সোমবার ● ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ● ৬ আশ্বিন ১৪২৭ ● ২ সফর ১৪৪২
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
আলোর দিশারী হয়ে দেশে ফিরেছিলেন শেখ হাসিনা: নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন
সিনিয়র প্রতিবেদক
প্রকাশ: সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:২৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

আলোর দিশারী হয়ে দেশে ফিরেছিলেন শেখ হাসিনা: নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন

আলোর দিশারী হয়ে দেশে ফিরেছিলেন শেখ হাসিনা: নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন শুধু বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নন, তিনি এখন বিশ্বনেতায় পরিণত হয়েছেন। অত্যন্ত প্রখর মেধা নিয়ে, প্রজ্ঞা আর নেতৃত্ব দিয়ে বাংলাদেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে পৌঁছে দিয়েছেন। শেখ হাসিনা আমাদের আস্থার বাতিঘর। দৈনিক ভোরের পাতার নিয়মিত আয়োজন ভোরের পাতা সংলাপে এসব কথা বলেন আলোচকরা। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন, বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. বদরুজ্জামান ভুঁইয়া কাঞ্চন, নেদারল্যান্ডস আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুরাদ খান। দৈনিক ভোরের পাতার সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসানের পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনা করেন সাবেক তথ্য সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদ।

নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন বলেন, আমি আমার বক্তব্যের প্রথমেই শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করি ১৫ আগস্ট ১৯৭৫ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, যে মহামানবের অবদানে আজ আমারা লাল সবুজের পতাকা নিয়ে পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করা দাড়িয়ে আছি, স্মরণ করছি তার পরিবারের শহীদ সদস্যদের। জাতির পিতাকে হারিয়ে বাঙালি যখন অভিভাবক হারা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া দল আওয়ামী লীগ যখন অভিভাবক হারা হয়ে পরেছিল তখন, সামরিক জান্তাদের বুটের তলায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, মানুষের ভোটের অধিকার, ভাতের অধিকার, মানবাধিকার অধিকার যখন ভুলন্ঠিত হচ্ছিলো তখন আলোর দিশারী হয়ে বিশ্ব জননন্দিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য উত্তরসূরি জননেত্রী শেখ হাসিনা সামরিক জান্তাদের বুটের তলা থেকে দেশকে বাঁচানোর জন্য দেশে ফিরে আসেন এবং ১৯৮১ সালে তিনি প্রবাসে থাকা অবস্থায় আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সবার সম্মতিক্রমে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব অর্পণ করা হয়। এরপর তিনি ১৯৮১ সালের ১৭ই মে বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তনের পরে তার একটিই উদ্দেশ্য ছিল, জাতির পিতার দ্বিতীয় স্বপ্ন বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক মুক্তি এনে দেওয়া তা বাস্তবায়ন করা। ১৯৭৫ সালের পরে যারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করেছিল ও ১৯৭১ সালের যুদ্ধে সেই পরাজিত শক্তি সেই জামায়াত-শিবিরদের পুনর্বাসনের যে প্রক্রিয়া চলমান ছিল সেই প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে আবার সেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে পুনরুদ্ধার করাই তিনি কাজ করে গিয়েছিলেন। এই লক্ষ্য নিয়ে তিনি যখন দেশে ফিরে সামরিক জান্তাদের বিরুদ্ধে লড়ায় শুরু করেছিলেন তখন তাকে বার বার মৃত্যুর মুখোমুখি হতে হয়েছে। স্বৈরশাসকদের বিরুদ্ধে এই লড়ায় চালাতে গিয়ে তাকে বারংবার গৃহবন্দী করা হয়েছিল। সেই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে যিনি ছিলেন আপোষহীন, যাকে বার বার মৃত্যুর মুখোমুখি হতে হয়েছিল, যাকে গুলি করার জন্য ১৯৮৭ সালের ১১ই নভেম্বর তৎকালীন স্বৈরশাসক সরকারের নির্দেশে যারা সেদিন পুলিশবাহিনীর দায়িত্বে ছিলেন তারা সেদিন গুলি করেছিলেন, এবং সেদিন নিহত হয়েছিলেন শহীদ নূর হোসেন, যার বুকে লেখা ছিল- স্বৈরাচার নিপাত যাক, পিঠে লেখা ছিল- গণতন্ত্র মুক্তি। সেদিনের সেই গুলির টার্গেট ছিল ছিল আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করার। কিন্তু সেদিন নূর হোসেন নিজের জীবন দিয়ে গণতন্ত্রের আন্দোলনকে প্রতিষ্ঠিত করে চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যায়। সেদিন আমিও ছাত্রলীগের একজন ক্ষুদ্রকর্মী হিসেবে সেই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে ছিলাম। এইরকম অনেক আন্দোলনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এদেশের গণমানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য তিনি সংগ্রাম করেছিলেন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






আরও সংবাদ
https://www.dailyvorerpata.com/ad/BHousing_Investment_Press_6colX6in20200324140555 (1).jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/431205536-ezgif.com-optimize.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: vorerpata24@gmail.com news@dailyvorerpata.com