রাজনীতি

কোটা ইস্যুকে কেন্দ্র করে সরকার দমনে যা করতে চেয়েছিলেন তারেক!

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

লন্ডনে তারেক জিয়ার কমর্কান্ড রহস্যজনক বলে জানিয়েছে দলের নেতাকর্মীরা। তথ্য অনুযায়ী লন্ডনে বসে, তারেক বাংলাদেশে সরকার উৎখাতের চক্রান্ত করছেন। এজন্য পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই ছাড়াও তারেক জিয়া একাধিক জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে কথা বলছেন বলে জানা গেছে।

তারেকের এবারের পরিকল্পনা ছিল কিছুটা ব্যতিক্রম l সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, তারেক দু’টি ইস্যু নিয়ে কাজ করার কথা ভাবছিলেন। প্রথমত- কোটা সংস্কার, দ্বিতীয়ত- চাকরির বয়সসীমা। দু’টিই তরুণ এবং শিক্ষার্থীদের দাবি। তাই সহজে আন্দোলন গড়ে তোলা সম্ভব।

অনুসন্ধানে দেখা গেছে, কেন্দ্রীয় ভাবে আন্দোলন শুরুর পরপরই এতে একটা সহিংস রূপ দেওয়ার প্রয়োজন ছিল। উপাচার্যের বাসভবনের হামলা সেই পরিকল্পনারই অংশ। গোয়েন্দা অনুসন্ধানে জানা গেছে, উপাচার্যের বাসভবনে হামলায় কিছু মুখোশধারী ‘ট্রেইনড’ সন্ত্রাসী ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, এরা তারেক জিয়ার লোক।

তারেক জিয়ার মাস্টারপ্ল্যান অনুযায়ী উপাচার্যের বাস ভবনে হামলা হলে ছাত্রলীগের পাল্টা আঘাত হানার কথা ছিল। দুপক্ষের সংঘর্ষে কয়েজন মারা যাবে। এই লাশ নিয়েই শিক্ষার্থীরা সরকার পতন আন্দোলনে যাবে। কিন্তু ওই পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়। এমনকি লাশের গুজব ছড়িয়েও শেষ পর্যন্ত সফল হয়নি তারেক জিয়া।

পরিশেষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কোটা বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলে দৃশ্যপট পাল্টে যায়। ভেস্তে যায় তারেক জিয়ার আরেকটি মাস্টারপ্ল্যান।

Spread the love
  • 37
    Shares

রাজনীতি | আরো খবর