শুক্রবার ● ২ অক্টোবর ২০২০ ● ১৭ আশ্বিন ১৪২৭ ● ১৩ সফর ১৪৪২
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
বাউফল আইনশৃংখলার চরম অবনিত; আতংকে সাধারণ মানুষ
প্রতিনিধি বাউফল
প্রকাশ: শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০, ৭:২৫ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

বাউফল আইনশৃংখলার চরম অবনিত; আতংকে সাধারণ মানুষ

বাউফল আইনশৃংখলার চরম অবনিত; আতংকে সাধারণ মানুষ

পটুয়াখালীর বাউফলে আইন শৃঙ্খলার চরম অবনতি হয়েছে। চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, খুন ধর্ষণ বেড়েই চলেছে। একের পর এক পুলিশের সামনেই ঘটছে এসব ঘটনা। আর এ আইন শৃলার চরম অবনতির প্রধান কারণ হিসাবে থানা পুলিশকে দায়ি করেছে ভুক্তভোগি পরিবারগুলো। ফলে এসব অপকর্ম বেড়ে যাওয়ায় চরম শঙ্কায় দিনরাত পাড় করছে উপজেলার সাধারণ মানুষ। 

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, গত ২ আগস্ট প্রতিপক্ষের হাতে খুন হয়েছেন কেশবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি  রুমন তালুকদার ও তার চাচাতো ভাই ইশাদ তালুকদার। এ ঘটনার দুই দিন আগে (৩১ জুলাই) কেশবপুর বাজারে দুই পক্ষের হামলায় নিহত রুমন তালুকদারে মেঝ ভাই হাফেজ উদ্দিন পিন্টু ও মফিজ উদ্দিন মিন্টুসহ ১০-১২ আহত হয়। এই ঘটনায় নিহত যুবলীগ নেতা রুমনের ভাই ও কেশবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সালেহ উদ্দিন পিকু বাদি হয়ে ওই দিন সন্ধ্যায় বাউফল থানায় মামলা দায়ের করতে গেলে ওসি (তদন্ত) আল মামুন মামলা গ্রহণ করেননি। বাদির অভিযোগ করেন, ওসি ওই সময় মামলা নিলে হয়তো জোড়া খুন হতো না। যারা খুন করেছেন তারা এজাহারের আসামী ছিলেন। এ ছাড়া গত  ২৪ জুন বাউফল থানার সামনে তোরণ নির্মাণ কে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। 

এসময় তাপস নামের এক যুবলীগ কর্মী ছুরিকাঘাতের শিকার হয়ে চিকিৎসাধিন অবস্থায় মারা যান। বাউফল থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান, ওসি (তদন্ত) আল মামুনসহএক ডজন  এসআই এবং এএসআই ও ২০-২৫ জন পুলিশের চোখের সামনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে তারা নিরব ছিল। ওই সময় পুলিশ ব্যবস্থা নিলে খুনের ঘটনা এড়ানো যেত। পুলিশের এ রহস্যজনক ভুমিকা নিয়ে খোদ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা অসন্তোষ প্রকাশ করেন এবং তারা ওসির অপসরণ দাবি করেন। কিন্তু এখনো তিনি অদৃশ্য শক্তির কারণে তিনি বহাল তবিয়তে আছেন। বাউফলের তেুঁতুলিয়া নদীতে ডাকাতির ঘটনা বেড়ে গেলেও ডাকাতদের পাকরাও করতে পুলিশের কোন ভুমিকা চোখে পরছেনা । অথচ বাউফলের কালাই বন্দরে একটি নৌ-পুলিশ ফাঁড়ি রয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বাড়ি ঘরে চুরি ডাকাতি বেড়ে গেছে। কেশবপুর, নাজিরপুর ও কাছিপাড়া গ্রামে গত দুই সপ্তাহে অর্ধশত চুরি সংর্ঘটিত হয়েছে। ওই সব গ্রামের মানুষ এখন আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন। 

এসব ঘটনা পুলিশকে অবহিত করা হলেও  কোন ধরণের সহায়তা পাওয়া যাচ্ছেনা। গত ৫ আগস্ট কাছিপাড়া বাজারে এক রাতে ১০ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও ৩টি চুরি সংগঠিত হয়েছে। কোরবানির আগের দিন পৌর শহরের জনৈক রবির দাস নামের এক ব্যক্তির গরু চুরি হয়েছে। তিনি অভিযোগ দিতে গেলে জনৈক পুলিশ জানায় টাকা লাগবে সে কারনে তিনি থানায় অভিযোগ দেননি।  আবুবকর সিদ্দিক জানায়, অভিযোগ দিতে থানায় গেলে থানায় কেন আসছেন, থানায় আসার সময় বুঝতে হয়, থানায় কোন অভিসার নাই বলে রুঢ় আচরণ করেন  ইকবাল নামের এক এএসআই।  কালাইয়া ইউপির দবির হোসেন নামের এক ব্যক্তি অভিযোগ করেন, প্রতিপক্ষরা তাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে। 

এ ঘটনায় তিনি থানায় মামলা করতে গেলে এসআই আশিক তার কাছে তিন হাজার টাকা দাবি করেন। তিনি  ওই সময় দেড় হাজার টাকা দেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত তার মামলাটি হয়নি। অভিযোগ রয়েছে, উপজেলার কোন  মানুষ থানায় আইনী সহায়তা নিতে আসলে থানার বার্তা অপরেটর আবুল হোসেন তা প্রতিপক্ষকে গোপেনে জানিয়ে দেন। বিনিময়  টাকা হাতিয়ে নেন। এরকম অভিযোগ রয়েছে এএসআই রফিকের বিরুদ্ধে। তিনি জনৈক মহিলা শিক্ষককে নিয়ে গোলাবাড়ি একটি বাসায় ভাড়া থাকতে বোন পরিচয় দিয়ে। ওই মহিলা এখন নাজিরপুর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন। বাড়ির মালিক জানান, এএসআই রফিক তার স্বামী পরিচয় দিয়ে বাসা ভাড়া করেছে; এদিকে বাউফল ছালেহিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অস্থায়ী ব্রাকে থাকা পুলিশের একটি দল ওই প্রতিষ্ঠানের ছাত্রিদের উত্যাক্ত করে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে সংশ্লিষ্টরা। 

অপরদিকে বাউফল থানার ওসির বিপক্ষে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অভিযোগ হলো তাকে বিপদকালীন সময় মোবাইল করলে তিনি সহসা রিসিভ করেননা। 

এ ব্যাপারে বাউফল সার্কেলের সিনিয়র পুলিশ সুপার ফারুক আহম্মেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘মানুষের যান মালের নিরাপত্তা বিধানের দায়িত্ব পুলিশের । এসব বিষয়ে কোন কোন পুলিশের গাফেলতি  বরদাস্ত করা হবেনা । 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






https://www.dailyvorerpata.com/ad/BHousing_Investment_Press_6colX6in20200324140555 (1).jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/431205536-ezgif.com-optimize.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: vorerpata24@gmail.com news@dailyvorerpata.com