রোববার ● ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ● ৫ আশ্বিন ১৪২৭ ● ১ সফর ১৪৪২
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
যেই জাতি শেখ হাসিনার মতো লিডারশীপ পায় সেই জাতি ব্যর্থ হওয়ার কোন সুযোগ নাই: সাংসদ মহিউদ্দিন
খুরশীদুল আলম শাহীন
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০২০, ২:৪৫ এএম | অনলাইন সংস্করণ

যেই জাতি শেখ হাসিনার মতো লিডারশীপ পায় সেই জাতি ব্যর্থ হওয়ার কোন সুযোগ নাই: সাংসদ মহিউদ্দিন

যেই জাতি শেখ হাসিনার মতো লিডারশীপ পায় সেই জাতি ব্যর্থ হওয়ার কোন সুযোগ নাই: সাংসদ মহিউদ্দিন

মঙ্গলবার (৪ আগষ্ট) রাত ৯ টায় "দৈনিক ভোরের পাতা" পত্রিকার নিয়মিত ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠান "ভোরের পাতা সংলাপ" এর ৫৬তম পর্বে অংশ নিয়েছিলেন ঢাকা-১০ আসনের সাংসদ ব্যবসায়ী নেতা সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

"ষড়যন্ত্রময় আগষ্ট" শিরোনামের এই অনুষ্ঠানটিতে শোকাবহ আগষ্ট নিয়ে আলোচনায় আরও অংশ নেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, সাবেক সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর

শোকের মাস আগষ্ট স্মৃতিচারণে সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, যে মানুষটি তার জীবদ্দশায় যৌবনের মূল্যবান সময়টুকুর একটা বড় অংশ এই বাঙালি জাতির মুক্তি সংগ্রাম আন্দোলন করতে গিয়ে জেল জুলুমের শিকার হয়েছেন,পরিবার পরিজন ছেড়ে কারাভ্যন্তরে দিনাতিপাত করেছেন দুঃখজনক হলেও সত্য স্বাধীনতার মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় সেই অবিসংবাদিত বিশ্ব নেতা আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে আমাদের হারাতে হয়েছে। ইতিহাসের সবচেয়ে নৃশংসতম ও ঘৃণিত জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রমূলক এই হত্যাকাণ্ডটি প্রত্যক্ষ করতে হয়েছে তাঁরই হাতে গড়া স্বাধীন রাষ্ট্রের মানুষ হিসাবে আমাদেরকে। যা কিনা এই রাষ্ট্রের একজন নাগরিক হিসাবে আমাকে বড্ডোবেশী পীড়া দেয়। লজ্জা দেয়। সর্বোপরি ধুকরে ধুকরে কাঁদায়। অপরাধীর কাঠগড়ায় দাঁড় করায়।

তিনি আরও বলেন, আমি আরও বেশী ব্যথিত হই যখন দেখি কিংবদন্তি এই মহান মানুষটিকে হত্যা করার পর তারই দেয়া স্বাধীন রাষ্ট্রের নাগরিকরা এই হত্যাকাণ্ডের বিচার চাওয়া যাবে না, বিচার করা যাবে না মর্মে  ইমডেমনিটি নামক একটি কালো আইন পাশ করে। বিচারকরা আদালতে বিচারকার্য চালাতে বিব্রতবোধ করে। যার ঋণ শোধ হবার নয় তাঁর কাছে এই জাতি আরও বেশী ঋণী হয়েছে তাঁরই হত্যাকাণ্ডটি নিয়ে বিচারকার্য পরিচালনায় বাঁধার সৃষ্টি করে তথা বিলম্বিত  করে। জাতি হিসাবে বিশ্ব দরবারে সর্বোচ্চ অকৃতজ্ঞতার পরিচয় দিয়েছে জাতির জনকের হত্যার সাথে জড়িত ১২ জনকে বিভিন্ন দূতাবাসে চাকুরী দিয়ে। রাজনৈতিক ভাবে ঐ হত্যাকারীদের পুনর্বাসন করে। বাস্তবতা হচ্ছে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডটি নিয়ে দীর্ঘ ২১ বছর যাকিছু ঘটেছে  তার সবটুকুই ইতিহাসের নিগূঢ় কালো অধ্যায়।

এরপর তিনি শেখ হাসিনার শাসনামল এবং বর্তমান প্রেক্ষাপট ও শেখ হাসিনার রাজনৈতিক দূরদর্শিতা প্রজ্ঞার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে মহিউদ্দিন বলেন, যেই জাতি শেখ হাসিনার মতো লিডারশীপ পায় সেই জাতি ব্যর্থ হওয়ার কোন সুযোগ নাই। 

প্রাসঙ্গিকতায় তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বৈশ্বিক মহামারী করোনা  মোকাবিলা সহ প্রাকৃতিক দূর্যোগ আইলা ও চলমান বণ্যা মোকাবিলায়ও শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্বে প্রশংসিত হচ্ছে। দূর্নীতি দমনে জিরো টলারেন্স দেখাতে নিজ দলের কোন নেতা-নেত্রীকেও ছাড় দিচ্ছেন না। কে কতো বড়ো নেতা কিংবা কে কোন দলের নেতা সেই বাছবিচার না করে সবাইকে বিচারের মুখোমুখি করছেন। 

একটা সময় ছিলো রাষ্টীয় পৃষ্ঠপোষকতায় দূর্নীতি করা হতো। মানুষের উপর জুলুম নির্যাতন করা হতো। উদাহরণ দিতে গিয়ে তিনি বাংলা ভাই এর প্রসঙ্গটি টানেন। এর ব্যাখায় তিনি বলেন, তৎকালীন সরকার প্রধানরা বলে বেড়াতেন বাংলা ভাই বলে কিছু নেই। সবই কাল্পনিক, সবই মিডিয়ার সৃষ্টি। অথচ শেখ হাসিনা যেকোন ঘটনা জানার সাথে সাথেই  বিচারকার্যে হাত দিচ্ছেন। জেলে পুড়ে দিচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন-, ১৫ আগষ্টেই যে ষড়যন্ত্র থেমে গেছে তা ভাবার কোন কারন নাই। ওদের ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিক পক্রিয়ার অংশ হিসেবে ১৯ বার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা চেষ্টা করা হয়েছে। কৃত্রিম জাল পড়িয়ে বাসন্তী সাজানোর ধারাবাহিতায় সাভারের কোন এক জায়গায় মাথার চুল কেঁটে খাদ্যাভাবে মাথার চুল বিক্রি করার নাটক সাজানো হয়েছে। অতএব আমাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে। তাদের ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় চোঁখ কান খোলা রাখতে হবে। সচেতন থাকতে হবে। 

সবশেষে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নাম উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এমনই একটি প্লাটফর্ম যা কিনা নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় উল্লেখিত সংগঠনগুলি সহ দলের সকল অঙ্গ, সহযোগী ও ভাতৃপ্রতিম সংগঠন গুলো কৃষকের ধান কেঁটে ঘরে ঘরে পৌছে দেয়ার কাজ করে জণগনের ভূয়সী প্রশংসা কুড়িয়েছেন। করোনায় অভুক্ত মানুষের জন্যে প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত সব উপহার সামগ্রী পৌছে দিয়ে  মানুষের হৃদয়ে কেড়েছেন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






https://www.dailyvorerpata.com/ad/BHousing_Investment_Press_6colX6in20200324140555 (1).jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/431205536-ezgif.com-optimize.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: vorerpata24@gmail.com news@dailyvorerpata.com