শুক্রবার ● ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ● ১০ আশ্বিন ১৪২৭ ● ৬ সফর ১৪৪২
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
সাহেদ-পাপিয়া’র আশ্রয়-প্রশ্রয় দাতাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানালেন নানক
ভোরের পাতা ডেস্ক
প্রকাশ: শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০২০, ৭:৫১ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সাহেদ-পাপিয়া’র আশ্রয়-প্রশ্রয় দাতাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানালেন নানক

সাহেদ-পাপিয়া’র আশ্রয়-প্রশ্রয় দাতাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানালেন নানক

সাহেদ-পাপিয়া’র আশ্রয়-প্রশ্রয় দাতাদের চিহ্নিত করে প্রয়োজনে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন  আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক।

তিনি বলেন, সাহেদ-পাপিয়ারা কিভাবে দলে ঢুকে পড়ে? নিশ্চয়ই কোন ফাঁকফোকর আছে? যে নেতার হাত ধরে ঢোকে সেই নেতার হাতকে ভেঙ্গে দিতে হবে। শুধু সাহেদ-পাপিয়াদের হাত ভাঙ্গলে চলবে না, তাদেরকে যারা দরজা দিয়ে ঢুকায় তাদের হাত গুড়িয়ে দিয়ে শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগকে রক্ষা করতে হবে। তাদের কে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে, তাকে চিহ্নিত করে তার বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

শুক্রবার (৩১জুলাই) বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয় শ্রমিক লীগ আয়োজিত ঈদুল আজহা উপলক্ষে অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের পূর্বে তিনি এসব কথা বলেন। 

জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি ফজলুল হক মন্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি পরিচালনা সাধারণ সম্পাদক কে এম আজম খসরু। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাহাঙ্গীর কবির নানক দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, সাহেদ নিয়ে আপনাদের প্রত্যেকের প্রশ্ন আছে? সাহেদরা কিভাবে দলে ঢুকে পড়ে? নিশ্চয়ই কোন ফাঁকফোকর আছে? কোন নেতার হাত ধরে ঢোকে। ওই নেতার হাতকে ভেঙ্গে দিতে হবে। শুধু সাহেদের হাত ভাঙ্গলে চলবে না, সাহেদকে যারা দরজা দিয়ে ঢুকায় তাদের হাত গুড়িয়ে দিতে হবে। তবু শেখ হাসিনার দলকে রক্ষা করতে হবে।

কোন হাইব্রিড যেন শ্রমিক লীগের আগামী কেন্দ্রীয় কমিটি ও মহানগর কমিটিতে যেন কোন হাইব্রিডরা ঢুকতে না পাওে এব্যাপারে সংগঠনের নেতাদের সতর্ক থাকার অনুরোধ জানান নানক।

তিনি বলেন, ‘ত্যাগ-তিতিক্ষায় পরীক্ষিত; তাদের কোন অভাব পড়ে যায় নাই। অভাব পড়ছে, যারা ত্যাগ-তিতিক্ষাকারী; যোগ্য নেতাদের যোগ্য জায়গা আপনাদের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক দেবেন। একই কথা, আমার আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ, ছাত্রলীগ,মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ; সব জায়গাতেই পাপিয়াদের সম্পর্কে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।

নানক আরও বলেন, পাপিয়াকে ধরলেই চলবে না। পাপিয়াকে কে ঢুকিয়েছে, কে আশ্রয় দিয়েছে, কে প্রশ্রয় দিয়েছে, তাকে চিহ্নিত করে ওর বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।”

‘‘আগামীকাল বাংলাদেশে ঈদুল আজহা পালিত হবে। আমরা অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয় নিয়েও ঈদুল আজহা পালন করবো। কারণ আগামীকাল থেকে শোকের মাস আগস্ট শুরু হবে। এই আগস্ট মাসে শেখ হাসিনা নির্দেশে সকল কর্মসূচি সংক্ষিপ্ত করে, যে বন্যা কবলিত এলাকার মানুষেরা ঈদ করতে পারছে না, সেই মানুষদেও পাশে দাঁড়াতে হবে। যে মানুষেরা করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঈদ করতে পারছে না, তাদের পাশে গিয়ে দাঁড়াতে তিনি নির্দেশ দিয়েছেন।”

সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগস্ট মাসের কর্মসূচি পালন করার আহ্বান জানিয়ে নানক আরও বলেন, কিন্তু এই আগস্ট মাসের নামে কোন চাঁদাবাজি কাউকে করতে দেয়া হবে না। কঠিন ভাবে খেয়াল রাখতে হবে। আগস্ট মাসকে সামনে রেখে কেউ যেন কোন চাঁদাবাজি না করতে পারে।

নানক বলেন, আপনারা দোয়া করবেন, আল্লাহতালা আব্বুলামিন যেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হেফাজতে রাখেন এবং তার জন্য দোয়া করবেন। ১লা আগস্ট সারাদেশে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। যে মহামানব জন্ম না নিলে বাংলাদেশ হতো না, যে মহামানবের সৃষ্টি না হলে এই বাংলাদেশে আমরা স্বাধীন নাগরিক হতে পারতাম না, সেই মহামানবকে ১৫আগস্ট সপরিবারে হত্যা করেছে। তাই আগামীকাল ১লা আগস্ট ঈদের জামায়াতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিহত পরিবারবর্গের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করার জন্য আকুল আবেদন জানান তিনি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম সংগঠনের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, আপনারা হলেন এদেশের মেহনতি মানুষের কন্ঠস্বর। মেহনতি মানুষের প্রতীক। আপনাদের মাধ্যমে সারাদেশের মেহনতি মানুষকে জাগ্রত করার জন্য উজ্জীবিত করার জন্য এই করোনাকালীন সময়, বন্যা ও আগামীতেও যদি কোন ধরনের প্রতিক’ল পরিবেশ আসে তাহলে সকল কিছুতেই আপনারা মেহনতি মানুষের আশা আকাঙ্কার স্বপ্ন নিয়ে পাশে থাকবেন। মানুষের পাশে থেকে মানুষের জন্য কাজ করবেন। এটাই আমাদের নেত্রীর আকঙ্খা, এটাই ওনার স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন পূরণে আপনারা বলিষ্টভাবে দায়িত্ব পালন করবেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের নেত্রী। ১৬ কোটি মানুষকে তিনি ভালবাসেন। তিনি চান,  প্রতিটি মানুষ ভাল থাকুক, সুস্থ থাকুক। কোন একটি প্রাণ যেন অকারণে অথবা কোন অবহেলায় ঝরে না যায়। আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনার সৈনিক হিসাবে, আমরা জাতির পিতার আদর্শের সন্তান হিসাবে সবসময় মানুষের পাশে আছি, থাকবো।  শেখ হাসিনার  নেতৃত্বে সত্য, ন্যায় দুর্নীতিমুক্ত একটি সুন্দর উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ আমরা গঠন করার প্রত্যয় করেন নাছিম।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »






আরও সংবাদ
https://www.dailyvorerpata.com/ad/BHousing_Investment_Press_6colX6in20200324140555 (1).jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/431205536-ezgif.com-optimize.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: vorerpata24@gmail.com news@dailyvorerpata.com