শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ ১০ বৈশাখ ১৪২৮

শিরোনাম: শপিংমল ও দোকানপাট খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত    মুন্সিগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ধান কাটা কার্যক্রমের শুভ সূচনা    ৫৪১ রানে বাংলাদেশের ইনিংস ঘোষণা    বিএনপি ছাড়ছেন মির্জা আব্বাস দম্পত্তি!    ইলিয়াস আলী ইস্যু: মির্জা আব্বাসের বক্তব্যের ব্যাখ্যা চেয়েছে বিএনপি    পিআইবির ডিজি পদে ফের নিয়োগ পেলেন জাফর ওয়াজেদ    সাম্প্রদায়িক উগ্রগোষ্ঠীকে কঠোর হস্তে দমন করতে হবে: এম এ লিংকন মোল্লা   
নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন শ্রেষ্ঠ ৫ জয়িতা
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ৭ মার্চ, ২০২১, ৩:০২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন শ্রেষ্ঠ ৫ জয়িতা

নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন শ্রেষ্ঠ ৫ জয়িতা

আগামীকাল সোমবার (৮ মার্চ) আন্তর্জাতিক নারী দিবসে সম্মাননা পাচ্ছেন জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ ৫ জন জয়িতা।

তারা হলেন- বরিশালের হাছিনা বেগম নীলা, বগুড়ার মিফতাহুল জান্নাত, পটুয়াখালীর মোসাম্মৎ হেলেন্নছা বেগম, টাঙ্গাইলের বীর মুক্তিযোদ্ধা রবিজান এবং নড়াইলের অঞ্জনা বালা বিশ্বাস।

রবিবার (৭ মার্চ) মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা তথ্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে পাঁচ জয়িতার নাম ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে ওই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে তাদের হাতে এক লাখ টাকার চেক, ক্রেষ্ট ও সনদ তুলে দেবেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধান অতিথি হিসেবে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বরিশাল বিভাগ থেকে সম্মাননা পাবেন বরিশাল জেলার হাছিনা বেগম নীলা, তিনি একজন সফল উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ী। শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে পাচ্ছেন বগুড়ার মিফতাহুল জান্নাত। সফল জননী হিসেবে সম্মাননা পাচ্ছেন বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালী জেলার মোছা. হেলেন্নেছা বেগম। তিনি তার ছয় ছেলে ও তিন মেয়ের সবাইকে উচ্চ শিক্ষিত করেছেন। তার বড় ছেলে অতিরিক্ত আইজিপি। মেজ ছেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও বিদেশে উচ্চ শিক্ষারত আছেন একজন। নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করার ক্ষেত্রে জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ জয়িতা টঙ্গাইলের রবিজান। তিনি স্বাধীনতার সময়ে নির্যাতিত বীর মুক্তিযোদ্ধা। সমাজ উন্নয়নে অবদান রাখার জন্য শ্রেষ্ঠ জয়িতা খুলনা বিভাগের নড়াইল জেলার অঞ্জনা বালা বিশ্বাস। তিনি দর্জি ও হাতের কাজের মাধ্যমে নারীদের স্বনির্ভর করে গড়ে তোলার জন্য ১৯৭৫ সালে মাতৃকেন্দ্র নামে একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছিলেন।

ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা আরও বলেন, বাংলাদেশের নারী উন্নয়নে অসামান্য অগ্রগতি, সমতা সৃষ্টি বৈষম্য হ্রাস, নরীর ক্ষমতায়ন, বল্যবিয়ে বন্ধ, সুরক্ষা, সব ধরনের সহিংসতা প্রতিরোধ এবং সচেতনতা সৃষ্টিতে এবারের নারী দিবস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ভোরের পাতা/ই

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও সংবাদ   বিষয়:  আন্তর্জাতিক নারী দিবস   সম্মাননা   শ্রেষ্ঠ ৫ জয়িতা  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  

সারাদেশ

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]