মঙ্গলবার ● ৭ জুলাই ২০২০ ● ২৩ আষাঢ় ১৪২৭ ● ১৫ জিলক্বদ ১৪৪১
সরকারের ব্যর্থতার কারণে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে: ফখরুল
ভোরের পাতা ডেস্ক
প্রকাশ: সোমবার, ২৫ মে, ২০২০, ৪:৩৭ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সরকারের ব্যর্থতার কারণে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে: ফখরুল

সরকারের ব্যর্থতার কারণে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে: ফখরুল

সরকারের ব্যর্থতার কারণে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে বলে মন্তব্য করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমরা দেখেছি, কয়েকবার বিভিন্ন সিদ্ধান্তের কারণে সারা দেশেই মানুষ ছড়িয়ে পড়েছে। বিশেষ করে আপনারা দেখলেন—এবার ঈদের আগে এবং তারও আগে গার্মেন্ট কারখানা ছুটি, সব মিলিয়ে এখন সারা দেশের মানুষই করোনাতে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে প্রায়। প্রতিদিন সংখ্যা বাড়ছে এবং বৃদ্ধির কারণটা হচ্ছে যে, পরীক্ষা হচ্ছে, বেশি সংক্রমিত সংখ্যাও সেজন্য বাড়ছে।

সোমবার (২৫ মে) ঈদের নামাজ শেষে জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারতের পর বিএনপি মহাসচিব এ সব কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, করোনা মোকাবিলায় সরকারের তরফ থেকে যেসব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে, আমাদের কাছে মনে হয়েছে তা সামঞ্জস্যপূর্ণ ছিল না, সমন্বয় ছিল না এবং এখনও নেই। করোনাভাইরাসকে ন্যূনতম প্রতিরোধের কাছাকাছি আনার চেষ্টা করা থেকেও তারা (সরকার) ব্যর্থ হয়েছে। আমরা এই কথা বলি না যে, এটা তারা পুরোটাই পারবেন। কারণ, পুরোটা পারা সম্ভব নয়, নতুন একটা জিনিস। কিন্তু যে ইচ্ছা, যে প্রচেষ্টা, সবাইকে আপনার সঙ্গে নিয়ে, বিশেষ করে বিশেষজ্ঞ যারা—তাদের সঙ্গে নিয়ে এটাকে মোকাবিলা করা তাদের পক্ষে সম্ভব হয়নি।

বেসরকারি হাসপাতালে করোনা চিকিৎসা হচ্ছে না মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, স্বাস্থ্য ব্যবস্থা কতটা ভঙ্গুর হয়ে পড়েছে দেখুন, এখন যারা দায়িত্বপূর্ণ লোক আছেন, গুরুত্বপূর্ণ লোক আছেন, তারা কিন্তু অন্যান্য হাসপাতাল, যেগুলোকে চিহ্নিত করা হয়েছে করোনাভাইরাসের হাসপাতাল হিসেবে, সেখানে তারা যাচ্ছেন না। তারা যাচ্ছেন সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি যে এটা প্রমাণ করে সিভিল হেলথ ব্যবস্থা অর্থাৎ বেসামরিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থা প্রায় ভেঙেই পড়েছে, যার কারণে কারও আস্থা সেখানে থাকছে না।

ফখরুল বলেন, 'করোনাভাইরাসে লকডাউন করা হয় নাই, কিন্তু ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। সাধারণ ছুটি ঘোষণা করার মধ্য দিয়ে মানুষ আসলে সাধারণ ছুটি ভোগ করছে, আমরা যা দেখতে পারছি চতুর্দিকে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমরা লক্ষ করেছি যে, সরকার এই বিষয়টাতে যে ধরনের গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন ছিল, তা দিতে তারা ব্যর্থ হয়েছে।' সমগ্র দেশের মানুষ সুস্থ থাকুক এবং তারা করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত থাকুক, এই কামনাও করেন ফখরুল।

এ সময় স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সেলিমা রহমান, নজরুল ইসলাম খান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া, বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খানও উপস্থিত ছিলেন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »




আরও সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: vorerpata24@gmail.com news@dailyvorerpata.com