বৃহস্পতিবার ● ৩ ডিসেম্বর ২০২০ ● ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ ● ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
প্রদীপের দেহরক্ষী রুবেল শর্মা ফের ৫ দিনের রিমান্ডে
মোহাম্মদ শফিক, জেলা প্রতিনিধি কক্সবাজার
প্রকাশ: বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০, ৭:৪০ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

প্রদীপের দেহরক্ষী রুবেল শর্মা ফের ৫ দিনের রিমান্ডে

প্রদীপের দেহরক্ষী রুবেল শর্মা ফের ৫ দিনের রিমান্ডে

সেনাবাহিনীর অবসর প্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ হত্যার মামলার আসামি ও টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশের দেহরক্ষী হিসেবে পরিচিত কনস্টেবল রুবেল শর্মার আরও ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জর করেছেন আদালত বুধবার (২৮ অক্টোবর) সোয়া ১২টার দিকে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত নম্বর-৩ (টেকনাফ)-এর বিচারক তামান্না ফারাহ এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন

এামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাব-১৫ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. খায়রুল ইসলামের আবেদেনের প্রেক্ষিতে রুবেল শর্মার দ্বিতীয় দফায় এই রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে। তদন্ত কর্মকর্তা আট দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন। 

তিনি জানান, ইতোমধ্যে সাত দিনের রিমান্ড নেয়া রুবেল শর্মার কাছ থেকে সিনহা হত্যা মামলা সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। কিন্তু আরও তথ্য পাওয়ার জন্য তাকে ফের রিমান্ডে নেয়া প্রয়োজন ছিল। তাই পুনঃরিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। তথ্যমতে, সিনহা হত্যা মামলা ১৪ আসামির মধ্যে সর্বশেষ আসামি হিসেবে সংযুক্ত হয় রুবেল শর্মা।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়। কথিত আছে– সাবেক কনস্টেবল রুবেল শর্মা কারাগারে থাকা টেকনাফ মডেল থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশের বিভিন্ন অপকর্মের অন্যতম সহযোগী ছিলেন।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর মামলার আইও র্যাকব ১৫-এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. খায়রুল ইসলামের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত নম্বর-৩ (টেকনাফ)-এর বিচারক তামান্না ফারাহ রুবেল শর্মার সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

২ অক্টোবর তাকে রিমান্ড হেফাজতে নেয়া হয়।

উলে­খ্য, গত ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর এলাকায় এপিবিএনের চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান।

এ ঘটনায় ৫ আগস্ট নিহত মেজর (অব.) সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস বাদী হয়ে ৯ জনের বিরুদ্ধে একই আদালতে মামলাটি করেন। পরে আরও পাঁচজনকে আসামি হিসেবে সংযুক্ত করা হয়।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






https://www.dailyvorerpata.com/ad/BHousing_Investment_Press_6colX6in20200324140555 (1).jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/431205536-ezgif.com-optimize.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]