শুক্রবার ● ২৭ নভেম্বর ২০২০ ● ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ ● ১০ রবিউস সানি ১৪৪২
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
করোনাকালীন সময়ে শেখ হাসিনা সাহায্যের সকল দ্বারপ্রান্ত উন্মুক্ত করে দিয়েছেন: আফছার খান সাদেক
সিনিয়র প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২০, ১০:১২ পিএম আপডেট: ১৯.১১.২০২০ ১০:২৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

করোনাকালীন সময়ে শেখ হাসিনা সাহায্যের সকল দ্বারপ্রান্ত উন্মুক্ত করে দিয়েছেন: আফছার খান সাদেক

করোনাকালীন সময়ে শেখ হাসিনা সাহায্যের সকল দ্বারপ্রান্ত উন্মুক্ত করে দিয়েছেন: আফছার খান সাদেক

পুরো বিশ্বের অর্থনীতির ওপর করোনা সংকটের মারাত্মক প্রভাবের মাত্রা দিনে দিনে আরেও স্পষ্ট হয়ে উঠছে। বিশেষ করে পশ্চিমা দেশগুলোর অর্থনীতির অবস্থা সম্পর্কে ভয়াবহ চিত্র উঠে আসছে। সেদিক থেকে করোনা মহামারির ধাক্কা কাটিয়ে আবারো ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি। মহামারির কারণে সৃষ্ট এই সংকটময় পরিস্থিতিতে প্রতিবেশী দেশগুলোর চেয়েও অর্থনীতিতে নিরাপদ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। দ্য ইকোনমিস্ট বলছে, দক্ষিণ এশিয়ায় প্রতিবেশী তিন দেশের তুলনায় বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অবস্থান অনেকটাই ভালো। করোনা মহামারির সকল ধাক্কা কাটিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশের অর্থনীতি। অনেক ক্ষেত্রে শেখ হাসিনা করোনা জয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন।

দৈনিক ভোরের পাতার নিয়মিত আয়োজন ভোরের পাতা সংলাপের ১৬৩ তম পর্বে এসব কথা বলেন আলোচকরা। বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সাবেক ডিন ড. প্রিয়ব্রত পাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ড. বদরুজ্জামান ভূঁইয়া কাঞ্চন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক, বহির্বিশ্বে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য প্রতিষ্ঠাতা আফছার খান সাদেক। দৈনিক ভোরের পাতার সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসানের পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনা করেন সাবেক তথ্য সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদ।

আফছার খান সাদেক বলেন, গত মার্চের ১৭ তারিখ থেকে আমি এখানে টোটালি লকডাউনে আছি। ঘরে থেকেই মানুষদেরকে সাহায্য করে যাচ্ছি। দরজার সামনে খাবার দিয়ে রাখি আর লিখে রাখি যার দরকার, সে নিয়ে যান। এটা করে অনেক প্রশান্তি পাচ্ছি। এই করোনাতে সবচে বেশি মানুষ মারা গিয়েছে ইংল্যান্ডে। এখন লকডাউন বলতে কেউ কারও বাসায় যেতে পারবেন না, মাস্ক ছাড়া যদি কেউ বাইরে যান তাহলে ১০০০ পাউন্ড জরিমানা করা হবে। অনেক কঠোরভাবে লকডাউন পালন করা হচ্ছে এখানে। তাই সবাই এখানে অনেক সতর্কভাবেই চলা ফেরা করছে। কিন্তু আমার দেশের মানুষ একমাত্র আল্লাহ তালায় রক্ষা করছে। আমার দেশে অনেক উন্নত না তার পরেও জননেত্রী শেখ হাসিনা জন সাধারণের জন্য যে প্রণোদনা দিয়েছে এই জন্য আমরা বাংলাদেশ সরকারের কাছে চির কৃতজ্ঞ থাকবো। অনেক দিন হয়ে এলেও প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থামছে না। থেমে নেই মৃত্যুও। শনাক্তের সংখ্যাও অনেক। তবুও বাড়ছে না সচেতনতা। ছোঁয়াচে এ রোগের কোনো প্রতিষেধক নেই। কবে ভ্যাকসিন আসবে তারও নেই কোনো নিশ্চয়তা। এজন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচার উপায়। মাস্ক পরা, সাবান দিয়ে হাত ধোয়া। যদি কোনো দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব খুব বেশি পরিলক্ষিত হয় এবং লকডাউন কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করা হয়, তবে অর্থনীতিতে স্থবিরতা দেখা দেয়। অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড থেমে যায়। জনগণের আয় কমে যাওয়ায় ক্রয়ক্ষমতা কমে যায়। বাংলাদেশ তার সম্ভাবনার সবটুকু কাজে লাগানোর উদ্যমী হয়ে পরিকল্পনা করেই শিক্ষা ব্যবস্থা, জ্ঞান-বিজ্ঞানের মতো মেধাভিত্তিক খাতগুলোকে আরও বেশি গুরুত্ব দিবে এবং আগামী বছরগুলোতে আমাদের অর্থনীতির সূচক কোথায় নিয়ে যেতে হবে, অর্থনীতির চাকা কতটা সচল ও আত্মনির্ভর রাখতে হবে- এই লক্ষ্য নির্ধারণ করে মূলত কর্মপন্থা সাজাতে হবে। সকল প্রতিকূল অবস্থা মোকাবিলা আর মানুষ ও মনবতাকে নিশ্চিত করে অদম্য বিশ্বাস নিয়ে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ-এটাই জনগণের প্রত্যাশা। আমি একটা জিনিষ এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে দেশে যারা বিত্তবান আছে তাদেরকে জানাতে চায়, ফটোসেশন না করে, মানুষের সাথে ভিড় না করে, যার যার বাসায় গিয়ে সাহায্য গুলো পৌঁছে দেন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






আরও সংবাদ
https://www.dailyvorerpata.com/ad/BHousing_Investment_Press_6colX6in20200324140555 (1).jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/431205536-ezgif.com-optimize.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: vorerpata24@gmail.com news@dailyvorerpata.com