শুক্রবার ● ২৯ মে ২০২০ ● ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ ● ৫ শওয়াল ১৪৪১
তারাবির নামাজ ঘরে পড়ার আহ্বান জানালেন তাবলীগ জামাতের বিশ্ব আমীর মাওলানা সাদ (দাঃ বাঃ)
ভোরের পাতা ডেস্ক
প্রকাশ: বুধবার, ২২ এপ্রিল, ২০২০, ১০:২৩ এএম আপডেট: ২২.০৪.২০২০ ১০:৪৩ এএম | অনলাইন সংস্করণ

তারাবির নামাজ ঘরে পড়ার আহ্বান জানালেন তাবলীগ জামাতের বিশ্ব আমীর মাওলানা সাদ (দাঃ বাঃ)

তারাবির নামাজ ঘরে পড়ার আহ্বান জানালেন তাবলীগ জামাতের বিশ্ব আমীর মাওলানা সাদ (দাঃ বাঃ)

প্রাণঘাতী করোনায় বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৭৭ হাজার ছাড়িয়েছে; আক্রান্ত ২৫ লাখের বেশি। সুস্থ হয়েছেন ৬ লাখ ৯০ হাজারের বেশি মানুষ। এমন অবস্থায় আসন্ন রমজানে বিশ্বজুড়ে মুসলমানদের তারাবির নামাজ ঘরে পড়ার আহ্বান জানিয়েছেন তাবলীগ জামাতের বিশ্ব আমীর মাওলানা সাদ কান্ধলভি

মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) রমজান নিয়ে বাংলাদেশ সহ সারা বিশ্বের তাবলীগ জামাতের সাথী ও মুসলমানদের জন্য  তাবলীগ জামাতের বিশ্ব আমীর মাওলানা সাদ কান্ধলভি এক চিঠিতে জানিয়েছেন, মেরে মোহতারাম আজীজ দোস্ত, পবিত্র রমজান মাস দাওয়াত ও ইবাদতকে জমা করার মাস এবং আল্লাহ্‌ তাআলার পক্ষ থেকে রহমত, মাগফিরাত এবং জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাওয়ার মাস। 

দোয়ার কবুলিয়াত এবং শরীরকে গুনাহ থেকে পাক করার জন্য রোজা শরীরের জাকাত স্বরূপ। সারা দুনিয়াতে দাওয়াতের কাজ করনেওয়ালা সাথিদের নিকট এবং সারা দুনিয়ার সমস্ত মুসলমানদের নিকট দরখাস্ত যে এই পবিত্র মাসে নিজের জন্য এবং সারা দুনিয়ার বসবাসকারী সমস্ত মানুষের এই মহামারী থেকে মুক্তির জন্য দোয়া, ইস্তেগফার এবং সাদকার দ্বারা ফায়সালা করাবে।

পবিত্র রমজান মাস এস্তেমায়ী আমলের মাস। যার সখ এবং জজবা সমস্ত উম্মতের দিলে আছে। এজন্য সমস্ত দেশ বিদেশের সকল দাওয়াতের কাজ করনেওয়ালা সাথীদের নিকট দরখাস্ত করা হচ্ছে যে, যতদিন পর্যন্ত দেশে এবং এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুরাপুরি পাবন্দি (লকডাউন) উঠে না যায়, ততদিন পর্যন্ত সকলে নিজেদের ঘরে থেকে বেশি লোক একত্রিত না হয়ে নিজ নিজ তারাবির নামাজ আদায় করবে। অবশ্যই প্রশাসন ও মসজিদ কমিটির শর্ত সারায়েতের দিকে লক্ষ্য রেখে মসজিদেও তারাবীহ'র এহতেমাম করবে এবং এই ব্যাপারে কমিটিকেও সাহায্য করবে। এটা আমাদের সকলের এস্তেমায়ী জিম্মাদারি
তারাবির নামাজ ঘরে পড়ার আহ্বান জানালেন তাবলীগ জামাতের বিশ্ব আমীর মাওলানা সাদ (দাঃ বাঃ)

তারাবির নামাজ ঘরে পড়ার আহ্বান জানালেন তাবলীগ জামাতের বিশ্ব আমীর মাওলানা সাদ (দাঃ বাঃ)


তিনি আরও জানান, আমাদের আহাম জিম্মাদারি আমলে দাওয়াত। বর্তমানে যার আসল তরীকা নিজ নিজ ঘরে থেকে ইনফেরাদি (ব্যক্তিগত) ভাবে একে অন্যকে ভালো কাজের আদেশ করবে এবং মন্দ কাজ থেকে নিষেধ করবে। বড় মজমা এবং ভিড় করা ছাড়া নিজ নিজ ঘরে তালিমের হালকা কায়েম করবে। এই মহামারী নিঃসন্দেহে আল্লাহ্‌ তায়ালার আযাবের থেকে পরিত্রাণ পেতে তওবা, ইস্তেগফার, সাদকা এবং সালাতুল হাজতের এহতেমাম করবে ও একিনের সাথে করবে।

সতর্কতা অবলম্বন করা, ডাক্তারের কথা মত চলা, কখনই একীন, তাওয়াক্কুল ও ঈমানের খেলাপ না হওয়া। নিজেদের ঘরে থেকে দাওয়াত এবং এবাদতের উপর কায়েম থাকা এবং বর্তমান নিজের জজবাকে কোরবান করা দিগুণ আজবের বা সওয়াবের কারণ হবে। কেননা আল্লাহ্‌ তায়ালা মাজুরের আমলে পরিপূর্ণ করে কবুল করেন। 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »




সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]