাল সরদার। তাকে টিকাপ্রদান করেন লতা নামের একজন স্বাস্থ্যকর্মী। পরদিন ২৩ ফেব্রুয়ারি তার শরীরে জ্বর দেখা দেয়। এতে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নেয়া শুরু করেন তিনি। ৪দিনেও জ্বর না কমলেও পরবর্তীতে গলা ব্যাথা, কাঁশি ও শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। একপর্যায়ে গত ০২ মার্চ শহরের বাবু চৌধুরী জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক টিএম সাহিন ইকবালের মাধ্যমে তিনি চিকিৎসাও নেন। অসুস্থ্যতার পরিমান বেড়ে গেলে তাকে ০৬ মার্চ জেলা সদর হাসপাতালে তাকে ভর্তি করেন পরিবারের লোকজন। অবস্থার অবনতি হলে শনিবার বিকেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতাল থেকে তাকে ঢাকায় নেয়ার পথে মারা যান বিল্লাল। পরে শনিবার রাত ১১টার দিকে পারিবারিক কবর স্থানে নিহত বিল্লালের জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন হয়। খবর পেয়ে রোববার সকালে সিভিল সার্জণ ডা. সফিকুল ইসলাম, বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার সার্ভিরেন্ট এ্যান্ড ইমোনাইজেশন মেডিকেল অফিসার (সিমু) ডা. বিকাশ চন্দ্র দাস, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর মাদারীপুরের সহকারী পরিচালক মহেশ্বর কুমার মন্ডল, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ইকরাম হোসেন, সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. এইচএম খলিলুজ্জামানসহ স্বাস্থ্য বিভাগের একাধিক কর্মকর্তা পরিবারের সাথে কথা বলেন।

নিহত বিল্লাল সরদারের ছেলে সাগর সরদার জানান, আমার বাবা টিকা নেয়ার পর অসুস্থত হলে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়। একপর্যায়ে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে মারা যান। কিন্তু কি কারনে বাবা মারা গেলে কিছুই বুঝতে পারছিনা।

সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. এইচএম খলিলুজ্জামান জানান, গত ০৫ মার্চ সদর হাসপাতাল থেকে বিল্লাল সরদারের করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ০৬ মার্চ করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। টিকা নেয়ার পর বিল্লাল সরদার মারা যাবার বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের একাধিক অভিজ্ঞ প্রতিনিধি কাজ করছে। তার অন্যকোন রোগ ছিল কিনা কিংবা অন্যকোন কারনে তার মৃত্যু হয়েছে কিনা সেগুলো নিয়ে অভিজ্ঞরা মাঠে কাজ শুরু করেছে।

মাদারীপুরের স্বাস্থ্য বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তা (সিভিল সার্জণ) ডা. সফিকুল ইসলাম বলেন, করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেয়ার পর প্রত্যেক ব্যক্তিকে ৩০ মিনিট হাসপাতালে বিশ্রামের জন্য রাখা হয়। যদি কারো ৩০ মিনিটের মধ্যে অসুবিধে হয় তাহলে নিয়ম মতে স্বাস্থ্যগত ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগ রয়েছে। বিল্লাল সরদার টিকা গ্রহণ করার পর উপসর্গ নিয়ে মারা যাবার বিষয়টি মাথায় নিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের একাধিক দল কাজ করছে। রিপোর্ট হাতে পেলে বিস্তারিত বলা যাবে।

মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়সহ স্বাস্থ্য বিভাগের উচ্চপর্যায়ে অবগত করা হবে। কি কারনে তিনি মারা গেলেন স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে পরীক্ষার পরে বলা যাবে।

ভোরের পাতা/পি

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও সংবাদ   বিষয়:  টিকা    ১২    ব্যবসায়ী   মৃত্যু  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  

সারাদেশ

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]