মঙ্গলবার ● ৭ এপ্রিল ২০২০ ● ২৩ চৈত্র ১৪২৬ ● ১২ শাবান ১৪৪১
সঙ্গীত শিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহ আর নেই : সঙ্গীতাঙ্গনে শোকের ছায়া
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ২৪ মার্চ, ২০১৯, ১২:৩৯ পিএম আপডেট: ২৪.০৩.২০১৯ ১২:৪২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সঙ্গীত শিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহ আর নেই : সঙ্গীতাঙ্গনে শোকের ছায়া

সঙ্গীত শিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহ আর নেই : সঙ্গীতাঙ্গনে শোকের ছায়া

একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহ আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। শনিবার রাত সাড়ে ১১টায় বারিধারায় নিজ বাসভবনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। তার মৃত্যুর খবরে সঙ্গীতাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে আসে। রাতেই বাসায় ছুটে যান সঙ্গীতশিল্পী শওকত আলী ইমন ও বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী ডলি ইকবালসহ অনেকে।  

শাহনাজের পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়, রোববার  বাদ জোহর বারিধারার ৯ নম্বর রোডের পার্ক মসজিদে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে এই বরেণ্য শিল্পীকে বনানীতে সম্মিলিত সামরিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

শাহনাজ রহমতউল্লাহ ১৯৫২ সালে জন্মগ্রহণ করেন।

আধুনিক গান, গজল, দেশাত্মবোধক গান ও চলচ্চিত্রের অসংখ্য চিরায়তধারার গান গেয়েছেন শিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহ। ছোটবেলা থেকে সঙ্গীত চর্চা শুরু করেন। মাত্র ১১ বছর বয়সে ১৯৬৩ সালে ‘নতুন সুর’ ছবিতে গান করেন। সে থেকে বাংলা, উর্দু কয়েকটি ছবিতে গান করেন। ১৯৭৩ সালে ‘ আবার তোরা মানুষ হ ‘ চলচিত্রেও গান গেয়েছেন।

প্রখ্যাত গজলশিল্পী মেহেদী হাসানের কাছে তিনি গজল শিখেছেন। ১৯৭৩ সালে তিনি আবুল বাশার রহমতউল্লার সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের এক মেয়ে নাহিদ রাহমত উল্লাহ এবং এক ছেলে একে এম সায়েফ রহমত উল্লাহ। শাহনাজ রাহমত উল্লাহর ভাই আনোয়ার পারভেজ ছিলেন এদেশের প্রখ্যাত একজন সুরকার এবং সঙ্গীত পরিচালক। আরেক ভাই জাফর ইকবাল ছিলেন এদেশের চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক।

তার গাওয়া অসংখ্য গান বাংলা সঙ্গীত জগতকে সস্মৃদ্ধ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে ‘একতারা তুই দেশের কথা বলরে এবার বল, যে ছিল দৃষ্টির সীমনায়, একবার যেতে দে না আমায় ছোট্ট সোনার গায়, এক নদী রক্ত পেরিয়ে, ফুলের কানে ভ্রমর এসে, আমার দেশের মাটিরও গন্ধে। শাহনাজ সংগীতে বিশেষ অবদানের জন্য একুশে পদক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, শিল্পকলা একাডেমি পুরস্কার ও চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতির পুরস্কার লাভ করেন। তার গানের বেশ কয়েকটি এ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে।

তিনি স্বামী, এক পুত্র, এক বোনসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও শুভাকাক্সক্ষী রেখে গেছেন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »




সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]