বাহরাইনকে ১০-০ গোলে গুঁড়িয়ে দিল বাংলাদেশের মেয়েরা

  • ১৭-Sep-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: স্পোর্টস ডেস্ক ::

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বের খেলায় প্রথম ম্যাচেই চমক স্বাগতিক বাংলাদেশের। আগেরদিনই অধিনায়ক মারিয়া মান্দা, কোচ গোলাম রব্বানি ছোটনরা জানিয়েছিলেন, প্রথম ম্যাচেই নিজেদের শক্তি প্রদর্শণ করতে চায় বাংলাদেশ।

বাহরাইনকে পেয়ে সেই শক্তিরই পরীক্ষা করে নিলো বাংলাদেশের মেয়েরা। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিকে তারা রীতিমত উড়িয়ে দিয়েছে ১০-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে।

সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলায় শুরু থেকেই ছিল বাংলাদেশের আধিপত্য।

১২ মিনিটে আনাই মোগিনির লক্ষ্যভেদে শুরু লাল-সবুজ দলের গোল উৎসব। চার মিনিট পর মারিয়ার জোরালো শটে দ্বিগুণ হয়ে যায় ব্যবধান। ১৯ মিনিটে শামসুন্নাহার জুনিয়রের পাস থেকে বক্সের ভেতরে থাকা আনুচিং মোগিনীর প্লেসিং শটে স্কোরলাইন হয় ৩-০।

৩৫ মিনিটে আবার গোল। বাঁ দিক দিয়ে আক্রমণে ওঠা ঋতুপর্ণার ক্রস বাহরাইনের গোলকিপার ফেরালেও আনুচিংয়ের শট কেউ ঠেকাতে পারেনি। প্রথমার্ধের ইনজুরি সময়ে আনাই মোগিনীর ডান প্রান্তের ক্রসে হেড করে পঞ্চম গোল করেন শামসুন্নাহার জুনিয়র। এরপর মারিয়ার জোরালো শট বারে লেগে ফিরে এলে ৫-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয়ার্ধেও স্বাগতিকদের আক্রমণে ভাটা পড়েনি। ৫৫ মিনিটে আঁখি খাতুনের পাস ধরে বক্সে ঢুকে গোল করেন সাজেদা খাতুন। দুই মিনিট পর শামসুন্নাহার জুনিয়রের জোরালো শটে আবার গোল।

৫৮ মিনিটে শামসুন্নাহার জুনিয়রকে বক্সের মধ্যে ফাউল করে ডানা বাসিম বাংলাদেশকে পেনাল্টি তো দিয়েছেনই, পেয়েছেন লাল কার্ডও। পেনাল্টি থেকে গোল করেছেন শামসুন্নাহার সিনিয়র। ম্যাচের শেষ দুটি গোল মারিয়া এবং তহুরা খাতুনের।

দিনের প্রথম ম্যাচে লেবানন ৬-৩ গোলে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে হারিয়েছে। জাহরা আসাফ হ্যাটট্রিক সহ চার গোল করে টানা দ্বিতীয় জয় এনে দিয়েছেন দলকে।

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ মেয়েদের ফুটবলে ২০১৬ সালে ঘরের মাঠে বাছাইপর্বে অপরাজিত গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল লাল-সবুজের কিশোরীরা। দুইবছর পর ফের ঘরের মাঠে খেলা।

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বে দল বাড়ায় ফরম্যাটেও পরিবর্তন এনেছে এএফসি। এবার চূড়ান্তপর্বে উঠতে দুটি পর্ব খেলতে হবে দলগুলোকে। প্রথম রাউন্ডের ছয় গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ও সেরা দুই রানার্সআপ উঠবে দ্বিতীয় পর্বে। সেখানেও খেলা হবে দুই গ্রুপে। সেখান থেকে চার সেমিফাইনালিস্ট উঠবে মূলপর্বে। এবারও মূলপর্বের স্বাগতিক থাইল্যান্ড। মূলপর্বে থাইল্যান্ড ছাড়াও সরাসরি খেলবে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া এবং জাপান।

আগামী বুধবার লেবানন, ২১ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং গ্রুপের শেষ ম্যাচে ২৩ সেপ্টেম্বর ভিয়েতনামের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ।

/ই

Ads
Ads