বৃহস্পতিবার ● ৩ ডিসেম্বর ২০২০ ● ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ ● ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
গণমাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধিটাকে আরও বেশি প্রমোট করতে হবে: ডা: আবদুল্লাহ জাকারিয়া
সিনিয়র প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ১০:৩০ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

গণমাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধিটাকে আরও বেশি প্রমোট করতে হবে: ডা: আবদুল্লাহ জাকারিয়া

গণমাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধিটাকে আরও বেশি প্রমোট করতে হবে: ডা: আবদুল্লাহ জাকারিয়া

করোনাভাইরাস মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় এখনই অনেক দেশ আবার জনসাধারণের অবাধ চলাচলে কড়াকড়ি করেছে। কোনো কোনো দেশ নতুন করে লকডাউন আরোপের কথাও ভাবছে। বাংলাদেশেও এরই মধ্যে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ আঘাত হানতে শুরু করেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আসছে শীতে যার তীব্রতা আরও বাড়তে পারে। ফলে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় সরকার আবারও সমন্বিত রোড ম্যাপ প্রণয়নের উদ্যোগ নিয়েছে। এরই অংশ হিসেবে চলছে নানা প্রস্তুতি। এরই মধ্যে করণীয় নির্ধারণে সরকারের কাছে একগুচ্ছ প্রস্তাব পেশ করা হয়েছে বিশেষজ্ঞদের পক্ষ থেকে। এর মধ্যে জনসাধারণকে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি যথাযথ মানতে সরকারকে কঠোর হতে পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

দৈনিক ভোরের পাতার নিয়মিত আয়োজন ভোরের পাতা সংলাপের ১৩৮ তম পর্বে এসব কথা বলেন আলোচকরা। রবিবার (২৫ অক্টোবর) আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল ইসলাম খান, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি, যুক্তরাজ্য, লন্ডন,  ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের চিকিৎসক ডা: আবদুল্লাহ জাকারিয়া, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা গবেষক ডাঃ মোঃ সালেহ মাহমুদ তুষার। দৈনিক ভোরের পাতার সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসানের পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনা করেন সাবেক তথ্য সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদ।

ডা: আবদুল্লাহ জাকারিয়া বলেন, আলোচনার প্রারম্ভে আমি এটা বলেতে চায় যে, কোন কিছু কাকতালীয়ভাবে হয়না। বাংলাদেশকে বলা হয় প্যারাডক্স। অর্থনীতি বলেন, স্বাস্থ্যবিধি বলেন সবক্ষেত্রেই ব্যাপক উন্নতি হচ্ছে বাংলাদেশে। এতো কিছু কিন্তু কাকতালীয়ভাবে হয়না। কেউনা কেউ এটা নেতৃত্ব দিচ্ছেন। আমাদের জননেত্রী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে এই সবগুলো সূচক কিন্তু এগিয়ে যাচ্ছে। অর্থনীতি, স্বাস্থ্যবিধি, মানবসূচক এই সব দিক থেকেই আমরা পার্শ্ববর্তী দেশগুলো থেকে অনেক এগিয়ে আছি। পাশ্চাত্য দেশ গুলো প্রথমে এটাকে বিশ্বাস করতে চায়না তারপর যখন তারা এটাকে তাদের এজেন্সি দিয়ে ক্রসচেক করায় তখন তারা এটাকে বলে প্যারাডক্স। আমি বলবো এটা প্যারাডক্স না, এটা সুযোগ্য নেতৃত্ব। করোনার প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে না আসলেও জীবিকার তাগিদে বাইরে বের হতে বাধ্য হচ্ছে মানুষ। এরই ধারাবাহিকতায় বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও খুলে দেয়া হয়েছে অফিস আদালত। চাপ বেড়েছে বাজার ও রাস্তাঘাটেও। ঢাকায় আবারো শুরু হয়েছে জ্যাম। কিন্তু যে কারণে দেশে সব কিছু বন্ধ রাখা হয়েছিলো সে করোনাভাইরাস কি কমেছে? যুক্তরাজ্যের অনেক দেশে সংক্রমণ কমার পর তা আবার বেড়ে গিয়েছিলো। যাকে বলা হচ্ছে সংক্রমণের দ্বিতীয় আঘাত বা সেকেন্ড ওয়েভ। মূলত ভাইরাস সংক্রমণের হার কমে আবার বেড়ে গেলে তাকে সেকেন্ড ওয়েভ বলা হয়। এই সেকেন্ড ওয়েভ আমাদের যুক্তরাজ্যে অলরেডি শুরু হয়ে গেছে। আমাদের এখানে লকডাউন শুরু হয়েছিল ২৩এ মার্চ সেখানে এখন সেই সংখ্যা প্রায় তিনগুন বেশি। আমাদের এখানে সরকার লকডাউন দিচ্ছেন না এইজন্য যে এখানে কতগুলো কারণ রয়েছে। তারমধ্যে করোনা মোকাবেলা করার জন্য যে ধরনের প্রস্তুতি দরকার সেগুলো অলরেডি সরকার নিয়েছে। আরেকটি কারণ হচ্ছে ওষুধের ট্রায়াল বা এর ব্যাবহার শুরু হয়েছে। বাংলাদেশের করোনার মোকাবেলায় সব থেকে কার্যকর বিষয় হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি। এই স্বাস্থ্যবিধি মোকাবেলায় মাস্কের ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য সবাইকে বুঝানো যায়, এক্ষেত্রে দেশের মিডিয়া যদি নিউজ এর পাশাপাশি প্রমোশনাল ভাবে বুঝানো যায় তাহলে এর রোধ করা আসলেই সহজ হয়ে যাবে দেশের মানুষের জন্য।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






https://www.dailyvorerpata.com/ad/BHousing_Investment_Press_6colX6in20200324140555 (1).jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/431205536-ezgif.com-optimize.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]