শুক্রবার ● ২৯ মে ২০২০ ● ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ ● ৫ শওয়াল ১৪৪১
মানবিকতার দৃষ্টান্ত রাখলেন পঞ্চগড় আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক
প্রতিনিধি পঞ্চগড়
প্রকাশ: শনিবার, ২৩ মে, ২০২০, ১০:৩৬ পিএম আপডেট: ২৩.০৫.২০২০ ১০:৩৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

মানবিকতার দৃষ্টান্ত রাখলেন পঞ্চগড় আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক

মানবিকতার দৃষ্টান্ত রাখলেন পঞ্চগড় আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক

পঞ্চগড় পৌরসভা এলাকার রাজনগড় গ্রামের প্রতিবন্ধী কিশোরী মৃত  আব্দুল সোবাহানের মেয়ে ফারজানা (১৬) । শনিবার সকালে ঐ কিশোরী সহ তার মা গুলশানা বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেডিয়ামে ত্রান নিতে এসে মেয়েকে নিয়ে স্টেডিয়ামে লাইনে বসে  ছিল। কথা বলতে না পারা ফারজানা শুধু অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকে। এই ঈদে পাঁচশত টাকা ত্রানের জন্য প্রতিবন্ধী ফারজানাকে কোলে নিয়ে মা যখন মাঠে বসে আছে। 

এ সময় জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আনোয়ার সাদাত স¤্রাট ঐ ত্রান বিতরন অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশ নেয়। কিন্তু সবার প্রথমে ঐ প্রতিবন্ধী কিশোরি আনোয়ার সাদাত স¤্রাট এর নজরে পড়ে। একদিকে ত্রান বিতরন চলছিল সে সময় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও  জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আনোয়ার সাদাত স¤্রাট প্রতিবন্ধীর পাশে গিয়ে দাঁড়ায় । তার মাকে জিজ্ঞাসা করে আপনি কোলে নিয়ে মেয়েকে নিয়ে কতদিন থেকে কস্ট করছেন । এসময় তার মা গুলশানা কাঁদো কাঁদো কন্ঠে উত্তর দেয় আসলে আমার প্রতিবন্ধী মেয়েকে দেখার মত কেউ নেই। জন্ম নেওয়ার ৪০ দিন পর হঠাৎ করে নিউমোনিয়া হলে চিকিৎসা নিতে গিয়ে ডাক্তার আমার মেয়েকে কয়েকটি ইনজেকশন দিলে সেই থেকে আমার মেয়ে আর কোনদিন কথা বলতে পারেনি আর বড় হয়ে হাটাচলাও করতে পারেনি। দুই মেয়ে এক ছেলে নিয়ে বাড়িতে বাড়িতে বুয়ার কাজ করে সংসার চলে আমার। বড় মেয়ের বিয়ে হয়েছে পাঁচ বছর আগে, আর ছেলে শুভ কাপড়ের দোকানের কর্মচারি হয়ে যা আয় করে তা দিয়ে বড় ছেলের সংসার চলে কিন্তু ছোট মেয়ে ফারজানা  হাটাচলা করতে পারেনা ।  তবুও মেয়ে তো তাকে তো আর ফেলে দিতে পারিনা। সেই মায়ের কথা শুনে আনোয়ার সাদাত স¤্রাট আবেগে আপ্লুত হয়ে তাকে তুলে নিয়ে যায় জেলা পরিষদ কার্য্যালয়ে যায় সেখানে প্রথমে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে একটি আধুনিক হুইল চেয়ার তুলে দেয়। 

হুইল চেয়ারে বসিয়ে কিছুক্ষন তার সাথে সময় কাটায় আনোয়ার সাদাত স¤্রাট। তারপর নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছে প্রতিবন্ধী কিশোরির মায়ের হাতে। ঈদ উল ফিতর নতুন পোশাক ও ফলমুল কিনে দেওয়ার ব্যবস্থা করে। একই সাথে আনোয়ার সাদাত স¤্রাট প্রতিমাসে ঐ প্রতিবন্ধী কিশোরির জন্য অর্থ সহায়তার ব্যবস্থা করার ব্যবস্থা করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছে। তাছাড়া  ভবিষ্যৎ এ ঐ কিশোরির পাশে থাকার আশ্বাস দেয় এই জেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক। 

আনোয়ার সাদাত স¤্রাট জানায় আসলে আমি ত্রান বিতরনের অনুষ্ঠানে দেখতে পাই একজন প্রতিবন্ধী কিশোরী মাঠে শুয়ে আছে তার মায়ের কোলে মাথা রেখে। কস্টও হচ্ছিল তার মায়ের রোদে এভাবে থাকতে। আমি তাৎক্ষনিক গুলশানার সাথে কিছুক্ষন কথা বলে তাদের পরিবারের খোঁজ খবর নেই । আমার মনে হয়েছে আসলে এই ঈদে সবাই আনন্দে কাটাবে আর আমার এলাকার এই প্রতিবন্ধী কিশোরী আনন্দে থাকবেনা এটা কেমন হয়। আমি প্রথমে ঐ কিশোরির জন্য একটি আধুনিক হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা করেছি। কারন আমি দেখলাম মেয়েকে কোলে নিয়ে কিভাবে তার মা এত কস্ট করে সংসার চালায়? একদিকে গুলশানা  বিধবা মহিলা, বাড়িতে বুয়ার কাজ করে। এজন্যই প্রথমে হুইল চেয়ার দিয়েছি যাতে প্রতিবন্ধী কিশোরি ও তার মায়ের চলতে সমস্যা না হয়। 
এরপর নগদ অর্থ সহ নতুন পোশাক ও ফলমুল কিনে তাদের হাতে দিয়েছি । আর আমাদের প্রধানমন্ত্রী চায় এই সরকারের আমলে প্রতিবন্ধীরা আমাদের সমাজের বোঝা না হয় এজন্য আমি আগামিতে ঐ কিশোরির প্রতিমাসে আর্থিক সহায়তার ব্যবস্থা করবো। সমাজের বিত্তবানরাও যদি এভাবে আমাদের সমাজের প্রতিবন্ধীদের সাহায্যার্থে এগিয়ে আসে তাহলে আমার মনে হয় এই সমাজের কোন প্রতিবন্ধী কস্টে থাকবেনা।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »




সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]