মঙ্গলবার ● ১১ আগস্ট ২০২০ ● ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭ ● ২০ জিলহজ্জ ১৪৪১
সাতক্ষীরায় জব্দ ৬৫৫ বস্তা গম আম্পান কবলিত এলাকায় বন্টনের নির্দেশ দিলেন সিনিয়র জেলা জজ
ভোরের পাতা ডেস্ক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৭ জুলাই, ২০২০, ১:০৭ এএম আপডেট: ০৭.০৭.২০২০ ১:৩০ এএম | অনলাইন সংস্করণ

সাতক্ষীরায় জব্দ ৬৫৫ বস্তা গম আম্পান কবলিত এলাকায় বন্টনের নির্দেশ দিলেন সিনিয়র জেলা জজ

সাতক্ষীরায় জব্দ ৬৫৫ বস্তা গম আম্পান কবলিত এলাকায় বন্টনের নির্দেশ দিলেন সিনিয়র জেলা জজ

সাতক্ষীরায় আবারো পুলিশের অভিযানে জব্দকৃত ৬৫৫ বস্তা গম আম্পান কবলিত ৪ টি ইউনিয়নসহ ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় বিতরণের নির্দেশ দিয়েছে সাতক্ষীরার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক শেখ মফিজুর রহমান।

রোববার (৫ জুলাই) ভার্চুয়াল শুনানী শেষে সোমবার ৬ জুলাই দুপুরে সাতক্ষীরার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক শেখ মফিজুর রহমান এ আদেশ দেন। এর আগে এ মামলার পিপি (দুদক) জব্দকৃত আলামত পচনশীল হওয়ায় এর মধ্য থেকে ৫ কেজি নমুনা স্বরুপ রেখে বাকী সব আলমত বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহনের উক্ত আদালতে আবেদন করেন। আদালত শুনানি শেষে উক্ত আদেশ দেন।

এ মামলার নথি ও দরখাস্ত (পিপির আবেদন) পর্যালোচনা শেষে আদলতের বিচারক জানতে পারেন যে, গত ২৫.০৬.২০২০ তারিখে সাতক্ষীরা ডিবিপুলিশের এস আই হুসাইন মোস্তফা আলম ৬৫৫ বস্তা গম (৩৯,৩০০ কেজি) জব্দ তালিকা মূলে জব্দ করেন।

পরবর্তীতে কালিগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরি নং ১৬৪৫, তাং- ২৬/৬/২০২০ ধারা ফৌঃকাঃ বিধি ৫৪ মোতাবেক আসামী শহীদুল ইসলাম, আব্দুল গণি, লিয়াকত সরদার এবং আবু খালেক কারিগরদের গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করেন এবং দুর্নীতি দমন কশিমন গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে পেনাল কোডের ৪০৯/৪২০/৪৬৮/৪৭১/৪৭৭/(ক)/১০৯ তৎসহ ১৯৪৭ সনের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারা মোতাবেক গত ২৭/৬/২০২০ তারিখে মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ পি,পি (দুদক) গত ২৯/৬/২০২০ তারিখে আসামীদের অত্র মামলায় গ্রেফতার দেখানোর আবেদন করিলে ৩০/৬/২০২০ তারিখে ভার্চুয়াল শুনানীঅন্তে মঞ্জুর করা হয় এবং আসামীদের মামলায় গ্রেফতার দেখাইয়া হাজতী পরোনায়া ইস্যু করা হয়।

আলামত যেহেতু পচনশীল দ্রব্য সেহেতু তা নষ্ট না করিয়া জনকল্যানে ব্যবহার করা সমীচিন বলে আবেদনে উল্লেখ করা হয়। বিচারক নথি পর্যালোচনা শেষে সম্প্রতি সুপার সাইক্লোন আম্পান ঝড়ে সাতক্ষীরায় দারুন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় জবদকৃত আলামতের ব্যবহার/প্রয়োগ সুনিশ্চিত করতে ৫ কেজি নমুনা স্বরুপ রেখে বাকী গুলো আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত দূর্গত এলাকা শ্যামনগর উপজেলার কাশিমাড়ী, কালিগঞ্জের কৃষ্ণনগর, আশাশুনি সদর ও আশাশুনির আনুলিয়া ইউনিয়নের মানুষের মাঝে বন্টনের লক্ষ্যে জেলা পুলিশকে দায়িত্ব দেন।

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ বর্ণিত ৪ টি ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত জনগনের মাঝে বন্টন শেষে আদালতকে একটি বন্টন প্রতিবেদন দাখিল করার জন্যও ওই আদেশে বলা হয়েছে। একই সাথে আদেশের অনুলিপি অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পুলিশ সুপার সাতক্ষীরা, দূর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়, খুলনা ও বিজ্ঞপিপি দুদক বরাবর প্রেরন করার জন্য বলা হয়। উক্ত ভার্চুয়াল শুনানিতে এ সময় অংশ নেন দুদকের পিপি এড. মোস্তফা আসাদুজ্জামান দিলু ও জেল সুপার।

এর আগে ২৮ মে ২০২০ তারিখে ৮১৭ বস্তা জব্দ কৃত গম আম্পান ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় বিতরণের নির্দেশ দেন সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান। নির্দেশনা মোতাবেক সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুষ্ঠভাবে ওই গম ক্ষস্থিগ্রস্থ এলাকার মানুষের মধ্যে বিতরণ করেন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »




আরও সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: vorerpata24@gmail.com news@dailyvorerpata.com