সোমবার ৮ মার্চ ২০২১ ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭

শিরোনাম: সংগ্রামী পাঁচ নারী পেলেন ‘জয়িতা’ পুরস্কার    খালেদার মুক্তির মেয়াদ আরও ৬ মাস বাড়ানোর সুপারিশ    গিনির সামরিক ঘাঁটিতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, নিহত ২০    গুগল ডুডলে বিশ্ব নারী দিবস    জেনে নিন বিশ্ব নারী দিবসের ইতিহাস    হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ফরাসি ধনকুবের এমপির মৃত্যু    'নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল'   
৯০ ভরি স্বর্ণ লুট: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা গ্রেপ্তার
প্রকাশ: বুধবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ১১:২১ এএম | অনলাইন সংস্করণ

৯০ ভরি স্বর্ণ লুট: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

৯০ ভরি স্বর্ণ লুট: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

এক ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে ৯০ ভরি ওজনের দুটি স্বর্ণের বার ছিনিয়ে নেওয়ার মামলায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একজন কর্মকর্তাসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) সাকিব হাসান ও তার দুই সহযোগীকে আদালতের নির্দেশে তিন দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

রিমান্ডে পাওয়া বাকি দুজন হলেন- মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সিপাহী আমিনুল এবং তাদের সহযোগী হারুন। আর গ্রেপ্তার বাকি দুজন হলেন- জীবন পাল ও রতন কুমার সেন।

ঢাকার কোতোয়ালি থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, মানিকগঞ্জের এক ব্যবসায়ীর করার মামলায় প্রথমে জীবন ও রতনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অপর তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জানা গেছে, এস এম সাকিব হোসেন ৩৪তম বিসিএসে নন-ক্যাডার কর্মকর্তা হিসেবে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে নিয়োগ পান। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন। যশোরের ছেলে সাকিব থাকতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হলে। তিনি হল শাখা ছাত্রলীগের পদে ছিলেন।

পুলিশ জানায়, মানিকগঞ্জের রড সিমেন্ট ব্যবসায়ী সিদ্দিকুর রহমান গত ১১ জানুয়ারি কোতয়ালি থানায় অজ্ঞাত পরিচয় তিনজনকে আসামি করে এই মামলা দায়ের করেন।

মামলায় তিনি বলেছেন, গত ৭ জানুয়ারি ঢাকায় এসে তাঁতীবাজারের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৬০ লাখ টাকা মূল্যের ৯০ ভরি ওজনের দুটি স্বর্ণের বার কেনেন। বারগুলো নিয়ে গাড়িতে উঠার সময় তিনজন ব্যক্তি নিজেদের পুলিশ সদস্য পরিচয় দিয়ে তাদের গাড়িতে জোরপূর্বক তুলে নেয়। পরে চোখ বেঁধে তাকে কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের দিকে নিয়ে টাকা-পয়সা, স্বর্ণের বার ও মোবাইল ফোন রেখে ছেড়ে দেয়।

পুলিশের লালবাগ বিভাগের উপ-কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একজন কর্মকর্তাসহ কয়েকজনকে ব্যবসায়ীকে অপহরণের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ করছি। যেহেতু তিনি সরকারি কর্মকর্তা সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  

সারাদেশ

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]